যেকোনো একদিকে মাথাব্যথা হওয়ার কারণ

  • লাইফস্টাইল ডেস্ক,, বিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম
    Published: 2020-01-27 17:54:23 BdST

bdnews24

মাথার কোন জায়গায় ব্যথা অনুভুত হচ্ছে তার ওপর নির্ভর করে ব্যথার কারণ। এবং তা সারানোর উপায় সম্পর্কে অনেক কিছু ধারণা করা যায়।

মাথাব্যথায় সব বয়সের মানুষই ভোগেন। তবে কেউ কেউ মাথার যেকোনো একদিকে ব্যথা অনুভূব করেন। সেই ব্যথা ধরন হতে পারে ভোঁতা কিংবা তীক্ষ্ণ।

স্বাস্থ্যবিষয়ক একটি ওয়েবসাইটে প্রকাশিত প্রতিবেদন অবলম্বনে জানানো হল বিস্তারিত।

স্নায়ুগত সমস্যা থেকে মাথাব্যথা: মাথার একপাশে ব্যথা হওয়ার পেছনে থাকতে পারে বিভিন্ন স্নায়ুভিত্তিক কারণ। এদের মধ্যে একটি হল ‘অ্যাকসিপিটাল নিউরালজিয়া’, যেখানে মাথাব্যথার অনুভূতিটা হয় দপদপানি, বিদ্যুৎপৃষ্ঠ হওয়ার মতো কিংবা কোনো কিছু মাথা ভেদ করে ভেতরে প্রবেশ করছে এমন।

‘স্পাইনাল কর্ড’য়ের উপরিভাগে আর মাথার ত্বকের মাঝামাঝিতে থাকা স্নায়ুগুলোতো সংক্রমিত বা ক্ষতিগ্রস্ত হলে এমন মাথাব্যথা দেখা দেয়।

আরেক ধরনের মাথাব্যথার নাম ‘টেমপোরাল আর্টেরাইটিস’, যেখানে মাথাব্যথার কারণ হল মাথা ও ঘাড়ে থাকা স্নায়ু প্রদাহের শিকার হয় এবং তার কারণে মস্তিষ্কের রক্ত সরবরাহ ব্যাহত হয়। এমতাবস্থায় আক্রান্ত ব্যক্তির মাথার যেকোনো পাশে ব্যথা হতে পারে। সেই সঙ্গে দেখা দিতে পারে পেশি ব্যথা, অবসাদ ও চোয়াল ব্যথা।

একপেশে মাথাব্যথা দেখা দিতে পারে দীর্ঘমেয়াদি সমস্যা ‘ট্রাইজেমিনাল নিউরালজিয়া’র কারণে। মাথার ত্বকে থাকা ‘ট্রাইজেমিনাল’ স্নায়ুকে ক্ষতিগ্রস্ত করে এই সমস্যা। এই স্নায়ুর কাজ হলো চেহারায় সৃষ্ট আলোড়ন মস্তিষ্কের পৌঁছানো। আর এই কাজ বাধাগ্রস্ত হলে ব্যথা দেখা দেয় চেহারায় ও মাথার একপাশে। 

ওষুধ থেকে মাথাব্যথা: নিয়মিত খাওয়া ওষুধের পার্শ্বপ্রতিক্রিয়া থেকেও একপেশে মাথাব্যথা হতে পারে। নিয়মিত খাওয়া ওষুধ পরিমাণে বেশি খাওয়ার কারণেও মাথাব্যথাসহ বিভিন্ন স্বাস্থ্যসমস্যা দেখা দেয়। এমন কিছু ওষুধ হল ‘অ্যাসিটামিনোফেন’, ‘অ্যাসপিরিন’, ‘আইবুপ্রফেন’ ইত্যাদি।

এছাড়াও অ্যালার্জি, অবসাদ, ক্লান্তি, মাথায় আঘাত পাওয়া, সংক্রামক রোগ, টিউমার ইত্যাদির প্রভাবেও মাথাব্যথা হতে পারে।

ডাক্তার দেখাতে হবে যখন

মাথাব্যথা একটি সাময়িক শারীরিক সমস্যা, যা কিছুসময় পর নিজেই সেরে যায়। ব্যথা অসহ্য মাত্রার হলে ওষুধ কিংবা ঘরোয়া টোটকা কাজে লাগাতে পারেন। চিকিৎসকের পরামর্শ ছাড়া ওষুধ খেলে একদিনে কখনই দুটোর বেশি ওষুধ খাওয়া যাবে না। মাথাব্যথা যদি নিয়মিত ঘটনায় পরিণত হয় এবং সঙ্গে দৃষ্টিশক্তিতে পরিবর্তন, দ্বিধাগ্রস্ততা, জ্বর, ঘাড় আটকে যাওয়া, শারীরিক দুর্বলতা ইত্যাদি অনুভব করেন তবে দ্রুত চিকিৎসকের পরামর্শ নিতে হবে।

আরও পড়ুন

ঘন ঘন মাথাব্যথার কারণ  

জেনে রাখুন মাথাব্যথার ধরন  

চুল বাঁধা থেকে মাথাব্যথা

মাথা ব্যথার প্রতিষেধক  


ট্যাগ:  লাইফস্টাইল  দেহঘড়ি