যে কারণে রান্নার আগে মুরগি ধোয়া উচিত না

  • লাইফস্টাইল ডেস্ক,, বিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম
    Published: 2018-10-01 15:45:01 BdST

bdnews24

ময়লা ও ব্যাক্টেরিয়া দূর করতেই মাংস ধুয়ে রান্না করা হয়। তবে বিশেষজ্ঞরা মনে করেন এভাবে রান্না করা ঠিক নয়।

খাদ্য ও নিরাপত্তা বিশেষজ্ঞদের মতে এভাবে রান্না করা মাংস মানুষকে অসুস্থ করে দিতে পারে। কীভাবে?

স্বাস্থ্যবিষয়ক একটি ওয়েবসাইটে প্রকাশিত প্রতিবেদন থেকে সেসব জানানো হল।

কাঁচা-মুরগির মাংসে বিপজ্জনক ব্যাক্টেরিয়া যেমন- ক্যাম্পিলোব্যাক্টর ও সালমোনেলা থাকতে পারে। যা পেট ব্যথা, ডায়রিয়া ও খাবারে বিষক্রিয়া সৃষ্টি করে। আর খাবারের বিষক্রিয়া হওয়ার অন্যতম কারণ ক্যাম্পিলোব্যাক্টর।

ব্যাক্টেরিয়া দূর না করে কেবল মাংস ধোয়া হলে তা আরও বেশি সমস্যার সৃষ্টি করে।

ইউকে ন্যাশনাল হেলথ সার্ভিস অনুযায়ী- গতিশীল পানিতে যখন মুরগির মাংস ধোয়া হয় তখন আরও বেশি ক্ষতিগ্রস্ত হয়। গতিশীল পানিতে ব্যাক্টেরিয়া মুরগি থেকে আপনার ত্বক, পাত্র, কাপড়, তৈজস ও হাতে ছড়িয়ে যায়। কারণ পানির ফোটা ত্বকের ৫০ সে.মি. পর্যন্ত পৌঁছাতে পারে।

বিকল্প পদ্ধতি

মুরগি থেকে ব্যাক্টেরিয়া দূর করার উপায় হল সঠিক তাপমাত্রায় রান্না করা। মুরগি রান্না করার নূন্যতম তাপমাত্রা হল ১৬৫ ডিগ্রি। 

এই পদ্ধতি খুব একটা পছন্দ না হলেও একবার অন্তত অনুসরণ করে দেখতে পারেন কোনো পার্থক্য ধরা পড়ে কিনা। খুব বেশি অস্বস্তি কাজ করলে কাগজের তোয়ালে বা টিস্যু দিয়ে মুরগি ও চামড়া পরিষ্কার করে নিতে হবে।

এরপরেও মুরগি ধুতে চাইলে এর আশপাশ আগেই পরিষ্কার করে নিন এবং তারপরে হাত ভালো ভাবে ধুয়ে নিন।

মুরগি থেকে ব্যক্টেরিয়া ছড়িয়ে পড়া দূর করার উপায়

কাঁচা-মাংস ঢেকে ঠাণ্ডা স্থানে রাখুন। এক্ষেত্রে রেফ্রিজারেইটরে রাখতে পারেন। তবে খেয়াল রাখতে হবে যেন অন্যান্য খাবারের সংস্পর্শে না আসে।

প্রয়োজনীয় তৈজস ধুয়ে রাখা। চপিং বোর্ড, ছুড়ি ও অন্যান্য তৈজস যা কাঁচা-মাংস কাটতে প্রয়োজন হয় তা ঠিক মতো ধুয়ে রাখুন। 

ব্যাকটেরিয়া ছড়িয়ে পড়া এড়াতে অবশ্যই সাবান ও গরম পানি দিয়ে হাত ধুয়ে নেবেন।

ছবি: রয়টার্স।

আরও পড়ুন

রান্নার ভুলে ওজন বাড়ে  

দেহ পরিষ্কারে করছেন তো ঠিক মতো?  

খাদ্য সংরক্ষণে সঠিক পদ্ধতি  

কাটা ফল সংরক্ষণের উপায়  

মাংস সংরক্ষণের নানান উপায়


ট্যাগ:  লাইফস্টাইল  জেনে রাখুন