রাগলেন তো হারলেন

  • লাইফস্টাইল ডেস্ক, আইএএনএস/বিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম
    Published: 2015-10-29 16:01:56 BdST

bdnews24

তবে বিষয়টা হয়তো শুধু মাত্র নারীদের জন্যই প্রযোজ্য।

রাগের প্রকাশ, পুরুষকে অন্যের উপর কর্তৃত্ব ফলাতে সাহায্য করে। তবে নারীদের ক্ষেত্রে ব্যাপারটা হয়তো বিপরীত।

গবেষণা বলছে, তর্কের সময় রেগে গেলে নারী তার কর্তৃত্ব হারায়।

রাগ প্রকাশের মাধ্যমে কারও উপর আধিপত্য বিস্তারের ক্ষেত্রে লিঙ্গভেদে স্পষ্ট পার্থক্য দেখা গেছে এই গবেষণায়।  

গবেষণার সহ-লেখক, যুক্তরাষ্ট্রের অ্যারিজোনা স্টেট ইউনিভার্সিটির জেসিকা সালেরনো বলেন, “দৈনন্দিন জীবনে বা কর্মক্ষেত্রে নিজের মতামতকে প্রতিষ্ঠিত করার চেষ্টা এমন নারীদের জন্য আমাদের গবেষণার ফলাফল গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করবে।”

গবেষণার জন্য দলবদ্ধ আলোচনায় রাগ প্রকাশের প্রভাব পর্যবেক্ষণ করেন গবেষকরা।

সালেরনো বলেন, “আমরা দেখেছি, একজন পুরুষ যখন রাগান্বীতভাবে তার মতামত প্রকাশ করেন, তখন অন্যরা সেই মতামতকে বেশি গুরুত্ব দেন।”

“তবে নারীরা যখন কোনো তর্কের মাঝে রাগ প্রকাশ করেন, তখন তাদেরকে আবেগতাড়িত হিসেবে বিবেচনা করা হয়।” বলেন সালেরনো।

গবেষণায় ২১০ জন স্নাতক শিক্ষার্থীকে ১৭ মিনিটের একটি প্রদর্শনী দেখানো হয়। একজন স্বামী তার স্ত্রীকে হত্যা করার চেষ্টার বাস্তব ঘটনার সাক্ষ্যপ্রমাণ নিয়ে তৈরি করা হয়েছিল এই প্রদর্শনী।   

স্বামী দোষী না নির্দোষ এ বিষয়ে প্রাথমিক ভোট নিয়ে অংশগ্রহণকারীরা আলোচনা শুরু করেন।

আলোচনা চলাকালে প্রত্যেক অংশগ্রহণকারী নিজেদের প্রাথমিক মতামতের ভিত্তি বর্ণণা করেন।

গবেষকরা বলেন, “পুরুষরা ক্রোধ প্রকাশ করার পর অন্যান্য অংশগ্রহণকারীদের নিজেদের মতামতের উপর থেকে আত্নবিশ্বাস কমে যেতে দেখা গেছে।”

গবেষণায় আরও দেখা যায়, “নারী অংশগ্রহণকারীরা রাগ প্রকাশ করলে অন্যান্য অংশগ্রহণকারীদের প্রাথমিক মতামতের উপর আত্নবিশ্বাস আরও বেড়ে যেতে দেখা গেছে। যদিও পুরুষরা যে মতামত প্রতিষ্ঠিত করার চেষ্টা করছিলেন এবং যেভাবে তা করছিলেন নারীরাও সেটাই করতে চাইছিলেন।”

ল’ অ্যান্ড হিউম্যান বিহেইভিয়ার নামক জার্নালে এই গবেষণা প্রকাশিত হয়।

ছবি: রয়টার্স।