ওজন কমাতে ফল

  • লাইফস্টাইল ডেস্ক, বিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম
    Published: 2019-12-24 15:59:47 BdST

bdnews24

মিষ্টি ফল ওজন কমানোর ক্ষেত্রে বাধা হয়ে দাঁড়ায় না।

স্বাস্থ্যকর খাবার হিসেবে ফল সবসময় এগিয়ে। তবে অনেকে মনে করেন মিষ্টি-জাতীয় ফল হয়ত ওজন বাড়ায়। যা আসলে ঠিক নয়।

পুষ্টিবিজ্ঞানের তথ্যানুসারে খাদ্য ও পুষ্টিবিষয়ক একটি ওয়েবসাইটে এই বিষয়ের ওপর প্রকাশিত প্রতিবেদন থেকে জানানো হল বিস্তারিত।

কার্বোহাইড্রেইটের সরল রূপ হল শর্করা। দুধ, মধু, সবজি এবং ফলসহ বিভিন্ন খাবারেই শর্করা থাকে। আর ফলের শর্করা বেশিরভাগই আসে ফ্রুক্টোজ থেকে।

ফ্রুক্টোজ ওজন বাড়ানোর ক্ষেত্রে দায়ী হলেও ফলের ফ্রুক্টোজ খুব কম ক্ষেত্রেই এই সমস্যা তৈরি করে।

গবেষণায় দেখা গেছে, ফল খায় না এমন ব্যক্তিদের তুলনায় যারা ফল খায় তারা তুলনামূলকভাবে চিকন হয়।

মেটাবোলিজম জার্নালে প্রকাশিত এক গবেষণায় দেখা গেছে, ১০৭ জন স্থূলকায় ও অতিরিক্ত ওজনের স্বেচ্ছাসেবকদের দুইটি দলে ভাগ করে তাদের একই পরিমাণ ক্যালরি গ্রহণ করতে দেওয়া হয়েছে। এক দল ফল থেকে ২০ গ্রাম ফ্রুক্টোজ গ্রহণ করেছেন। অন্য দল ৫০-৭০ গ্রাম ফ্রুক্টোজ ফল থেকে গ্রহণ করেছেন।

গবেষণার ফলাফলে দেখা গেছে, যারা কম ফল খেয়েছেন তাদের তুলনায় যারা বেশি পরিমাণে ফল খেয়েছেন তারা ৪৮ শতাংশ বেশি ওজন কমাতে সক্ষম হয়েছেন।

আরও গুণাগুণ

ফল কেবল ফ্রুক্টোজ থাকে না। এটা উচ্চ আঁশ ও ম্যাগনেসিয়াম সমৃদ্ধ, যা সার্বিকভাবে শরীরের জন্য ভালো। এটা ইন্সুলিনকে সবচেয়ে কার্যকরভাবে ব্যবহার করতে সাহায্য করে। ফলে থাকা ফ্রুক্টোজ রক্তের শর্করাকে অন্য খাবারের মতো বাড়িয়ে তোলে না। 

আসলে, ফল খেলে তা ক্যালরির সরবারহ কমিয়ে ওজন নিয়ন্ত্রণে রাখতে সহায়তা করে। যা কিনা কোলা-জাতীয় কোমল পানীয় সহজেই সেই ক্যালরির চাহিদা পূরণ করে ফেলতে পারে। তাই ওজন নিয়ন্ত্রণে রাখতে বেশি পরিমাণে ফল খাওয়ার অভ্যাস করাই ভালো।

ছবি: রয়টার্স।

আরও পড়ুন

ফল নিয়ে কিছু কথা  

ফল ও সবজি সম্পর্কে ধারণা  

ফল খাওয়ার উপযুক্ত সময়  


ট্যাগ:  খাদ্য ও পুষ্টি  লাইফস্টাইল