পছন্দের খবর জেনে নিন সঙ্গে সঙ্গে

গরমে অফিসের পোশাক

  • লাইফস্টাইল ডেস্ক, আইএএনএস/ বিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম
    Published: 2019-04-29 16:56:06 BdST

ক্যাজুয়াল কিংবা কর্পোরেট- গরমে চাই আরামদায়ক তবে ফ্যাশনেবল পোশাক।

ভারতীয় স্টাইলিস্ট নিহারিকা দুবেই’য়ের পরামর্শ অনুযায়ী গরমে অফিসের আরামদায়ক এবং ফ্যাশনেবল পোশাক সম্পর্কে জানানো হল।

ফরমাল: যাদের নিয়মিত বিভিন্ন উচ্চপদস্থ কর্মকর্তাদের সঙ্গে আলোচনায় বসতে তাদেরকে হয়ত সব ঋতুতেই কেতাদুরস্ত অবস্থায় থাকতে হয়। এক রংয়ের বানানো স্যুট যেমন, কালো ধুসর কিংবা নীলের সঙ্গে মেলাতে পারেন সাদা কলারের শার্ট। পুরুষের জন্য এই ক্লাসিক পোশাক সব পরিস্থিতিতেই নিরাপদ। নারীরা বেছে নিতে পারেন প্যান্ট স্যুট কিংবা স্কার্ট স্যুট। রংটা হওয়া চাই মার্জিত। যেমন- কালো, নেভি ব্লু কিংবা বাদামি, সঙ্গে থাকতে পারে সাদা কলার।

সেমি ফরমাল: পোশাক নিয়ে যেসব অফিসে অতিরিক্ত বিধিনিষেধ নেই তাদের জন্য পোশাকের অভাব নেই। তবে মনে রাখতে হবে, পোশাক মার্জিত হতে হবে। স্কার্ট কিংবা ট্রাউজারের সঙ্গে পাতলা কার্ডিগান হতে পারে নারীদের জন্য একটি পছন্দ। সঙ্গে পরতে পারেন চেক কিংবা স্ট্রাইপ ডিজাইনের হালকা রংয়ের শার্ট। পুরুষরা বেছে নিতে পারেন যে কোনো রংয়ের বোতামযুক্ত শার্ট, আর পরনে থাকতে পারে বানানো ফরমাল প্যান্ট কিংবা সেমি ফরমাল ধরনের খাকি গ্যাবার্ডিন প্যাট।

ক্লাসিক ক্যাজুয়াল: পোশাক নিয়ে কোনো বিধিনিষেধ নেই এমন অফিসে কর্মীদের বাড়তি সাবধানতা অবলম্বন করা উচিত। কারণ পোশাক একজনের ব্যক্তিত্বের পরিচয় বহন করে। তাই যা ইচ্ছে তাই পোশাক পরে অফিসে গেলে নিজেই বিব্রত বোধ করবেন। এক্ষেত্রে নিরাপদ পোশাক হল গাঢ় রংয়ের জিন্স প্যান্টের সঙ্গে পোলো টিশার্ট বা কলারযুক্ত গেঞ্জি। পোলো টিশার্ট বেছে নেওয়ার ক্ষেত্রে হালকা ডিজাইন নিশ্চিত করতে হবে।

নারীদের ক্ষেত্রে সালোয়াল কামিজ, টপস এবং পরনে জিন্স কিংবা সুতি স্ল্যাকস হতে পারে আদর্শ।

ভারতের উডল্যান্ডের ব্যবস্থাপনা পরিচালক হার্কিরাত সিং জানিয়েছেন ব্যাগ আর জুতা সম্পর্কে।

জুতা: নারীদের জন্য হিলজুতার তুলনায় ‘ফ্ল্যাটস’ বা সমানতলার জুতা কিংবা স্যান্ডেল হবে আদর্শ। হিল পরতে চাইলে ‘প্ল্যাটফর্ম হিল’ হবে সবচাইতে আরামদায়ক এবং স্টাইলিস্ট। ‘ওয়েজেস’ জাতীয় জুতাও কর্মক্ষেত্রের জন্য অত্যন্ত যুগপযোগী।

পুরুষের জন্য ফরমাল জুতা হল অক্সফোর্ড, ডার্বি ও লোফার ধরনের জুতা। কালো জুতার তুলনায় একজোড়া বাদামি জুতা নজর কাড়বে বেশি, পোশাকেও যোগ করতে ভিন্নমাত্রা। তবে বাদামি জুতা পোশাকের সঙ্গে মানানসই করা কালো জুতার চাইতে কিছুটা ঝামেলার বিষয়। তাই কালো জুতা বরাবরই নিরাপদ।

ব্যাগ: কর্মক্ষেত্রে ব্যবহারযোগ্য ব্যাগটি দেখতে আকর্ষণীয় হওয়া চাই, সঙ্গে চাই পর্যাপ্ত জায়গা ও দীর্ঘস্থায়িত্বও। নারীদের জন্য টোট ব্যাগ বরাবরই আদর্শ, কারণ এতে প্রয়োজনের বেশি জায়গা থাকে। এতে পানির বোতল, মোবাইল, কলম, ল্যাপটপ, প্রসাধনী সবকিছুর জন্যই বিশেষ জায়গা রয়েছে।

ব্যাগ নিয়ে চিন্তা করতে গেলে পুরুষের সারা জীবনের সঙ্গী ওই ব্যাকপ্যাক। আর হবে নাই বা কেনো, সবকিছুর জন্যই জায়গা আছে এতে। ল্যাপটপ, পানির বোতল, দুপুরের খাবার, নোকবুক, প্রয়োজনীয় কাগজপত্র যা কিছুই প্রয়োজন হোক না কেনো ব্যাকপ্যাকে সবকিছুই রাখা যায় অনায়াসে।

আর আজকাল বাজারে বিভিন্ন ডিজাইনের ব্যাকপ্যাক পাওয়া যায় তা অফিসে বেমানান হওয়া তো দূরের কথা বরং সহকর্মীদের হিংসুক করে তুলতে পারে সেসব ব্যাগ।

ছবি সৌজন্যে: লা রিভ।

আরও পড়ুন

গরম উপযোগী পোশাক  

গরমে পুরুষের ত্বকের যত্ন  

গরমে শিশুর পোশাক  

আরামের পোশাক ফতুয়া  

‘ওয়ারড্রব’ পরিকল্পনা