পছন্দের খবর জেনে নিন সঙ্গে সঙ্গে

যে সময়ে মস্তিষ্ক বেশি সচল থাকে

  • লাইফস্টাইল ডেস্ক, বিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম
    Published: 2018-10-06 14:35:56 BdST

bdnews24

সকালে ঘুম থেকে ওঠার পর হয়ত মাথায় দারুণ সব পরিকল্পনা খেলছে। তবে মস্তিষ্ক এই সময় কর্মক্ষম নয়।

কর্মক্ষম ও উর্বর থাকার মধ্যে তফাৎ আছে।

মস্তিষ্ক সবচাইতে কর্মক্ষম হয় যখন মানুষ ঘুমিয়ে থাকে। ভাবছেন, ঘুমের মধ্যে মস্তিষ্ক কর্মক্ষম থাকলে লাভটা কি?

উত্তরটা দেওয়া হল স্বাস্থবিষয়ক একটি ওয়েবসাইটে প্রকাশিত প্রতিবেদন অবলম্বনে।

দিনে ঘুম থেকে ওঠার পর যদি ক্লান্ত লাগে তাহলে হয়ত সারারাত মস্তিষ্কের ওপর ঝড় বয়ে গেছে। রাতে ঘুমন্ত অবস্থায় মস্তিষ্ককে অনেক কাজ করতে হয়েছে। যেসব ‘এটিপি’ জাতীয় রাসায়নিক উপাদান মস্তিষ্কের কোষের কার্যক্ষমতা বাড়ায় সেগুলো রাতের বেলা বৃদ্ধি পায়, একথা বৈজ্ঞানিকভাবে প্রমাণিত।

ঘুমানোর সময় মস্তিষ্কের কী হয়?

ঘুমানোর সময় শরীরের সকল অঙ্গ বিশ্রামে থাকলেও বিশ্রাম নেই মস্তিষ্কের। বরং এই সময় মস্তিষ্ক আরও বেশি কাজের চাপ সামলানোর জন্য চারদিক থেকে শক্তি সঞ্চয় করে। ক্লান্ত হয়ে আমরা যখন মস্তিষ্ককে বিশ্রাম দেওয়ার জন্য ঘুমাতে যাই, তখন মস্তিষ্ক বিশ্রাম না নিয়ে ঘুম থেকে ওঠার পর যে কাজগুলো আমাদের করতে হবে সেগুলোর জন্য প্রস্তুতি নিতে থাকে।

ফলে রাতে ঘুমানোর মাধ্যমে আমরা শরীর ও মনকে কর্মশক্তি অর্জনের, সারাদিন যা কাজ করা হয়েছে তা গোছানোর এবং পরের দিনের জন্য তৈরি হওয়ার সুযোগ করে দেই।

আর ঘুমানোর মাধ্যমে মস্তিষ্ক পায় সমস্যা সমাধান করার ক্ষমতা।

আসল কথা হল

প্রতিদিন সাত থেকে আট ঘণ্টা ঘুমানো মস্তিষ্কের দৈনন্দিন কাজ সঠিকভাবে সম্পাদনের জন্য অত্যন্ত জরুরি। কারণ এই ঘুমের সময়ে পরবর্তী দিনের জন্য প্রস্তুতি নেয় মস্তিষ্ক ও শরীর।

আরও পড়ুন

মস্তিষ্কের স্বাস্থ্য গড়ার খাবার

অফিস যেমন, মস্তিষ্ক তেমন

অভ্যাসে মস্তিষ্কের ক্ষতি

মস্তিষ্ক তরুণ রাখতে ব্যায়াম