পছন্দের খবর জেনে নিন সঙ্গে সঙ্গে

হারানো লকেট

  • রানাকুমার সিংহ,  বিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম
    Published: 2021-11-19 12:50:17 BdST

bdnews24

অনেক আগে এক লোক ও তার স্ত্রী সুখে বসবাস করত।

তাদের একটি সোনার লকেট ছিল। সেটি  একটি সৌভাগ্যময় লকেট। এ লকেটটির মালিক কখনও অভাবগ্রস্ত হতো না।

কিন্তু তারা সেটা জানত না, তাই অল্প টাকায় লকেটটি বিক্রি করে দেয়। লকেটটি বিক্রি করার সঙ্গে সঙ্গে তারা দরিদ্র হতে শুরু করল এবং শেষ পর্যন্ত তারা অনাহারে দিন কাটাতে লাগল।

তাদের পোষা একটি কুকুর ও একটি বেড়াল ছিল। পোষা প্রাণী দুটিও তাদের সঙ্গে ক্ষুধার্ত থাকতে শুরু করল। দুটি প্রাণী একসঙ্গে পরামর্শ করল যে, কীভাবে তারা তাদের মালিকদের পূর্বের সৌভাগ্য ফিরিয়ে দিতে পারে।

কুকুরটি লকেটটি সম্পর্কে জানত। বেড়ালটিকে লকেট বিষয়ে সমস্ত কিছু জানাল সে।

তাদের অবশ্যই আবার লকেটটি ফেরত দিতে হবে— কুকুর, বেড়ালটিকে বলল।

বেড়াল খবর নিয়ে দেখল লকেটটি নতুন মালিকের গলায় ঝুলিয়ে রাখা হয়েছে, যেন কেউ এটি পেতে না পারে।

কুকুরটি বলল—  তোমাকে অবশ্যই একটি ইঁদুর ধরতে হবে এবং ইঁদুরটিকে নতুন মালিকের বুক থেকে লকেটটি বের করতে হবে। যদি সে না চায়, তাহলে এটা বলবে যে তুমি তাকে কামড়ে মেরে ফেলবে এবং তাকে নজরদারিতে রাখবে।

এ পরামর্শে বেড়াল খুশি হলো এবং সে একটি ইঁদুর ধরল। ইঁদুরটিকে নিয়ে লকেট উদ্ধারে যাত্রা শুরু করল তারা।

পথে একটি প্রশস্ত নদী তাদের সামনে পড়ল। বেড়াল সাঁতার কাটতে পারত না, তাই কুকুরটি তাকে তার পিঠে নিয়ে তার সঙ্গে সাঁতার কেটে নদী পার হলো।

তারপর বেড়াল ইঁদুরটিকে নতুন মালিকের বাড়িতে নিয়ে গেল। ইঁদুর এক নিমিষেই লকেট নিয়ে এল। বেড়াল তার মুখে লকেটটি রাখল এবং নদীতে ফিরে গেল যেখানে কুকুর তার জন্য অপেক্ষা করছে।

কুকুরটি আগের মতই সাঁতার কাটল। তারপর তারা একসঙ্গে বাড়ির উদ্দেশ্যে যাত্রা শুরু করল। কিন্তু কুকুর তো শুধু মাটি বরাবর দৌড়াতে পারে, পথে যখন একটি বাড়ি পড়ত তখন তাকে সেই বাড়ি পাশ কেটে যেতে হতো। এদিকে বেড়াল দ্রুত ছাদের উপর দিয়ে লাফাতে পারার কারণে কুকুরের অনেক আগেই বাড়িতে পৌঁছে গেল এবং লকেটটি তার মালিকের কাছে ফেরত দিলো।

ওদের মালিক খুশি হয়ে তার স্ত্রীকে বললেন—  বেড়ালটা কত ভালো প্রাণী! আমরা সবসময় তাকে পর্যাপ্ত খাবার দেবো এবং আমাদের নিজের সন্তানের মতো তার যত্ন নেবো।

ওদিকে কুকুর বাড়িতে এলে তারা তাকে মারধর শুরু করে। বকাঝকা করে, কারণ সে নাকি লকেট ঘরে  আনতে সাহায্য করেনি। বেড়ালটি শুধু দেখে গেলো, একটি শব্দও বলল না। এ ঘটনায় কুকুরটি বেড়ালের উপর রেগে গেল। বেড়ালকে দেখলেই কুকুরটি তাড়া করতে শুরু করে।

আর সেই দিন থেকেই বেড়াল আর কুকুর শত্রু।

কিডস পাতায় বড়দের সঙ্গে শিশু-কিশোররাও লিখতে পারো। নিজের লেখা ছড়া-কবিতা, ছোটগল্প, ভ্রমণকাহিনি, মজার অভিজ্ঞতা, আঁকা ছবি, সম্প্রতি পড়া কোনো বই, বিজ্ঞান, চলচ্চিত্র, খেলাধুলা ও নিজ স্কুল-কলেজের সাংস্কৃতিক খবর যতো ইচ্ছে পাঠাও। ঠিকানা kidz@bdnews24.com। সঙ্গে নিজের নাম-ঠিকানা ও ছবি দিতে ভুলো না!