পছন্দের খবর জেনে নিন সঙ্গে সঙ্গে

কতবার চুল ধোয়া উচিত?

  • লাইফস্টাইল ডেস্ক,, বিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম
    Published: 2017-08-22 17:43:32 BdST

bdnews24

সপ্তাহে অন্তত দুবার চুল ধুতে হবে- এরকম পরামর্শ যেমন শোনা যায়, তেমনি সবসময় শ্যাম্পু ব্যবহার করলে চুল হয়ে যাবে পাতলা- এই মতবাদও রয়েছে। চুল পরিষ্কারের ক্ষেত্রে বিভ্রান্তি কাটানোর পন্থাগুলো জেনে নিন।

চুল পরিষ্কার করার জন্য শ্যাম্পু প্রয়োজন, আবার নিয়মিত শ্যাম্পু ব্যবহার হতে পারে চুলের ক্ষতির কারণ। তাই শ্যাম্পু করার সময় ও ধরন সম্পর্কে ধারণা থাকা প্রয়োজন।

রূপচর্চাবিষয়ক ওয়েবসাইটে এই বিষয়ের উপর প্রকাশিত একটি প্রতিবেদন অবলম্বনে চুল ধোয়ার ক্ষেত্রে লক্ষণীয় বিষয়গুলো এখানে দেওয়া হল।

জীবনযাপনের ধরন: তিনদিন পরপর মাথায় শ্যাম্পু করা তাদের জন্য উপযুক্ত যারা তুলনামূলক বাইরে কম যান এবং স্বাস্থ্যকর জীবনযাপন করেন।

তবে যাদের প্রতিদিন সকালে বাইরে যেতে হয়, তাদের চুল অনেক বেশি ঘামে ও তেল চিটচিটে হয়ে যায়। ফলে তাদের উচিত চুলের অবস্থা বুঝে শ্যাম্পু করা।

বয়সের সঙ্গে সঙ্গে চুলে শুষ্কভাব আসে। তাই সবারই শ্যাম্পুর পরে চুলে কন্ডিশনার ব্যবহার করা উচিত।  

তৈলাক্ত মাথার ত্বক: স্বাভাবিকভাবেই মাথার ত্বক থেকে তেল বের হয়। আমরা অন্যান্য তেল ব্যবহার করি যা প্রাকৃতিকভাবে উৎপাদিত তেলকে অপসারণ করে।

প্রকৃত অর্থে, মাথার ত্বকে প্রাকৃতিকভাবে উৎপাদিত তেলই চুলের জন্য সবচেয়ে বেশি উপকারী। কারণ এটা জৈবিকভাবেই তৈরি। তাই মাথার এমন কোনো প্রসাধনী ব্যবহার করা উচিত যা খুব সাবধানতার সঙ্গে মাথার ত্বকের প্রাকৃতিক তেলকে অপসারণ করে। 

সালফেট থেকে দূরে থাকুন: শ্যাম্পু ও কন্ডিশনারে সালফেট থাকা খুবই সাধারণ বিষয়। এটা মাথার খুলি ও চুল থেকে ময়লাকে দূর করার পাশাপাশি মাথার ত্বকে প্রাকৃতিকভাবে উৎপাদিত তেলও অপসারণ করে। ফলে সারাদিন ঘাম ও তেলেভাবের সৃষ্টি হয়।

তাই নিয়মিত উন্নতমানের সালফেট বিহীন শ্যাম্পু ও কন্ডিশনার ব্যবহার করা উচিত।

কৃত্রিমভাবে চুল ধোয়া: শ্যাম্পু ব্যবহার না করেও চুল পরিষ্কার করা যায়। কেবল মাথার ত্বকে পানি দিয়ে আঙ্গুলের সাহায্যে ঘষে মাথার ত্বকের ঘাম ও অতিরিক্ত তেল অপসারণের মাধ্যমে  চুল পরিষ্কার করতে পারেন। চাইলে এই ক্ষেত্রে কন্ডিশনারও ব্যবহার করা যায়। তবে মনে রাখবেন এটা কেবল চুলের মাঝখান থেকে নিচ বরাবর ব্যবহার করবেন।  

ছবি: রয়টার্স।