খুশকি কমাতে করণীয়

  • লাইফস্টাইলডেস্ক, বিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম
    Published: 2020-12-03 17:44:52 BdST

bdnews24

ঘরে থাকা উপাদান দিয়ে দূর করতে পারেন খুশকির সমস্যা।

খুশকি শব্দটাই বিরক্তিকর। নানান কারণে দেখা দিতে পারে এই সমস্যা। এরমধ্যে- চুলে অ্যালার্জি সৃষ্টি করে এমন পণ্য ব্যবহার, নিয়মিত শ্যাম্পু ব্যবহার না করা, অতিরিক্ত মানসিক চাপ, আর্দ্রতা, বংশগত কারণ ইত্যাদি অন্যতম।

রূপচর্চা-বিষয়ক একটি ওয়েবসাইটে প্রকাশিত প্রতিবেদন অবলম্বনে খুশকি দূর করার প্রাকৃতিক কয়েকটি উপায় সম্পর্কে জানান হল।

লবণ

মাথার ত্বকের অতিরিক্ত তেল ও ম্যালাসেজিয়ার বৃদ্ধি কমাতে লবণ উপকারী। লবণ কেবল মাথার ত্বকের বাড়তি তেল ও আর্দ্রতা কমায় না বরং রোমকূপ উন্মুক্ত করতেও সহায়তা করে। এটা মাথার ত্বককে এক্সফলিয়েট করে ও মৃত কোষ ও চামড়া দূর করতে সহায়তা করে।

উপকরণ: লবণ। এক বাটি পানি।

পদ্ধতি: মাথার ত্বকে এক চিমটি লবণ ছিটিয়ে নিন। আঙ্গুল ভিজিয়ে মাথার ত্বক পাঁচ থেকে সাত মিনিট মালিশ করুন। এরপর তা ধুয়ে ফেলে শ্যাম্পু করে স্বাভাবিকভাবে শুকিয়ে নিন। ১৫ দিন পর পর ব্যবহারে ভালো ফলাফল পাওয়া যাবে।

পরামর্শ: এটা যেহেতু কোনো চিকিৎসা না তাই দীর্ঘক্ষণ মাথার ত্বকে রাখা ঠিক নয়।

লেবু

লেবুর সিট্রিক অ্যাসিড ফাঙ্গাসের সংক্রমণ ও ভবিষ্যত আক্রমণ থেকে রক্ষা করতে সহায়তা করে। লেবুর রস চুলের ফলিকল শক্ত করে এবং ভিটামিন সি, লৌহ এবং ফ্লেভানয়েড যোগায় যা মাথার ত্বককে মসৃণ রাখে। এটা মাথার ত্বকে পিএইচইয়ের ভারসাম্য বজায় রাখে ও জ্বলুনি কমাতে সহায়তা করে।

উপকরণ: তিন, চার টেবিল-চামচ লেবুর রস। আধা কাপ পানি।

পদ্ধতি: পানির সঙ্গে লেবুর রস মিশিয়ে তা মাথার ত্বকে ব্যবহার করে মালিশ করুন। ১০ মিনিট অপেক্ষা করে মৃদু শ্যাম্পু দিয়ে ধুয়ে ফেলুন।

পরামর্শ: চাইলে শ্যাম্পুর সঙ্গে লেবুর রস ও পানি মিশিয়ে ব্যবহার করতে পারেন।

মেথি বীজ

ফাঙ্গাস ও ব্যাক্টেরিয়া রোধী উপাদান সমৃদ্ধ যা খুশকি দূর করে। প্রোটিন সমৃদ্ধ হওয়াতে মেথি চুল শক্ত করে ও পড়া কমায়। মেথি আরও কিছু পুষ্টি উপাদান সমৃদ্ধ যা মাথার ত্বক ও চুল সুস্থ রাখতে সহায়তা করে। 

উপকরণ: তিন চেবিল-চামচ মেথি বীজ। পাঁচ টেবিল-চামচ দই।

পদ্ধতি: সারা রাত মেথি বীজ পানিতে ভিজিয়ে রাখুন। পরদিন সকালে তা বেটে ঘন পেস্ট তৈরি করে টক দই মিশিয়ে মাথার ব্যবহার মাখুন। ২০ থেকে ৩০ মিনিট পর মৃদু শ্যাম্পু দিয়ে চুল ধুয়ে নিন।

পরামর্শ: সপ্তাহে একবার ব্যবহারে ফলাফল চোখে পড়বে। ভালো ফলাফল পেতে এতে অর্ধেকটা লেবুর রস মেশাতে পারেন।

অ্যালো ভেরা

খুশকি দূর করার পাশাস্পাশি মাথার ত্বকের জ্বলুনি ও সংক্রমণ কমায়। এরও রয়েছে ফাঙ্গাস ও ব্যাক্টেরিয়া রোধী উপাদান। পাশাপাশি আছে মাথার ত্বকে আরাম প্রদানের ক্ষমতা।

উপকরণ: অ্যালো ভেরা জেল

পদ্ধতি: বাড়িতে অ্যালো ভেরার গাছ থাকলে তা থেকে জেল তুলে সরাসরি মাথার ত্বকে মালিশ করে ৩০ মিনিট পর মৃদু শ্যাম্পু দিয়ে ধুয়ে ফেলুন। চাইলে সপ্তাহে দুতিনবার এটা ব্যবহার করতে পারেন।

পরামর্শ: অ্যালো ভেরার গাছ পাওয়া না গেলে বাজারে কিনতে পাওয়া যায় এমন অ্যালো ভেরা জেলও ব্যবহার করতে পারেন।

অ্যাপল সাইডার

প্রদাহ ও ব্যাক্টেরিয়া রোধী উপাদান সমৃদ্ধ। তাই এটা খুশকি দূর করতে খুব ভালো কাজ করে। এটা ফাঙ্গাসের বৃদ্ধি কমায়, মাথার ত্বকের আর্দ্রতা রক্ষা করে ও পিএইচ’য়ের ভারসাম্য বজায় রাখতে সহায়তা করে।

উপকরণ: দুই টেবিল-চামচ অ্যাপল সাইডার ভিনিগার। এক কাপ পানি।

পদ্ধতি: সাধারণভাবেই শ্যাম্পু করে সব শেষে ভিনিগার মেশানো পানি দিয়ে চুল ধুয়ে নিতে হবে।  

পরামর্শ: সপ্তাহে একবার বা দুই সপ্তাহ পর পর একবার করে এই পদ্ধতি অবলম্বন করা ভালো।

আরও পড়ুন

ভ্রু’র খুশকি থেকে মুক্তি পেতে  

শুষ্ক মাথার ত্বকের ঘরোয়া সমাধান  

উজ্জ্বল ত্বকের জন্য ভেষজ মাস্ক  


ট্যাগ:  সাজসজ্জা