রূপচর্চায় লেবুর ব্যবহার

  • লাইফস্টাইল ডেস্ক, বিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম
    Published: 2020-06-02 20:09:27 BdST

bdnews24

ত্বকের কালচেভাব কমানো, খুশকি দূর কিংবা দাঁত সাদা করতে লেবুর রস বেশ কার্যকর।

গরমকালে একগ্লাস লেবুর শরবত শরীরে দেয় প্রশান্তি। খাবারে লেবুর রস বাড়ায় স্বাদ। পাশাপাশি ভিটামিন সি’র সবচেয়ে ভালো উৎস হিসেবে লেবু যে রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা বাড়াতেও কাজ করে সে কথা সবারই জানা।

আর এই লেবু রূপচর্চাতেও ব্যবহার হয় নানানভাবে।

রূপচর্চা-বিষয়ক একটি ওয়েবসাইটে প্রকাশিত প্রতিবেদন থেকে সৌন্দর্য-চর্চায় লেবুর নানান ব্যবহার সম্পর্কে জানানো হল।

মুখে ব্যবহার: লেবু প্রাকৃতিকভাবে ভিটামিন সি সমৃদ্ধ যা ত্বক ভালো রাখতে অ্যান্টিঅক্সিডেন্ট হিসেবে কাজ করে। এই ভিটামিন ত্বকের ক্ষয় দূর করে এবং অকালে বয়সের ছাপ পড়া থেকে রক্ষা করে।

লেবু অ্যাস্ট্রিনজান্ট সমৃদ্ধ সিট্রাস ফল যা ত্বক মসৃণ রাখে, গরম ও ঘামের কারণে হওয়া তৈলাক্তভাব কমায়। এর অ্যান্টিসেপ্টিক উপাদান ত্বকের মৃতকোষ এবং ব্রেক আউট দূর করে।

ত্বকের উজ্জ্বলতা বাড়াতে প্যাকের সঙ্গে লেবু মিশিয়ে ব্যবহার করুন।

ডাবের পানির সঙ্গে লেবুর রস মিশিয়ে ত্বকে ব্যবহার করে ১৫ মিনিট অপেক্ষা করুন। তারপর পরিষ্কার পানি দিয়ে মুখ ধুয়ে ফেলুন। এটা তৈলাক্ত ত্বকে খুব ভালো কাজ করে।

যাদের ত্বক শুষ্ক তারা ডাবের পানির সঙ্গে মধু মিশিয়ে ত্বকে ব্যবহার করুন, ত্বক মসৃণ হবে।

মাথার ত্বকে ব্যবহার: লেবুতে আছে অ্যান্টিসেপ্টিক ও প্রদাহরোধী উপাদান যা মাথার ত্বকে পরিষ্কার করে খুশকি ও রুক্ষতার বিরুদ্ধে কাজ করে। এটা উচ্চ পিএইচ সমৃদ্ধ যা চিটচিটেভাব কমায় ফলে খুশকি দূর হয়।

মাথার ত্বক পরিষ্কার করতে অ্যালো ভেরা জেলের সঙ্গে লেবুর রস মিশিয়ে চুলের গোড়ায় ব্যবহার করুন। ২০ মিনিট অপেক্ষা করে মৃদু শ্যাম্পু দিয়ে চুল ধুয়ে নিন ও কন্ডিশনার ব্যবহার করুন। এতে খুশকি কমার পাশাপাশি চুলের গোড়া শক্ত হবে, চুল পড়া কমবে।

কালচেভাব দূর করতে: কালচে কনুই ও হাঁটুর সমস্যা অনেকেরই আছে। এই দাগ হালকা করতে এসব জায়গায় লেবু ও লবণের মিশ্রণ ঘষুণ। ভিটামিন এ এবং সিট্রিক অ্যাসিড এক্ষেত্রে চমৎকার কাজ করে। 

ভালো ফলাফলের জন্য সপ্তাহে দুতিনবার লেবু ও লবণের মিশ্রণ আক্রান্ত স্থানে ব্যবহার করুন।

ঠোঁটে ব্যবহার: গরমকালেও ঠোঁট হতে পারে শুষ্ক ও মলিন। এই সমস্যা দূর করা যায় লেবুর সাহায্যে।

লেবুর রস ও বাদামি চিনি মিশিয়ে স্ক্রাব তৈরি করে ঠোঁট এক্সফলিয়েট করে নিন। লেবুর অ্যাসিডিক উপাদান রাসায়নিক এক্সফলিয়েটরের চেয়ে ভালো। চিনির দানাদার অংশ সরাসরি এক্সফলিয়েটরের কাজ করে। লেবু ও চিনির সংমিশ্রণ ত্বকের মৃত কোষ দূর করতেও কার্যকর।

লেবু ও চিনির মিশ্রণ আলতোভাবে ঠোঁটে মালিশ করে পরিষ্কার পানি দিয়ে ধুয়ে ফেলুন।

দাঁতে ব্যবহার: ঝলমলে হাসির জন্য চাই ঝকঝকে সাদা দাঁত। দাঁত সাদা করতে লেবুর তৈরি ‘হোয়াইটেনিং প্যাক’ বেশ কার্যকর। বেইকিং সোডা ও লেবুর রস একসঙ্গে মিশিয়ে পেস্ট তৈরি করুন এবং তা দাঁতের ওপরে পাতলা করে প্রলেপ দিয়ে রাখুন। এরপর টুথব্রাশের সাহায্যে দাঁত মেজে নিন এবং পরিষ্কার পানি দিয়ে মুখ পরিষ্কার করে ফেলুন। দাঁত ঝকঝক করবে।

Image by Steve Buissinne from Pixabay
 

আরও পড়ুন

লেবু দিয়ে পরিষ্কার  

রূপচর্চায় প্রাকৃতিক উপাদান ব্যবহারে সতর্কতা  

লেবুর খোসা হতে পারে ক্ষতিকর  


ট্যাগ:  সাজসজ্জা