২১ এপ্রিল ২০১৯, ৮ বৈশাখ ১৪২৬

যেসব কারণে ‘ফাস্ট ফুড’ ক্ষতিকর

  • লাইফস্টাইল ডেস্ক, বিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম
    Published: 2018-12-31 13:39:50 BdST

bdnews24

খাবারের প্রভাব কেবল ত্বক, চুল ও ওজনের উপরেই নয় বরং সারা শরীরেও পড়ে।

এই সময়ে ফাস্ট ফুড ও মোড়কজাত খাবারের চাহিদা বেশি। চাওয়া মাত্র হাতের কাছে পাওয়া যায় বলে এর মূল্যের দিকে মনোযোগ না দিয়ে সহজলভ্যতার দিকেই বেশি মনোযোগ দেওয়া হয়।

অথচ এই ‘দ্রুত খাবার’ নানানভাবে শরীরে ক্ষতিকর প্রভাব ফেলে।

বিভিন্ন গবেষণার ফলাফলের ভিত্তিতে খাদ্য ও পুষ্টিবিষয়ক একটি ওয়েবসাইটে প্রকাশিত প্রতিবেদন অবলম্বনে সেসবই এখানে জানানো হল।

স্যাচুরেইটেড ফ্যাট: দা জার্নাল অব ক্লিনিকল ওনকোলোজি’তে প্রকাশিত প্রতিবেদন থেকে জানা যায়, খাদ্য চর্বি ও সম্পৃক্ত চর্বি গ্রহণের ফলে ফুসফুসের ক্যান্সারের ঝুঁকি বাড়ে।

আলু ভাজা: ইউকে’র ‘ফুড স্ট্যান্ডার্ড এজেন্সি’র গবেষণা অনুযায়ী মচমচে আলু ভাজা স্বাস্থ্যের জন্য ক্ষতিকর। বাদামি করে ভাজা আলু খেতে মজার হলেও এটা শরীরে ‘অ্যাক্রিলামাইড’ তৈরি করে।

আঁশ-জাতীয় খাবার উচ্চ তাপমাত্রায় রান্না করা হলে ‘অ্যাক্রিলামাইড’ তৈরি হয় যা ক্যান্সারের ঝুঁকি বাড়ায়। তাই যে রুটিসহ যে কোনো আঁশ-জাতীয় খাবার সম্পূর্ণ বাদামি করে না ভেজে সোনালি রং করে ভাজা সবচেয়ে ভালো।    

গরম কফি: চা এবং কফি প্রেমীদের সচেতন হতে হবে। কফি ক্ষতিকর নয়। তবে সারাক্ষণ গরম চা বা কফি খাওয়া ‘এসোফাজিয়াল’ ক্যান্সারের ঝুঁকি বাড়ায়।

‘এসোফাজিয়াল’ হল মুখের পেছন থেকে পাকস্থলী পর্যন্ত যে পেশিযুক্ত খাদ্যনালী রয়েছে সেটা। যা খাবার পাকস্থলী পর্যন্ত পৌঁছাতে সাহায্য করে।

সারাক্ষণ উচ্চ গরমের চা বা কফি খাওয়ার ফলে গলায় টিউমার হওয়ার সম্ভাবনা থাকে।

কোমল পানীয়: পছন্দের কোমল পানীয় ছাড়া খাবার খেতে পারেন না এমন মানুষদের জেনে রাখা ভালো যে, এক ক্যান কোমল পানীয়তে ১০ চা-চামচ চিনি থাকে, যা ক্যান্সারের ঝুঁকি বাড়ায়। ডায়েট সোডা বা অন্যান্য পানীয়ও স্বাস্থ্যকর নয়; কারণ এতে আছে কৃত্রিম মিষ্টিকারক যা স্ট্রোক ও স্থূলতার ঝুঁকি বাড়ায়। 

প্রক্রিয়াজাত মাংস: প্রক্রিয়াজাত মাংস শরীরের জন্য খারাপ। বিভিন্ন গবেষকদের মতে, প্রক্রিয়াজাত খাবারের রাসায়নিক উপাদান পেটের ক্যান্সারের ঝুঁকি বাড়ায়।

আরও পড়ুন

পিৎজা খাব নাকি খাব না!  

‘ফাস্ট ফুড’ দূরে থাক  

জাঙ্ক ফুডের প্রভাব কমাতে  

মগজ কমায় ‘জাঙ্ক ফুড’