রান্নাঘর পরিষ্কারে যে জিনিস ব্যাক্টেরিয়া ছড়ায়

  • লাইফস্টাইল ডেস্ক, বিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম
    Published: 2021-05-28 18:04:12 BdST

bdnews24

পরিষ্কারের পরিবর্তে বরং উল্টা ছড়াতে পারে ব্যাক্টেরিয়া ও ক্ষতিকর জীবাণু।

রান্নাঘরের মেঝে যা দিয়ে মোছা হয় তা দিয়ে নিশ্চই চুলার আশপাশ বা তাক মোছা হয় না।

তারপরও মোছার জন্য যে কাপড়ই ব্যবহার করা হোক তা থেকে ছড়াতে পারে জীবাণু।

যুক্তরাষ্ট্রের জর্জিয়া’তে অবস্থিত ‘টাওয়েল সুপার সেন্টার’য়ের মতে, থালা বাসন ধোয়ার কাজে ব্যবহার করা স্পঞ্জ ও মোছার জন্য তোয়ালে যেগুলো ব্যবহার করা হয় তা সহজেই বিপজ্জনক ব্যাকটেরিয়ার সংস্পর্শে আসে। আর সেসব দিয়ে পরে অন্য কিছু পরিষ্কার করা হলে ব্যাকটেরিয়া দ্রুত সেগুলোতেও ছড়িয়ে পড়ে।

‘টাওয়েল সুপাসেন্টার’য়ের ওয়েবসাইটে থাকা তথ্যের ভিত্তিতে বেস্টলাইফ ডটকম তাদের এক প্রতিবেদনে আরও জানায়, নষ্ট করে ফেলা যায় এমন কাগজের তোয়ালে বা ‘ডিসপোজেবল পেপার’ দিয়ে মোছা উচিত।

রান্নাঘরের ময়লা তোয়ালে যদি সঙ্গে সঙ্গেই পরিষ্কার না করা হয় তবে কাগজের তোয়ালের ব্যবহার ব্যাক্টেরিয়ার সংক্রমণ কমাতে সহায়তা করবে।

রান্নাঘরে ব্যাক্টেরিয়া থেকে খাবার বিষাক্ত

‘মরিশাস বিশ্ববিদ্যালয়’য়ের গবেষকরা ‘ডিশ তোয়ালে’ স্বাস্থ্যের জন্য কতটা ঝুঁকিকর তার বর্ণনা দিয়ে ২০১৮ সালে একটি সমীক্ষা প্রকাশ করেছিলেন।

এক মাসে ব্যবহৃত একশটি ডিশ তোয়ালে ও ধোয়ার জন্য ব্যবহার করা স্পঞ্জ পরীক্ষা করা হয়।

দেখা গেছে ৪৯ শতাংশর মধ্যে রয়েছে ‘ই কোলি’, ‘এন্টারোকোকাস’ এবং স্ট্যাফালোককাস অরিয়াস’য়ের মতো ব্যাক্টেরিয়া।

এবং একাধিক কাজ যেমন- পাত্র মোছা, কাউন্টার-টপ পরিষ্কার ইত্যাদি কাজে ব্যবহার করা তোয়ালেতে ব্যাক্টেরিয়া বৃদ্ধির এই হার অনেক বেশি থাকে।

খাদ্য বিজ্ঞানী ড. পল ডসন এবং যুক্তরাষ্ট্রের ‘ক্লেমসন ইউনিভার্সিটি’র কৃষিক্ষেত্র, বনজ ও জীব-বিজ্ঞান বিভাগের অধ্যাপক, সিএনএন’কে দেওয়া এক সাক্ষাৎকারে বলেন, “এই সকল ব্যাক্টেরিয়া খাদ্যজনিত অসুস্থতার জন্য হুমকির মতো।”

যুক্তরাষ্ট্রের রোগ নিয়ন্ত্রণ ও প্রতিরোধ কেন্দ্র (সিডিসি)র নির্দেশনা অনুসারে খাদ্যের বিষক্রিয়ার সাধারণ লক্ষণগুলির মধ্যে রয়েছে- পেটের সমস্যা, পেট ব্যথা, বমি বমি ভাব, বমি, ডায়রিয়া ও জ্বর।

এছাড়াও, এগুলো মাত্রা হালকা থেকে খুব মারাত্মক পর্যন্ত হতে পারে।

সিডিসি’র মতে, রক্তাক্ত ডায়রিয়া, উচ্চ জ্বর, ঘন ঘন বমি, পানি শূন্যতা বা ডায়রিয়া যা তিন দিনের বেশি স্থায়ী হয় তবে দেরি না করে একজন ডাক্তারের সঙ্গে পরামর্শ নেওয়া উচিত।

কেননা খাদ্য বিষক্রিয়ার ফলে দীর্ঘমেয়াদী স্বাস্থ্য সমস্যা বা মৃত্যুও ঘটতে পারে।

যুক্তরাষ্ট্রের ‘বাউন্টি টাওয়েলস’ এই বছর মার্চ মাসে পরিষ্কার পরিচ্ছন্নতার অভ্যাস নিয়ে এক জরিপ চালায়।

প্রশ্নউত্তর ভিত্তিক এই সমীক্ষা চালানো হয় যুক্তরাষ্ট্রের ২ হাজার জনের ওপর।

পর্যবেক্ষণে দেখো গেছে ৫৮ শতাংশ উত্তরদাতারা তাদের রান্নাঘরের কাউন্টারের ময়লা মুছতে ও থালাবাসন মুছতে একই তোয়ালে ব্যবহার করেন।

১৮ শতাংশ উত্তরদাতারা বলেছেন, তারা মনে করেন এটা ঘরের সবচেয়ে নোংরা বস্তু এবং এটা দিয়ে যে ব্যাক্টেরিয়া ছড়ায় সে ব্যাপারে তার জানেন।

৪১ শতাংশ  উত্তরদাতা বলেছেন, তারা এই তোয়ালে ধোয়ার আগে আরও পাঁচাবার ব্যবহার করেন।

সমীক্ষার সঙ্গে জড়িত সংক্রামক রোগ বিশেষজ্ঞ জেসিকা রিভেরা বলেন, "ব্যবহৃত ‘ডিশক্লথ’গুলো ব্যাক্টেরিয়ার জন্য একটি উপযোগী পরিবেশ তৈরি করতে পারে। এবং না বুঝে সে তোয়ালে দিয়ে ময়লা স্থান পরিষ্কার করা বা শুকনা হাত মোছা আসলে ব্যাক্টেরিয়া ছড়াতেই সাহায্য করছেন।"

নিয়মিত এই তোয়ালে পাল্টানো উচিত

সমীক্ষায় দেখা গেছে, কেবল ১১ শতাংশ মানুষ তাদের রান্নাঘরের হাত মোছার তোয়ালে প্রতি সপ্তাহে একাধিকবার পরিবর্তন বা পরিষ্কার করেন।

‘ইউ.এস ডিপার্টমেন্ট অব এগ্রিকালচার (ইউএসডিএ)’ জানায়, রান্নাঘরের থালা বাসন মোছার কাপড়গুলো ‘ব্যাক্টেরিয়ার ভালো উৎস। তাই এগুলো ঘন ঘন পরিবর্তন ও পরিষ্কার করা উচিত

যুক্তরাষ্ট্রের ‘ইউনিভার্সিটি অফ নেব্রাস্কা-লিঙ্কন’য়ের কৃষি ও প্রাকৃতিক সম্পদ ইনিস্টিটিটিউটের তথ্যানুসারে, কত দ্রুত এই তোয়ালে ধুতে বা পাল্টাতে হবে তা কিছু  বিষয়ের ওপর নির্ভর করবে।

যেমন- কী কাজের জন্য, কীভাবে তা ব্যবহার করা হচ্ছে।

ব্যাক্টেরিয়া বাড়ায় এমন জিনিস যেমন- কাঁচা মাংস, হাঁস-মুরগি বা সামুদ্রিক খাবারের রস বা পানি ইত্যাদি মোছা হলে সঙ্গে সঙ্গেই তোয়ালে পরিবর্তন করতে হবে।

এসব তোয়ালে পরিষ্কারের সময় গরম পানি ব্যবহার করা উচিত বলে মনে করে, ইউএসডিএ।

ছবি: রয়টার্স।

আরও পড়ুন

গরম করা উচিত না  

খাবার পুনরায় গরম করে খাওয়া নিরাপদ নয়  

ঘরের যে স্থানগুলো পরিষ্কার রাখা জরুরি  

ঘরের যে জিনিসগুলো পরিষ্কার রাখা জরুরি  

রান্নার পাত্র থেকে দাগ তুলতে