লবণ কম গ্রহণে হৃদযন্ত্রে ঝুঁকি

  • লাইফস্টাইল ডেস্ক,, আইএএনএস/বিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম
    Published: 2017-03-07 17:59:42 BdST

bdnews24

লবণ বেশি খেলে যেমন সমস্যা তেমনি কম খেলেও হৃদযন্ত্রের কার্যক্রমে বিরূপ প্রভাব ফেলতে পারে।

ওয়ার্ল্ড হেল্থ অর্গানাইজেশনের নির্দেশিকা অনুযায়ী, প্রতিদিন একজন প্রাপ্ত বয়ষ্কের পাঁচ গ্রামের কম লবণ গ্রহণ করা উচিত।

যদিও, কানাডার গবেষকরা তাদের এক গবেষণার ফলাফল থেকে জোর দিয়ে বলছেন, নির্দেশাবলীতে দেওয়া এই লবণ গ্রহণের মাত্রা বাড়াতে হবে। অথচ প্রচলিত ধারণা হচ্ছে বেশি লবণ গ্রহণ করলে স্বাস্থ্যঝুঁকির সম্ভাবনা থাকে।  

কানাডার ‘ম্যাকমাস্টার ইউনিভার্সিটি’র অধ্যাপক সালিম ইউসুফ ‘এক্সপ্রেস ডটকো. ডটইউকে’র এক সাক্ষাৎকারে বলেন, “গবেষণায় আমরা দেখেছি প্রতিদিন তিন গ্রামের কম সোডিয়াম গ্রহণ করলে মৃত্যু, হার্ট অ্যাটক ও হৃদযন্ত্র কার্যক্রমে থেমে যেতে পারে।”

তিনি আরও বলেন, “বেশি মাত্রায় লবণ কম গ্রহণ করলে শরীরের স্বাভাবিক ভারসাম্যের ব্যাঘাত ঘটতে থাকে।”

‘ওয়ার্ল্ড হার্ট ফেডারেশন’, ‘দি ইউরোপিয়ান সোসাইটি অফ হাইপারটেনশন’ এবং ‘ইউরোপিয়ান পাবলিক অ্যাসোসিয়েশন’য়ের মিলিত এই গবেষণার বিস্তারিত ফলাফল ‘ইউরোপিয়ান হার্ট জার্নালে’ প্রকাশিত হয়। যেখানে অতিরিক্ত কম লবণ গ্রহণের ফলে সম্ভাব্য বিপদ সম্পর্কে জোর দিয়ে উল্লেখ করা হয়।

প্রতিবেদনে জানানো হয়, “নির্দিষ্ট সময় ধরে প্রতিদিন ২.৩ গ্রামের কম সোডিয়াম গ্রহণের মাত্রা ধরে রাখা যুক্তিসঙ্গত নয়। কোনো প্রমাণ নেই এটা লাভজনক বরং এটা হতে পারে ক্ষতিকর।”

লবণ গ্রহণের পরিমাণ সম্পর্কে বিস্তারিত জানাতে গিয়ে ইউসুফ বলেন, “প্রতিদিন একজন প্রাপ্ত বয়ষ্কের ৭.৫ গ্রাম থেকে ১২.৫ গ্রামের মতো লবণ গ্রহণ করা উচিত। যা তিন এবং পাঁচ গ্রাম সোডিয়ামের সমমান।

ছবি: রয়টার্স।