পছন্দের খবর জেনে নিন সঙ্গে সঙ্গে

শীতের কাপড়ের যত্ন

  • তৃপ্তি গমেজ, বিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম
    Published: 2016-01-05 14:56:34 BdST

bdnews24

উল, পশম, ফ্লানেল ইত্যাদির পোশাকে খুব সহজে পোকা ধরতে পারে। তাই দরকার সঠিক সময়ে সঠিক পরিচর্যা।

বাংলাদেশ গার্হস্থ্য অর্থনীতি কলেজের বস্ত্র পরিচ্ছদ ও বয়নশিল্প বিভাগের সহকারী অধ্যাপক শাহ্‌মিনা রহমান বলেন, “শীতের কাপড়ের সঠিক যত্ন নিলে তা দীর্ঘদিন উজ্জ্বল ও টেকসই হয়ে থাকে।”

শীতকালে ঘাম কম হয় তাই কাপড় খুব একটা ধোয়ার প্রয়োজন হয় না। তাছাড়া এই সময় সূর্যের তাপ কম থাকায় কাপড় সহজে শুকায় না। তাই শীতের পোশাক পরার পরে তা কিছুক্ষণের জন্য বাতাসে মেলে দেওয়া ভালো।

গরম কাপড়ের মধ্যে সাধারণত উল, পশম, ফ্লানেল ইত্যাদির পোশাক তৈরি হয়ে থাকে। এইসব উপাদানের পোশাক খুব সহজে পোকায় ধরতে পারে। তাই অব্যবহৃত বা কম ব্যবহৃত পোশাক রোদে শুকিয়ে নিশাদল বা অ্যামোনিয়াম ক্লোরাইড বা ন্যাপথলিনের সাহায্যে সংরক্ষণ করা যায়।

উলের পোশাকের ক্ষেত্রে একটু বাড়তি যত্নের প্রয়োজন হয়। এই কাপড়ের পোশাকে ধুলা, ময়লা লাগে বেশি। তাই ব্যবহারের পর ভালো মতো ঝেরে রাখতে হবে। উলের কাপড় ধোয়ার পর তা না ঝুলিয়ে সমতল স্থানে শুকাতে দিতে হবে। তানা হলে এর আকৃতি নষ্ট হয়ে যাওয়ার সম্ভবনা থাকে।

এছাড়াও উলের কাপড় ধোয়ার ক্ষেত্রে ডিটারজেন্ট ব্যবহার না করে শ্যাম্পু ব্যবহার করার পরামর্শ দেন শাহ্‌মিনা রহমান।

রেশম, পশম, ফ্লানেল ইত্যাদি কাপড়ও শ্যাম্পু দিয়ে ধুলে উজ্জ্বলতা আটুট থাকে।

রেশম ও পশমের কাপড়ে ঘামের দাগ লাগলে তা ঠাণ্ডা পানি দিয়ে ধুয়ে ফেললেই হয়। পুরানো ঘামের দাগ ও রঙিন কাপড়ের দাগ উঠাতে অ্যামোনিয়া হাইড্রোজেন পার অক্সাইড এবং সোডিয়াম হাইপো সালফাইডের দ্রবণে পরপর ভিজিয়ে শুকাতে হবে। অথবা বোরাক্স পাউডার প্রয়োগ করে রোদে শুকাতে হবে।

ছবি সৌজন্যে: কে ক্র্যাফট।