কোভিড-১৯: মানুষ বাঁচলে এবার প্রজাপতি হবে

  • মাসুম আওয়াল, বিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম
    Published: 2020-05-11 12:13:40 BdST

bdnews24
অলঙ্করণ: সোহাগ পারভেজ

ই‌চ্ছে

 

যদি, একটা ছড়া ছড়িয়ে যেতো

এই করোনার মতো

আর করোনা ছড়ার কাছে

করতো মাথা নতো

কী যে ভালো হতো তখন

কী যে ভালো হতো।

 

যদি, একটা দারুণ গানের কলি

ঢুকতো সবার মাঝে

গুনগুনিয়ে গেয়ে মানুষ

থাকতো না আর বাজে

থাকতো সবাই সুখেই, কিন্তু

সেসব হলো না যে।

 

ফুল ফুটেছে গাছে গাছে

পাখিরা সব ওড়ে

বন্দি মানুষ অপরাধের

আগুনে আজ পোড়ে।

 

ঘরের ভেতর সবাই এখন

শুয়োপোকার সাজে

দিন চলে যায় মাস চলে যায়

হয় না ফেরা কাজে।

 

করোনারা ছড়িয়ে গেলো

দূর হবে যে কবে?

ভাবছে মানুষ বাঁচলে এবার

প্রজাপতি হবে।

 

বাড়াবা‌ড়ি

 

থে‌মে গে‌ছে গা‌ড়ি ‌সব বাড়াবা‌ড়ি

থাম‌ছে না তবু চুল আর দা‌ড়ি

ঘ‌র দোর এঁ‌টে থাক‌লেও ব‌সে

‌চুল দা‌ড়ি বা‌ড়ে নিজ গু‌ণ-‌দো‌ষে।

 

আয়নার কা‌ছে যে‌তে ভয় ক‌রে ‌

কার মাথা এলো এই ক‌চি ধ‌ড়ে

‌কেউ কেউ মাথা ক‌রে নি‌য়ে টাক

ফ‌টো তু‌লে দে‌খে হয় হ‌তোবাক

 

স্ত্রী ছেঁ‌টে দি‌লো কা‌রো কা‌রো চুল ‌

লকে থে‌কে লো‌কে হ‌চ্ছে আবুল ‌

কেউ নি‌জে নি‌জে চেষ্টাও ক‌রে

হ‌তে ফিটফাট আর ঝরঝ‌রে।

 

টা‌কের শহ‌রে কার সা‌থে মি‌শি

আমি সব ছে‌ড়ে ভাবসা‌বে ঋষি

লক থে‌কে থে‌কে পু‌রো পু‌রি শক

শুধু ফোন এলে শুরু বক বক।

 

চুল দা‌ড়ি ছে‌ড়ে দাদু দাদু ভাব

আস‌লে না‌পিত ভায়ার অভাব।

 

খোকার ঈদের বা‌জেট

 

লাগ‌বে না মা

লাগ‌বে না মা এবার ঈদে নতুন জামা

অ‌নেক জামা আছে ঘ‌রে

আবার কেনা যা‌বে প‌রে!

 

জু‌তোর তা‌কে হা‌তের কা‌ছে

জোড়ায় জোড়ায় জু‌তোও আছে

এতো কিছুর ভি‌ড়ে আমি

চাই না নতুন কিছু দা‌মি।

 

পথ‌শিশুর দি‌কে তাকাও

আমার ঈদের বা‌জেটটা দাও

ওরাও বাঁচুক খে‌য়ে প‌রে

খায়‌নি হয় তো ক'‌দিন ধ‌রে।

 

ওদের কো‌নো ঘর বা‌ড়ি নাই

বাইরে থা‌কে বাইরে ঘুমায়

মা গো তোমার কাছাকা‌ছি

আমি তো বেশ ঘ‌রে আছি।

 

ওরা কিছু খাবার পে‌লে

খু‌শি‌তে দেয় দু'হাত মে‌লে

জা‌নো কি মা? ওদের কা‌ছে

আ‌মার খু‌শি লু‌কি‌য়ে আছে।

 

লেখক পরিচিতি: মাসুম আওয়াল, জন্ম ১৯৮৬, ২৫ এপ্রিল। পেশা সাংবাদিকতা। প্রকাশিত বই ‘সবুজ ফড়িং হলুদ ফড়িং’ (কিশোর কবিতা, ২০০৯) ‘ছুটছে মজার ছড়ার গাড়ি’  ছড়া, ২০১০), ‘জটা কবিরাজ ও ভূতুড়ে বটগাছ’ (কিশোর গল্প, ২০১৩) ‘ভূততাড়ুয়া’ (ছড়া, ২০১৩), ‌‘আমিও ফড়িং তুমিও ফড়িং’ (ছড়া, ২০১৮), ‘‌‌টইটই হইচই’ (ছড়া, ২০১৯), ‘‌আশেকীন স্যারের ক্লাসে মিষ্টি একটা পরি’ (শিশুতোষ গল্প ২০১৯)।  সম্পাদনা- ছড়ার ছোটকাগজ ‘ছড়াকার’।

 

এই লেখকের আরও লেখা

রূপকথার মা

মায়ের কথা পড়লো মনে 

মধ্যরাতে রবীন্দ্রনাথ ও অন্যান্য ছড়া

খোকা-খুকুর স্বরবর্ণের ছড়া

কিডস পাতায় বড়দের সঙ্গে শিশু-কিশোররাও লিখতে পারো। নিজের লেখা ছড়া-কবিতা, ছোটগল্প, ভ্রমণকাহিনী, মজার অভিজ্ঞতা, আঁকা ছবি,সম্প্রতি পড়া কোনো বই, বিজ্ঞান, চলচ্চিত্র, খেলাধুলা ও নিজ স্কুল-কলেজের সাংস্কৃতিক খবর যতো ইচ্ছে পাঠাও। ঠিকানা  kidz@bdnews24.com। সঙ্গে নিজের নাম-ঠিকানা ও ছবি দিতে ভুলো না!

ট্যাগ:  ছড়ায় বর্ণমালায়