পছন্দের খবর জেনে নিন সঙ্গে সঙ্গে

কোভিড: গণটিকার দ্বিতীয় ডোজেও ‘ব্যাপক উৎসাহ’

  • নিজস্ব প্রতিবেদক, বিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম
    Published: 2021-09-07 13:54:05 BdST

করোনাভাইরাস প্রতিরোধে অগাস্টের শুরুতে দেশজুড়ে গণ টিকাদান কর্মসূচিতে প্রথম ডোজ টিকা নিতে যেমন ভিড় দেখা গিয়েছিলেন, তেমন উৎসাহ নিয়েই দ্বিতীয় ডোজের টিকা নিতে আসছে মানুষ।

টিকাদান কর্মসূচিতে সম্পৃক্তরা বলছেন, তেমন প্রচার না চালালেও মঙ্গলবার সকাল থেকে মানুষের মধ্যে বেশ আগ্রহ দেখছেন তারা।

টিকাদানে গতি আনতে গত ৭ অগাস্ট দেশজুড়ে ৬ দিনের গণটিকাদান কার্যক্রম শুরু করে সরকার। স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ের তথ্য অনুযায়ী, তাতে ৫০ লাখ ৭১ হাজার মানুষ টিকার প্রথম ডোজ পেয়েছেন।

ঢাকায় দ্বিতীয় দফায় এই গণটিকাদান চলবে ৭ সেপ্টেম্বর থেকে ৯ সেপ্টেম্বর পর্যন্ত। এই কর্মসূচির আওতায় প্রথম ডোজ টিকা যারা নিয়েছেন, তারা এই তিনদিন সকাল ৯টা থেকে বিকাল ৫টা পর্যন্ত টিকা নিতে পারবেন।

প্রথম দফায় রাজধানীর কেন্দ্রগুলোতে দিনে ৩৫০ জনকে টিকা দেওয়া হয়েছে। এবারের কর্মসূচি তিন দিনে নামিয়ে আনায় প্রতিদিন টিকা দেওয়া হবে ৭০০ জনকে।

ঢাকার শেরে বাংলানগরে রাজধানী উচ্চ বিদ্যালয় কেন্দ্রে মঙ্গলবার করোনাভাইরাসের টিকার দ্বিতীয় ডোজ নিতে আসা সবার তথ্য যাচাই করছেন এক স্বেচ্ছাসেবক। ছবি: আসিফ মাহমুদ অভি

ঢাকার শেরে বাংলানগরে রাজধানী উচ্চ বিদ্যালয় কেন্দ্রে মঙ্গলবার করোনাভাইরাসের টিকার দ্বিতীয় ডোজ নিতে আসা সবার তথ্য যাচাই করছেন এক স্বেচ্ছাসেবক। ছবি: আসিফ মাহমুদ অভি

ঢাকা উত্তর সিটি করপোরেশনের ২ নম্বর ওয়ার্ডের গণটিকাদান কেন্দ্র পল্লবী কমিউনিটি সেন্টারে ভোর থেকেই টিকা নিতে লাইন শুরু হয়ে যায়।

এই কেন্দ্রে টিকা নিতে আসা বেসরকারি চাকরিজীবী সরওয়ার আলম বলেন, দ্বিতীয় ডোজ কবে কোথায় কীভাবে দেওয়া হবে, সে বিষয়ে আগে থেকে তথ্য না পাওয়ায় ঝামেলায় পড়তে হয়েছে তাকে।

“সারাদিন লাইনে দাঁড়িয়ে তো টিকা নেওয়ার সুযোগ নেই। অফিস করতে হবে। সেজন্য সকাল সকাল আসছি। যাতে ফার্স্ট আওয়ারে চলে যেতে পারি। কাল রাতে শুনলাম ৭ অগাস্ট যারা টিকা নিছে, তাদের আজকেই টিকা নিতে হবে। আগে জানলে তো ছুটি নিতে পারতাম।”

গণটিকার দ্বিতীয় ডোজ চলবে ৬ দিন, ঢাকা সিটিতে ৩ দিন  

মিরপুর ১২ নম্বর সেকশনের বাসিন্দা তুহিন আক্তার জানান, লাইনে পিছনে থাকলেও প্রথম ডোজের মত দুশ্চিন্তায় পড়তে হচ্ছে না তাকে।

“তখন তো অনেক মানুষ লাইনে ছিল। টিকা যে পাব সেটাই ভাবি নাই। এখন তো এত মানুষ আসবে না। আর প্রথম ডোজ যেহেতু নিছি, দ্বিতীয় ডোজ তো দিবেই। লাইনে দাঁড়াতে হচ্ছে, এটাই কষ্ট। আকাশটাও মেঘলা, বৃষ্টি হলে তো ঝামেলা।”

কেন্দ্রে থাকা ঢাকা উত্তর সিটি করপোরেশনের ২ নম্বর ওয়ার্ডের কাউন্সিলর সাজ্জাদ হোসেন জানান, এই কর্মসূচি সম্পর্কে তিনি জানতে পেরেছেন সোমবার সন্ধ্যা ৭টার পর। সেভাবে প্রচার চালাতে না পারলেও ভোর ৬টা থেকেই কেন্দ্রে আসতে শুরু করেছেন টিকাপ্রত্যাশীরা।

ঢাকার শেরে বাংলানগরে রাজধানী উচ্চ বিদ্যালয় কেন্দ্রে মঙ্গলবার করোনাভাইরাসের টিকার দ্বিতীয় ডোজ নিতে আসা সবার তথ্য যাচাই করছেন স্বেচ্ছাসেবকরা। ছবি: আসিফ মাহমুদ অভি

ঢাকার শেরে বাংলানগরে রাজধানী উচ্চ বিদ্যালয় কেন্দ্রে মঙ্গলবার করোনাভাইরাসের টিকার দ্বিতীয় ডোজ নিতে আসা সবার তথ্য যাচাই করছেন স্বেচ্ছাসেবকরা। ছবি: আসিফ মাহমুদ অভি

“লাইন ধরে টিকা নিচ্ছে। কিন্তু যেহেতু খুবই অল্প সময়ে জানানো হয়েছে, সেজন্য প্রথম দুই দিন টিকা নেওয়া সাতশ জন আজ আসবে কিনা সেটা নিয়ে কিছু সন্দেহ রয়েছে। অনেকে হয়তো নাও জানতে পারে।”

তিনি জানান, কেউ কেউ প্রথম ডোজ টিকা নেওয়ার জন্য আসছেন। তবে সুযোগ না থাকায় তাদের ফিরিয়ে দেওয়া হচ্ছে। তাদের নিবন্ধন করে স্বাভাবিক নিয়মে নির্ধারিত কেন্দ্রে থেকে টিকা নিতে হবে।

ঢাকা দক্ষিণ সিটি করপোরেশনের প্রধান স্বাস্থ্য কর্মকর্তা ব্রিগেডিয়ার জেনারেল মোহাম্মদ শরীফ আহমেদ জানান, টিকা কেন্দ্রগুলোতে ঘুরে তিনিও দীর্ঘ লাইন দেখেছেন।

“গতকাল ৫টায় আমি জানতে পারি যে টিকার দ্বিতীয় ডোজ আগের কেন্দ্রে দেওয়া হবে। এরপর সবাইকে নিয়ে এটা দেওয়ার ব্যবস্থা করি। কিন্তু এত অল্প সময়ে মানুষ এত সাড়া দেবে সেটা ভাবিনি। সব কেন্দ্রই ভরে গেছে মানুষে।”

গণ টিকাদান কর্মসূচিতে ৭ ও ৮ অগাস্টের প্রথম ডোজ টিকার দ্বিতীয় ডোজ দেওয়া হচ্ছে ৭ সেপ্টেম্বর। ৯ ও ১০ অগাস্ট যারা প্রথম ডোজ নিয়েছেন, তারা ৮ সেপ্টেম্বর পাবেন দ্বিতীয় ডোজ। আর ১১ ও ১২ অগাস্ট প্রথম ডোজ পাওয়া ব্যক্তিদের ৯ সেপ্টেম্বর দ্বিতীয় ডোজ দেওয়া হবে।

প্রথম ডোজ যারা পেয়েছেন, তাদের সবাইকেই দ্বিতীয় ডোজ দেওয়া হবে জানিয়ে এই কর্মকর্তা বলেন, “মানুষের আগ্রহ আছে। এরপরও আজকে কেউ মিস করলে আগামীকাল তাদের দেওয়া হবে।”

ঢাকার শেরে বাংলানগরে রাজধানী উচ্চ বিদ্যালয় কেন্দ্রে মঙ্গলবার করোনাভাইরাসের টিকার দ্বিতীয় ডোজ দেওয়ার প্রস্তুতি নিচ্ছেন একজন স্বাস্থ্যকর্মী। ছবি: আসিফ মাহমুদ অভি

ঢাকার শেরে বাংলানগরে রাজধানী উচ্চ বিদ্যালয় কেন্দ্রে মঙ্গলবার করোনাভাইরাসের টিকার দ্বিতীয় ডোজ দেওয়ার প্রস্তুতি নিচ্ছেন একজন স্বাস্থ্যকর্মী। ছবি: আসিফ মাহমুদ অভি

ব্রিগেডিয়ার জেনারেল মোহাম্মদ শরীফ আহমেদ বলেন, “কেন্দ্রে ভিড় থাকলেও এবার ঝামেলা কম হচ্ছে। কারণ নতুন করে রেজিস্ট্রেশন করতে হচ্ছে না। তবে একদিনে যেহেতু সাতশ জনকে দেওয়া হবে, সে কারণে একটু চাপ হবে।

“আমাদের টার্গেট দিনে সাতশ জনকে দেওয়া। যতক্ষণ এটা পূরণ না হবে ততক্ষণ টিকা দেওয়া চলবে। মানুষের যেহেতু আগ্রহ আছে, আগামীকাল থেকে আরেকটু সকালে আমরা টিকা দেওয়া শুরু করে দেব।”

স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের তথ্য অনুযায়ী, এ পর্যন্ত ১ কোটি ৯৬ লাখ ১৫ হাজার ৬১৪ জন প্রথম ডোজ টিকা নিয়েছেন, যাদের মধ্যে ৮৯ লাখ ৬৫ হাজার পেয়েছেন দ্বিতীয় ডোজ।

স্বাস্থ্য কর্মকর্তারা আশা করছেন, তিন দিনের গণ টিকাদানে আরও ৫০ লাখ মানুষ দ্বিতীয় ডোজের হিসাবে যোগ হবেন।

পুরনো খবর

গণটিকার দ্বিতীয় ডোজ আগের কেন্দ্রেই: স্বাস্থ্য অধিদপ্তর

গণটিকা কার্যক্রম আর নয়, টিকাপ্রাপ্তি সাপেক্ষে নিবন্ধন: স্বাস্থ্যমন্ত্রী  

টিকা পেতে সন্ধ্যা থেকেই লাইনে

একদিনে টিকা পেলেন ২৮ লাখ মানুষ  

গণটিকাদানের শেষ দিনেও অব্যবস্থাপনায় ক্ষোভ