পছন্দের খবর জেনে নিন সঙ্গে সঙ্গে

মুখ জীবাণু মুক্ত রাখতে

  • লাইফস্টাইল ডেস্ক,, বিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম
    Published: 2017-05-25 15:57:55 BdST

bdnews24

শারীরিক সুস্থতার জন্য মুখের ভেতর জীবাণু মুক্ত রাখা দরকার। দুর্গন্ধ এবং মুখের ভেতরে তৈরি হওয়া দূষিত পদার্থ দূর করতে রয়েছে ঘরোয়া।

স্বাস্থ্যবিষয়ক একটি ওয়েবসাইটে এমনই কিছু উপায় উল্লেখ করা হয়।

নারিকেল তেল: এক চামচ বিশুদ্ধ নারিকেল তেল মুখে নিয়ে ভালোভাবে সবদিকে ছড়িয়ে নিন। এরপর ২০ মিনিট অপেক্ষা করুন। নারিকেল তেল মুখে তৈরি হওয়া ব্যাক্টেরিয়া এবং দূষিত পদার্থ দূর করার পাশাপাশি দাঁতের লালচে দাগও হালকা করতে সাহায্য করে।

প্রথমে আধা চা-চামচ তেল নিয়ে পাঁচ থেকে দশ মিনিট পর আরও আধা চা-চামচ তেল নিতে পারেন। সব শেষে কুসুম গরম পানি দিয়ে কুলিকুচি করে ফেলুন।

জিহ্বা পরিষ্কার করা: জিহ্বার উপরে ময়লার স্তর জমে। যা মূলত খাবারের অংশ এবং মৃত কোষ। নিয়মিত পরিষ্কার করা না হলে সেখানে ব্যাক্টেরিয়ার সংক্রমণ হতে থাকে। তাই এই ময়লার স্তর পরিষ্কার করতে হবে। বিভিন্ন ধরনের অনুষঙ্গ পাওয়া যায় জিহ্বা পরিষ্কারের জন্য, যা নিয়মিত ব্যবহার করা উচিত।

মাড়ি মালিশ: টি ট্রি অয়েলের অ্যান্টিব্যাক্টেরিয়াল উপাদান ব্যাক্টেরিয়ার সংক্রমণ রোধ করতে সাহায্য করে এবং এর অ্যান্টিঅক্সিডেন্ট মাড়ি সুস্থ রাখে। নিমের তেল মাড়ির বিভিন্ন রোগ এবং রক্তক্ষরণ প্রতিরোধে সাহায্য করে। পরিষ্কার আঙুলে কয়েক ফোঁটা নিম তেল বা টি ট্রি অয়েল নিয়ে মাড়িতে কয়েক মিনিট ঘষে নিন। রাতে ঘুমানোর আগে এটি ব্যবহার করতে পারেন। অথবা অন্য সময় লাগিয়ে একদু ঘণ্টা অপেক্ষা করে কুলিকুচি করে ফেলুন।।

ঘরোয়া মাউথ ওয়াশ: পুদিনা ব্যাক্টেরিয়া দূর ও সংক্রমণ রোধ করে। লবঙ্গ এবং পার্সলে মুখের দুর্গন্ধ দূর করতে সাহায্য করে।

ঘরোয়া মাউথওয়াশটি তৈরি করতে লাগবে দুতিনটি লবঙ্গ, এক মুঠ পুদিনা-পাতা এবং কয়েকটি পার্সলে-পাতা। সবগুলো উপাদান দুকাপ পানিতে নিয়ে ভালোভাবে ফুটিয়ে ছেঁকে আলাদা করে নিন। প্রতিদিন দুবার এই মিশ্রণ দিয়ে কুলিকুচি করুন।

ছবি: প্রামানিক।