লকডাউন

  • সুমন বনিক, বিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম
    Published: 2021-04-19 10:26:50 BdST

bdnews24

সকালবেলার কাঁচা রোদ জানালার গ্রিল গলে শাওনের চোখে-মুখে চুমু খাচ্ছে। শাওনের ঘুম ভেঙে যায়।

চেয়ে দেখে ব্যালকনিতে দুটি চড়ুই কিচির-মিচির করছে। শাওন শুয়ে শুয়ে তাকিয়ে থাকে অনেকক্ষণ। খুব মজা পায়। মনে মনে হাসে।

হঠাৎ ওর টিয়ে পাখিটার কথা মনে পড়ে। বিছানা ছেড়ে ওঠে। ব্যালকনিতে এসে টিয়ে পাখিটার কাছে এসে বসে। পাখিটা খাঁচার ভেতর ঘোরাঘুরি করছে। শাওন খাঁচার সামনে মুখ এনে কথা বলে, শি শি শব্দ করে। পাখিটাও শিস্ দেয়, খাঁচার ভেতর লাফালাফি করে। শাওন দেখে আর হাসে।

ইদানিং শাওন সারাদিন ঘরে থাকে, মন খারাপ লাগলে পাখিটার সঙ্গে কথা বলে- ইশারা করে। মজা পায়। বাইরে গিয়ে খেলার কথা বললে, মা বারণ করেন, ঘর থেকে বেরুতে দেন না। মাকে না জানিয়ে আজ বন্ধুদের সঙ্গে ঘুড়ি ওড়ানোর প্লান করে।

শাওনের অমন প্লান মা বুঝে ফেললেন। খাটের নিচে লাল রঙের ঘুড়িটি দেখে, মা শাওনকে ডাকলেন। তুমি এবার ক্লাস ফাইভে উঠবে, তোমার অনলাইন ক্লাস আর তুমি ঘুড়ি ওড়াতে যাবে এই করোনাকালে!

মায়ের কথা শুনে শাওনের থতমত অবস্থা, মাথা নিচু করে দাঁড়িয়ে থাকল। আমি কি খেলতেও যেতে পারবো না,  শুধু ঘরের ভেতর থাকবো? শাওনের ভেজা গলার কথা শুনে মা চেঁচিয়ে উঠলেন। খেলবে করোনাভাইরাস চলে গেলে, স্কুল খুললে খেলবে। অপাতত বাসাতে  থাকো।

মার কথা শুনে শাওন কিছু না বলে চোখ মুছতে মুছতে ওর ঘরে চলে গেলো। বালিশে মুখ গুঁজে ফুঁপিয়ে ফুঁপিয়ে কাঁদল। কিছুক্ষণ পর ব্যালকনিতে এসে টিয়ে পাখিটার সামনে বসল। খাঁচায় থাকতে তোমার অনেক কষ্ট, তাই না? পাখিরা ঘুরে বেড়ায়, ডানামেলে উড়ে। আর আমি তোমাকে খাঁচায় বেঁধে রেখেছি!

শাওনের ফিসফিস কথা শুনে টিয়ে পাখিটা ডানা ঝাপটায়, শব্দ করে খাঁচার ভেতর ঘুরতে থাকে। শাওন খাঁচার দরজাটা খুলে দেয়। টিয়ে পাখিটা এক-পা দু-পা এগিয়ে এসে উড়াল দিলো।

মা এসে দেখেন খাঁচার দরজা খোলা। শাওন বসে আছে পাশে। মা উঁচুস্বরে বলেন, পাখিটা ছেড়ে দিলে কেনো? শাওন কথা বলে না। একটু পর নিচুগলায় বলে, কাউকে আটকিয়ে রাখা ঠিক না। খাঁচার ভেতর ওর কষ্ট হয় মা।

শাওনের কথা শুনে মা চুপচাপ কিছুক্ষণ দাঁড়িয়ে থাকেন। শাওনের মাথায় হাত বুলিয়ে চলে গেলেন।

কিডস পাতায় বড়দের সঙ্গে শিশু-কিশোররাও লিখতে পারো। নিজের লেখা ছড়া-কবিতা, ছোটগল্প, ভ্রমণকাহিনি, মজার অভিজ্ঞতা, আঁকা ছবি, সম্প্রতি পড়া কোনো বই, বিজ্ঞান, চলচ্চিত্র, খেলাধুলা ও নিজ স্কুল-কলেজের সাংস্কৃতিক খবর যতো ইচ্ছে পাঠাও। ঠিকানা kidz@bdnews24.com। সঙ্গে নিজের নাম-ঠিকানা ও ছবি দিতে ভুলো না!

ট্যাগ:  নিজে করি