২৪ আগস্ট ২০১৯, ৯ ভাদ্র ১৪২৬

বিজ্ঞান শিখি: আধুলিকে টাকা বানানো

  • শেখ আনোয়ার, বিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম
    Published: 2019-08-08 15:19:51 BdST

আধুলিকে টাকায় পরিণত করে দেখানো, পয়সাকে ডবল পয়সা বানিয়ে বা সিকিকে আধুলি বানিয়ে দেখানোর মতো অবাক করার এ খেলাটি খুবই কৌতূহল উদ্দীপক এবং জনপ্রিয়ও বটে।

এ খেলাটির সুবিধা হলো এজন্য বিশেষ কোনো যন্ত্রপাতির প্রয়োজন হয় না। একটি স্বচ্ছ কাচের গ্লাস, একটি দিয়াশলাই, একটি চায়ের পিরিচ ও সামান্য একটু পানি থাকলেই চলবে।

কিভাবে বানাবে?

চায়ের পিরিচে একটি আধুলি নাও ও তার নিচে একটি দিয়াশলাইয়ের কাঠি ইংরেজি ‘এল’ অক্ষরের মতো ভেঙ্গে দাঁড় করিয়ে দাও। এবার পিরিচের মধ্যে সামান্য কিছু পানি ঢেলে নাও। মনে রাখবে যে, পানি এমনভাবে ঢালতে হবে যেন আধুলিটি ডুবে যায়, কিন্তু দিয়াশলাইয়ের কাঠির বারুদের দিকটি পানিতে ভিজে না যায়। ব্যস।

এবার ওই কাঠিতে আগুন ধরাও এবং তখনি কাচের গ্লাস দিয়ে চাপ দাও। তাতে সমস্ত পানি গ্লাসে ওঠে যাবে এবং দেখা যাবে যে আধুলিটি টাকা হয়ে গেছে এবং পানির উপরে একটি ছোট সিকি ভাসছে। পয়সা রেখে এরূপ করলে যথাক্রমে ডবল পয়সা দেখা যেতো।

খেলাটি বাসায় নিজে নিজে কয়েকবার চেষ্টা করে বন্ধুকে দেখিয়ে অবাক করে দিতে পারবে তুমি।

কেন এমন হয়?

পিরিচে রাখা অল্প পরিমাণ পানির মধ্যে আধুলিটি থাকায় এবং দিয়াশলাইয়ে আগুন দিয়ে তারপর কাচের গ্লাসটি ঢেকে রাখার কারণে দিয়াশলাইটি পুড়ে যাবে। দিয়াশলাইয়ের আগুন জ্বলার কারণে গ্লাসের মধ্যে থাকা বাতাসের অক্সিজেন শূন্যতা সৃষ্টি হবে। এ শূন্যতাই পানিকে কিছুটা উপরে উঠিয়ে নেবে। সঙ্গে সঙ্গে গ্লাসের দেয়ালে লেগে যাবে বিন্দু বিন্দু বাষ্প।

বাষ্প ও গ্লাসের দেয়াল মিলে এখানে বিবর্ধক কাচের মতো কাজ করে বাষ্পের গায়ে বড় আকারে আধুলিটির প্রতিবিম্ব ফুটিয়ে তুলেছে। আর উপরে উঠা পানিটুকুর কারণে গ্লাসের দেয়ালের মধ্য দিয়ে আধুলিকে দেখা যাচ্ছে আরও বড় আকারে।

লেখক পরিচিতি: শিশু-কিশোরদের মাঝে বিজ্ঞানকে জনপ্রিয় করার কাজে নিবেদিত শেখ আনোয়ার। শিশুদের জন্য বিজ্ঞান নিয়ে লেখালেখি করছেন প্রায় দেড় যুগ। অগ্রণী ব্যাংক-বাংলাদেশ শিশু একাডেমি পুরস্কারপ্রাপ্ত লেখক শেখ আনোয়ারের প্রকাশিত বইয়ের সংখ্যা ৫২।

কিডস পাতায় বড়দের সঙ্গে শিশু-কিশোররাও লিখতে পারো। নিজের লেখা ছড়া-কবিতা, ছোটগল্প, ভ্রমণকাহিনী, মজার অভিজ্ঞতা, আঁকা ছবি, সম্প্রতি পড়া কোনো বই, বিজ্ঞান, চলচ্চিত্র, খেলাধুলা ও নিজ স্কুল-কলেজের সাংস্কৃতিক খবর যতো ইচ্ছে পাঠাও। ঠিকানা kidz@bdnews24.com । সঙ্গে নিজের নাম-ঠিকানা ও ছবি দিতে ভুলো না!

ট্যাগ:  ফ্যান্টাস্টিক সায়েন্টিস্ট