১৭ ফেব্রুয়ারি ২০১৯, ৫ ফাল্গুন ১৪২৫

ঙ লিখতে গিয়ে পেন্সিল গেলো ভেঙে

  • জাফর সাদেক চৌধুরী, বিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম
    Published: 2018-12-26 13:33:07 BdST

bdnews24
অলঙ্করণ: শিল্পী সোহাগ পারভেজ

 

সবুজ পতাকা

 

ঙ লিখতে গিয়ে

পেন্সিল গেলো ভেঙে

আয়রা মনি কাঁদছে বসে

সদ্য নতুন ঢঙে।

আয়রা মনি ভেঙচি কাটে

দেখে কোলা ব্যাঙ

গান শুনিয়ে দিলো তাকে

ঘ্যাঙর ঘ্যাঙর ঘ্যাঙ।

আয়রা মনি ডিগবাজি খায়

ভাঙবে বুঝি ঠ্যাঙ

ডিগবাজিটা বন্ধ হলে

মারতে যাবে ল্যাঙ।

আয়রা মনির বায়না এখন

রঙ তুলি চাই তার

রঙ তুলিতে আঁকবে ছবি

সবুজ পতাকার।

 

হাঁড়ির খবর

 

হাঁড়িতে থাকে রস

থাকে রসগোল্লা

হাঁড়ি নিয়ে দইওয়ালা

করে রোজ হল্লা।

হাটে হাঁড়ি ভাঙে কেনো

জেনেছ কি একবার

খবরের খোঁজে লোকে

হাঁড়ি করে ছারখার।

অন্যের বাড়া ভাতে

দিতে ছাই হররোজ

কেউ হাটে হাঁড়ি ভেঙে

সুখে করে ভুরিভোজ।

কারো কারো হাঁড়িতে

খবরও থাকে বেশ

তারা যদি হাঁড়ি ভাঙে

কেউ হয় নিঃশেষ।

অন্যের হাঁড়ি নিয়ে

শোরগোল করে যারা

তারাও যে বাগে পড়ে

হাঁড়ি নিয়ে খায় ধরা।

 

হেমন্তের সকাল

 

অগ্রহায়ণে ভরে গেছে

সোনা ধানে ঘর

নবান্নতে মাতলো সবাই

ক্ষুধা হলো পর।

হরেণ মাঝি গাইছে দূরে

ভাটিয়ালি গান

হিম বাতাসে আসছে ভেসে

পলি মাটির ঘ্রাণ।

হিমকুহেলি মেঘলা আকাশ

রোদের লুকোচুরি

হেমন্তেরই সকাল বেলায়

খুললো পিঠার ঝুড়ি।

 

পল্লীর খেলা

 

কানামাছি বউচি

খেলেছো কয়জন

কাবাডি খেলতে

লাগেযে সাত জন।

গোল্লাছুট খেলাতে

লাগেনাকো গোল্লা

টোপাভাতি খেলাতে

হয়নাকো হল্লা।

ডাংগুলি খেলতে

লাগে এক ডাণ্ডা

ডাণ্ডার বাড়ি খেয়ে

গুলি হয় ঠাণ্ডা।

মার্বেল খেলাতে

নেই কোনো শোরগোল

পুতুলের বিয়েতে

বাজে কতো ঢাকঢোল।

বাংলার পল্লীতে

আছে কতো খেলারে

ঘুড়িতে কাটাকাটি

ছিল কতো মজারে।

বন্ধুরা অনেকেই

এসব দেখোনি

নাগরিক জীবনের

অজ্ঞতা এমনি।

 

 

কিডস পাতায় বড়দের সঙ্গে শিশু-কিশোররাও লিখতে পারো। নিজের লেখা ছড়া-কবিতা, ছোটগল্প, ভ্রমণকাহিনী, মজার অভিজ্ঞতা, আঁকা ছবি, সম্প্রতি পড়া কোনো বই, বিজ্ঞান, চলচ্চিত্র, খেলাধুলা ও নিজ স্কুল-কলেজের সাংস্কৃতিক খবর যতো ইচ্ছে পাঠাও। ঠিকানা kidz@bdnews24.com। সঙ্গে নিজের নাম-ঠিকানা ও ছবি দিতে ভুলো না!

ট্যাগ:  ছড়ায় বর্ণমালায়