২৫ আগস্ট ২০১৯, ১০ ভাদ্র ১৪২৬

ঘর পরিচ্ছন্ন রাখতে

  • লাইফস্টাইল ডেস্ক, বিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম
    Published: 2019-06-28 16:02:36 BdST

bdnews24
ছবি: রয়টার্স।

পুরানো ও অব্যবহৃত জিনিসপত্র কেবল ময়লার স্তূপই তৈরি করে না পাশাপাশি স্বাস্থ্য ঝুঁকির কারণও হয়।

তাই অপ্রয়োজনীয় জিনিস জমিয়ে না রাখাই ভালো।

জীবনযাপন-বিষয়ক একটি ওয়েবসাইটে প্রকাশিত প্রতিবেদন থেকে ঘরের অপ্রয়োজনীয় কিছু জিনিস সম্পর্কে ধারণা দেওয়া হল যা অপসারণ করে ঘর পরিচ্ছন্ন রাখা যায়। 

প্লাস্টিকের বক্স: কাজের সুবিধার জন্যই প্লাস্টিকের বক্স সংরক্ষণ করতে আমরা পছন্দ করি। কিন্তু এর রয়েছে ক্ষতিকারকর দিক। প্লাস্টিকের বক্সে যদি ‘পিসি’ নামক উপাদান থেকে তাহলে তা ব্যবহার করা নিরাপদ নয়। পিসি অর্থ পলিকার্বোনেট এবং বিসফেনল ‘এ’ নামক বিষাক্ত রাসায়নিক উপাদান। এটা শ্বাসকষ্ট, হৃদরোগ এমনকি রক্তচাপের সমস্যা সৃষ্টি করে।

তাই নিরাপদ থাকতে প্লাস্টিকের বদলে কাঁচের বয়াম ব্যবহার করা উচিত।

এয়ার ফ্রেশনার: ঘরে সুগন্ধি ছড়াতে এয়ার ফ্রেশনার ব্যবহার করা মানে নিজেকে রাসায়নিক উপাদানের মাঝে রাখা। ফলে দেখা দিতে পারে নানা রকমের স্বাস্থ্য ঝুঁকি। দীর্ঘক্ষণ এর সুগন্ধ থাকার মূল কারণ রাসায়নিক উপাদান।

পুরানো টুথ ব্রাশ: অপ্রয়োজনীয় টুথব্রাশ জমিয়ে রাখার কোনো মানে নেই। এটা আবর্জনা ছাড়া আর কিছু নয়। ব্রাশের ব্রিসলস নষ্ট হয়ে যাওয়া মানে তা দাঁত আগের মতো পরিষ্কার করতে পারবে না। এছাড়াও এর কারণে নানান স্বাস্থ্য সমস্যা দেখা দিতে পারে। যেমন- ফ্লু আক্রান্ত অবস্থায় যে ব্রাশ ব্যবহার করতেন এখনও যদি তা ব্যবহার করা হয়ে তবে দ্বিতীয়বারও ফ্লু’তে আক্রান্ত হওয়ার সম্ভাবনা থাকে। 

পুরানো কাপড়: পুরানো কাপড় আর কখনও পরা হয় না কেবল মনের শান্তির জন্য আমরা জমিয়ে রাখি। তাই পুরানো কাপড় সরিয়ে নতুন পোশাক দিয়েই আলমারি সাজানো উচিত।

আরও পড়ুন

ঘরের যে স্থানগুলো পরিষ্কার রাখা জরুরি  

পরিষ্কার-পরিচ্ছন্নতায় স্বাস্থ্য ঝুঁকি  

সপ্তাহ শেষে ঘর গোছাতে  

রান্নার আগে খাবার পরিষ্কার করতে  


ট্যাগ:  লাইফস্টাইল  জেনে রাখুন