পছন্দের খবর জেনে নিন সঙ্গে সঙ্গে

পরিষ্কারক হিসেবে ভিনিগারের ব্যবহার

  • লাইফস্টাইল ডেস্ক,, বিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম
    Published: 2016-09-21 14:25:59 BdST

bdnews24

ঘরের আসবাবসহ অন্যান্য দ্রব্যসামগ্রীর পরিষ্কারক হিসেবে ভিনিগার বেশ কার্যকর। জীবনযাপন-বিষয়ক একটি ওয়েবসাইট থেকে জানা যায় ভিনিগারের নানামুখি ব্যবহার।

কাঠের আসবাব থেকে বাসি গন্ধ দূর করতে: এক কাপের এক চতুর্থাংশ পরিমাণ ভিনিগার ও এক কাপ পানি একটি স্প্রে বোতলে নিয়ে তা কাঠের আসবাবের উপর স্প্রে করতে হবে। পাঁচ মিনিট অপেক্ষা করে শুকনো কাপড় দিয়ে তা মুছে ফেলতে হবে।

কাচ পরিষ্কার করতে: একটি স্প্রের বোতলে অর্ধেক পানি ও অর্ধেক ভিনিগার মিশিয়ে তা দিয়ে কাচের দরজা, জানালা, আয়না এমনকি বৈদ্যুতিক সরঞ্জামের বাইরের অংশ পরিষ্কার করা যায়।

কি-বোর্ড পরিষ্কার করতে: ভিনিগার ব্যবহার করে কি-বোর্ড পুনরায় নতুনের মতো করে তোলা যায়। একটি শুকনা কাপড় অথবা তুলার বল ভিনিগারে ভিজিয়ে তা দিয়ে কি-বোর্ডের চারপাশ এবং এর বাটনগুলোর মাঝখান যেখানে ধুলাবালি জমে থাকে তা পরিষ্কার করা যায়।

জুতা পরিষ্কার করতে: এক কাপ পানি ও এক কাপের তিন ভাগের এক ভাগ ভিনিগার নিয়ে তার মধ্যে একটি কাপড় ভেজাতে হবে। ওই কাপড়টি চিপে নিয়ে তা দিয়ে চামড়ার তৈরি জুতা ও জুতার সোল পরিষ্কার করা যায়।

বাথরুমের ঝরনা পরিষ্কার করতে: একটি কাপড় অথবা তুলোর বল ভিনিগারে ভিজিয়ে তা বাথরুমের ঝরনার মুখে ১০ থেকে ২০ মিনিট আটকে রাখুন। এতে ঝরনার মুখে জমে থাকা ময়লা পরিষ্কার হয়ে যাবে।

টুথব্রাশ জীবাণুমুক্ত করতে: একটি বাটিতে ভিনিগার নিয়ে তার মধ্যে ৩০ মিনিট টুথব্রাশ ভিজিয়ে রাখতে হবে। এরপর গরম পানি দিয়ে তা ধুয়ে ফেলতে হবে।

পোকামাকড় থেকে রক্ষা পেতে: সমপরিমাণ ভিনিগার ও পানি মিশিয়ে তা দিয়ে ঘর ও ঘরের আসবাবপত্র মুছলে পোকামাকড়ের উপদ্রব থেকে মুক্তি পাওয়া যায়।

প্লাস্টিক পরিষ্কার করতে: প্লাস্টিকের দাগ ও গন্ধ দূর করতে ভিনেগার সহায়তা করে। ভিনিগার দিয়ে প্লাস্টিকের সামগ্রী ঘষে পরে তা গরম পানি দিয়ে ধুয়ে ফেলতে হবে।

বাথরুম পরিস্কার করতে: বাথরুমের দাগ ও দুর্গন্ধ দূর করার জন্য দুই কাপ ভিনিগার ড্রেইনে ঢেলে পাঁচ ঘণ্টা অপেক্ষা করতে হবে।

ম্যাট্রেস পরিষ্কার করতে: ম্যাট্রেস থেকে দুর্গন্ধ দূর করতে ও নতুনত্ব ফিরিয়ে আনতে এক কাপ ভিনিগার, এক টেবিল-চামচ ‘রাবিং অ্যালকোহল’ এবং এক টেবিল-চামচ ‘টি ট্রি’ তেল মিশিয়ে তা স্প্রে করতে হবে।