পছন্দের খবর জেনে নিন সঙ্গে সঙ্গে

মেদ কমাতে ঘুম

  • লাইফস্টাইল ডেস্ক,, বিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম
    Published: 2016-07-26 17:20:57 BdST

bdnews24

ওজন কমানোর জন্য নানা রকম খাদ্যাভ্যাস মেনে চলে আর শরীরচর্চা করেও যারা ফল পাচ্ছেন না, সম্ভবত তাদের ঘাটতিটা অন্যদিকে। পরিবারের সঙ্গে সময় কাটানো, অফিসের কাজ, খাদ্যাভ্যাস, শরীরচর্চা এতকিছুর মাঝে হয়ত ঘুমের দিকে অবহেলা থেকে যাচ্ছে।

প্রশ্ন জাগতে পারে ঘুমের সঙ্গে ওজন কমানোর কী সম্পর্ক?

গবেষকদের মতে, পর্যাপ্ত ঘুম না হলে শরীরচর্চা আর খাদ্যাভ্যাস সবই বৃথা।

যুক্তরাষ্ট্রের ইউনিভার্সিটি অফ শিকাগোর গবেষকরা সাম্প্রতিক এক গবেষণায় প্রতিরাতে সাড়ে আট ঘণ্টা ঘুমানো আর সাড়ে পাঁচ ঘণ্টা ঘুমানোর সঙ্গে ওজন কমার সম্পর্ক নিয়ে গবেষণা করেন।

দেখা যায়, যাদের ঘুমের অভাব থাকে তারা ওজন কমাতে গিয়ে ছয়টি বাধার মুখোমুখি হন। এগুলো হল মিষ্টি খাবারের লোভ, অনেক খাবার খাওয়ার পরও পেট ভরা অনুভুতি না হওয়া, অতিরিক্ত খাওয়া, ঘুমের তুলনায় শরীরচর্চা কমে যাওয়া, মাংসপেশি ক্ষয়, কার্বোহাইড্রেট খরচ করার ক্ষমতা কমে যাওয়া ইত্যাদি।

এই বাধাগুলো ওজন কমানোর অন্যতম অন্তরায়। তাই পর্যাপ্ত ঘুম নিশ্চিত করা অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ। উপায় জানাচ্ছে স্বাস্থ্যবিষয়ক একটি ওয়েবসাইট।

ভালো ঘুম হওয়ার উপায়

- ঘুমানোর আগে তিন ঘণ্টা আগেই খাওয়া শেষ করা উচিত। কারণ এতে বদহজম, পেট ফুলে থাকা, বুক জ্বালাপোড়া হতে পারে যা ঘুমের ব্যাঘাত ঘটতে পারে।

- সন্ধ্যায় কফি পান এড়াতে হবে।

- ঘুমানোর আগে সকল বৈদ্যুতিক যন্ত্রপাতি এবং নীল আলো নির্গত হয় এমন যন্ত্রপাতি, যেমন: টেলিভিশন, স্মার্টফোন, কম্পিউটার ইত্যাদি থেকে দূরে থাকতে হবে। কারণ নীল আলো ঘুমে ব্যাঘাত ঘটায়। হালকা আলোর বাতি জ্বালিয়ে ঘুমানোর অভ্যাস থাকলে লাল আলোর বাতি ব্যবহার করতে পারেন।

- ঘুমানোর আগে মাথা খাটতে হয় এমন সবধরনের কাজ বন্ধ রাখতে হবে।

- প্রতিদিন একই সময়ে ঘুমাতে যাওয়ার অভ্যাস গড়ে তোলা অত্যন্ত জরুরি।

ছবি: রয়টার্স।