ওজন কমাতে শীতকালের ফল

  • লাইফস্টাইলডেস্ক, বিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম
    Published: 2021-01-11 14:19:27 BdST

bdnews24

ওজন কমাতে কম চর্বি ও ক্যালরি যুক্ত খাবার যোগ করা সবচেয়ে ভালো উপায়।

পাশাপাশি চাই সুষম খাবার গ্রহণ।

নিয়মিত শরীরচর্চা- যোগ ব্যায়াম, জিম করা বা সাধারণভাবে সকালে হাঁটাচলা করা গুরুত্বপূর্ণ। তবে এর জন্য পরিকল্পিত ডায়েট করাও সমান দরকারী। খাবারে মৌসুমি ফল যোগ করলে ভিটামিন, খনিজ ও অ্যান্টিঅক্সিডেন্টের চাহিদা পূরণ করে।

পুষ্টি-বিষয়ক একটি ওয়েবসাইটে প্রকাশিত প্রতিবেদন অবলম্বনে ওজন নিয়ন্ত্রণে সহায়তা করে এমন কয়েকটি ফল সম্পর্কে জানানো হল।

আঁশ সমৃদ্ধ ফল হজমে সহায়তা করে ও নিয়মিত আঁশালো ফলাহার পেটের ফোলাভাব কমায়। তাই খাবারে বা নাস্তা হিসেবে ফল খাওয়া উপকারী।

আপেল: আপেল পুষ্টি উপাদান সমৃদ্ধ এক মজাদার ফল। লোহিত রক্ত কণিকা বৃদ্ধিতে উপকারী ভিটামিন বি থেকে শুরু করে অ্যান্টিঅক্সিডেন্ট পর্যন্ত সকল উপাদান যা, অসুখের বিরুদ্ধে কাজ করে তার সবই পাওয়া যায় আপেলে। এই ফল কম ক্যালরি ও উচ্চ আঁশ সমৃদ্ধ যা ওজন কমাতে সহায়তা করে। নিয়মিত আপেল খাওয়া ডায়াবেটিসে আক্রান্ত হওয়ার ঝুঁকি, কোলেস্টেরলের মাত্রা ও হৃদরোগের ঝুঁকি কমায়। মস্তিষ্ক শাণিত করে ও হাঁপানির বিরুদ্ধে কাজ করে।

নাশপাতি: নাশপাতি কেবল ভিটামিন সি ও কে সমৃদ্ধই নয় বরং এটা উচ্চ আঁশ সমৃদ্ধ। আঁশ হজমে সহায়তা করে, কোলেস্টেরলের মাত্রা কমায়। পাশাপাশি এতে রয়েছে উচ্চ মাত্রায় অ্যান্টিঅক্সিডেন্ট। চর্বি ও কোলেস্টেরল নেই। তাই ওজন কমাতেও সহায়তা করে।

কমলা: ক্যালরি কম ও উচ্চ ভিটামিন সি ও আঁশ সমৃদ্ধ। ফলের রস খাওয়ার চেয়ে গোটা ফল খাওয়া ভালো। কারণ এটা কম ক্যালরি সরবারহ করে ও পেট ভরা ভাব রাখে। ওজন কমাতে চাইলে কমলার রস খাওয়ার চেয়ে গোটা কমলা খাওয়া বেশি উপকারী।

আরও পড়ুন

ওজন কমাতে পাঁচটি খাবার  

ফল খাওয়ার উপযুক্ত সময়  

যেসব খাবার এক সঙ্গে রাখা উচিত নয়  


ট্যাগ:  লাইফস্টাইল  খাদ্য ও পুষ্টি