পছন্দের খবর জেনে নিন সঙ্গে সঙ্গে

সঙ্গীকে বলার আগে সাবধান

  • লাইফস্টাইল ডেস্ক,, বিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম
    Published: 2018-01-15 18:00:53 BdST

bdnews24

‘কথায় জয় কথায় ক্ষয়’ প্রবাদটা সত্যতা প্রমাণে কোনো সন্দেহ নেই। কথার মাধ্যমে আপনি যেমন অন্যের মন ভালো করে দিতে পারেন একইভাবে সম্পর্ক নষ্টও করে দিতে পারেন।

সম্পর্কবিষয়ক ওয়েবসাইটে প্রকাশিত প্রতিবেদন অবলম্বনে কয়েকটি অপ্রিয় বাক্যের নমুনা এখানে দেওয়া হল, যা বললে সম্পর্ক শেষও হয়ে যেতে পারে।

সুতরাং সঙ্গীর প্রতি শব্দ উচ্চারণে সংযত থাকুন।

তুমি তোমার মায়ের মতো

নেতিবাচক অর্থে যদি আপনি এই কথা বলে থাকেন তাহলে বুঝতে হবে আপনি কেবল তাকে নয় বরং  তার বাবা মাকেও অপমান করছেন। এই ধরনের কথা হতে পারে সম্পর্ক ভাঙার কারণ।

কী সমস্যা তোমার?

সঙ্গীর দক্ষতার প্রতি সন্দেহ প্রকাশ করে যদি এই ধরনের বাক্য বলেন তাহলে সত্যি তা আপনার সঙ্গীর মনবল দুর্বল করে দিতে পারে।

তুমি কি অপদার্থ

সঙ্গীকে অপদার্থ বা এই ধরনের অসম্মানজনক শব্দ বলা হলে কেবল তাকে ছোট করা নয় বরং এটাও বোঝা যায় যে আপনি নিজেকে বড় বলে দাবি করছেন।

তোমাকে বিশ্বাস করা যায় না

এই ধরনের কথা উচ্চারন করার আগে মাথায় রাখবেন যে আপনি আপনাদের সম্পর্কের ভিত নাড়িয়ে দেওয়ার মতো কাজ করছেন। সুতরাং এই শব্দগুলো এড়িয়ে চলুন।

বাসা থেকে বের হয়ে যাও

‘বেড়িয়ে যাও’ বা ‘চলে যাও’ ভুলেও এই ধরনের শব্দ উচ্চারণ করা ঠিক নয়। এসব শব্দ উচ্চারণ করা আর সম্পর্ক শেষ করে দেওয়া সমান কথা।

আমি কিছুই ব্যাখ্যা করব না

অবশ্যই অন্যের কাছে কিছু ব্যাখ্যা না করতে চাওয়ার অধিকার আপনার আছে। তবে যখন একটা সম্পর্কের প্রশ্ন তখন অবশ্যই দুজনের বোঝাপড়া থাকা জরুরি। সম্পর্কে স্বচ্ছতার জন্য সঙ্গীর কাছে জবাবদিহিতা করে থাকেন বা কোনো কিছুর ব্যাখ্যা দিয়ে থাকেন তাতে দোষের কিছু নেই। 

তুমি আমাকে হিংসা কর

সঙ্গীকে এই ধরনের কথা বলার মধ্য দিয়ে প্রমাণিত হয় যে আপনি নিজের শ্রেষ্ঠত্ব প্রকাশ করতে চাইছেন। মনে রাখবেন সম্পর্কে অবশ্যই দুজনের আধিপত্যের ভারসাম্য থাকা আবশ্যক। 

তুমি আমাকে বিরক্ত করছ

সঙ্গীর সঙ্গে থেকে যদি একঘেয়ে লাগে, আর সেটা যদি এভাবে প্রকাশ করেন, তবে তাকে হেয় করা হয়। যার মানে দাঁড়ায়, তার সঙ্গে থাকতে আর ভালো লাগছে না।

আরও পড়ুন

সম্পর্কে ঠোকাঠুকি ঠেকাতে  

সম্পর্ক আরও একধাপ এগিয়ে নেওয়ার উপায়  

সম্পর্ক থেকে বিরতি নিতে করণীয়