পছন্দের খবর জেনে নিন সঙ্গে সঙ্গে

করোনাভাইরাস: হোম ডেলিভারিতে ঝুঁকি কতটুকু?

  • লাইফস্টাইল ডেস্ক, বিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম
    Published: 2020-04-13 14:38:34 BdST

bdnews24

বাক্সর চাইতে হাত পরিষ্কারের দিকে মনযোগ দিতে হবে বেশি।

‘লকডাউন’য়ের কারণে প্রতিটি সচেতন মানুষ যথাসাধ্য চেষ্টা করছেন ঘরে থাকার। অনেকেই কাঁচাবাজার ও অন্যান্য নিত্য প্রয়োজনীয় পণ্য ঘরে বসে কিনতে চেষ্টা করছেন।

আবার স্বল্প পরিসরে কিছু রেস্তোরাঁ ‘হোম ডেলিভারি সার্ভিস’ দিচ্ছে। ‘হোম ডেলিভারি প্ল্যাটফর্ম’গুলোতেও রেস্তোরাঁর খাবারের পাশাপাশি বিভিন্ন সুপারশপ, ফার্মেসি ও সেচ্ছাসেবি প্রতিষ্ঠান থেকে বাজার-সদাই, ওষুধ, ত্রাণ সামগ্রী ইত্যাদি পাওয়া যাচ্ছে।

বিদেশ থেকেও আসতে পারে পণ্য।

প্রশ্ন হল বাইরে থেকে আসা এই ডেলিভারির বাক্সগুলো কতটুকু নিরাপদ?

বিভিন্ন সমতলে করোনাভাইরাস নয় দিন বা তারও বেশি সময় বাঁচতে পারে বলে জানিয়েছেন বিশেষজ্ঞরা। ডেলিভারির এই বাক্সগুলো বিভিন্ন হাত ঘুরে, বেশ অনেকটা পথ পাড়ি দিয়ে আপনার ঘরে পৌঁছায়। তাই এগুলোতেও করোনাভাইরাস থাকা অস্বাভাবিক নয়।

এগুলোতে জীবাণুনাশক প্রয়োগ করা কতটুকু জরুরি? গ্লাভস-মাস্ক কি ব্যবহার করতে হবে খোলার সময়?

যুক্তরাষ্ট্রের ‘সেন্টার ফর ডিজিজ কন্ট্রোল অ্যান্ড প্রিভেনশন (সিডিসি) বলছে, “আপাত পরিস্থিতিতে কোনোটাই জরুরি নয়। কারণ, কয়েকদিন রাস্তায় থাকা কোনো ‘প্যাকেজ’ কিংবা ‘পার্সেল’য়ের মাধ্যমে করোনাভাইরাস ছড়ানোর সম্ভাবনা এখনও অনেক কম বলে।”

বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা বলছে, “একটি ‘প্যাকেজ’ তার গন্তব্যে পৌঁছানো পর্যন্ত বিভিন্ন পরিস্থিতির ভেতর দিয়ে যায়, ফলে এথেকে ভাইরাস ছড়ানোর আশঙ্কাকে আমরা এখনও সীমিত বলেই ধারণা করছি।”

দিনেই মধ্যেই যেগুলো পৌঁছায় সেগুলোর ক্ষেত্রে করণীয় সম্পর্কে সিডিসি বলছে, “এখন পর্যন্ত বিভিন্ন সমতলে করোনাভাইরাসকে সর্বোচ্চ নয় দিন পর্যন্ত সক্রিয় পাওয়া গেছে। করোনাভাইরাসের ‘আরএনএ’ বাঁচে সর্বোচ্চ ১৭ দিন। তবে এখন পর্যন্ত আমাদের সংগ্রহ করা তথ্য মোতাবেক রেস্তোরাঁর খাবার কিংবা বাজার-সদাই অনলাইনে অর্ডার করে হোম ডেলিভারি নেওয়া নিরাপদ। খাবার কিংবা তার ‘প্যাকেট’য়ের মাধ্যমে করোনাভাইরাস ছড়ানোর এখন পর্যন্ত কোনো প্রমাণ পাওয়া যায়নি।”

তারপরও সাবধানের মার নেই। আর বর্তমান পরিস্থিতিতে কোনো সাবধানতাই যেন সম্পূর্ণ নিরাপত্তা নিশ্চিত করতে পারছেনা।

তাই যদি সম্ভব হয়, ‘ডেলিভারি’র বাক্সগুলো নিজ চেষ্টায় জীবাণু মুক্ত করতে পারেন।

তবে বাক্স ও ভেতরের জিনিস পরিষ্কার চাইতেও জরুরি হল তা ধরার পর নিজের হাত ভালোভাবে পরিষ্কার করা।

কারণ বাক্স আপনার নাক-মুখের কাছাকাছি যাবে না, প্রয়োজনে বাক্সটি আপনি ঘরেই বাইরে রাখতে পারেন কিংবা তৎক্ষণাত নিরাপদ স্থানে ফেলে দিতে পারেন। আর সেখানে ভাইরাস থাকলেও তা আপনার হাতের মাধ্যমেই সংক্রমিত করতে পারবে।

তাই বাক্স ফেলে হাত পরিষ্কারে মনযোগী হতে হবে।

ছবি: রয়টার্স।

আরও পড়ুন

হাত জীবাণু মুক্ত রাখার উপায়  

করোনাভাইরাস: নিরাপদে থাকতে করণীয়  

পিৎজার বাক্স হতে পারে বেশি ক্ষতিকর