স্মৃতিভ্রংশের পূর্বাভাস

  • লাইফস্টাইল ডেস্ক, বিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম
    Published: 2021-06-01 12:41:23 BdST

bdnews24

পরিচিত খাবারের স্বাদ যদি অপরিচত লাগতে শুরু করে তবে সেটা হতে পারে স্মৃতিভ্রংশের প্রাথমিক লক্ষণ।

‘ডিমেনশা’ বা স্মৃতিভ্রংশ রোগে যারা আক্রান্ত হন তাদের অনেকেই এই উপসর্গগুলো চিহ্নিত করতে পারেন না।

স্মৃতিশক্তি লোপ পাওয়ার পূর্বাভাস শনাক্ত করে তা মনে রেখেই রোগীকে চিকিৎসা নিতে হবে, আর সেই মনে রাখতে না পারাটাই হলো রোগ। এজন্য স্মৃতিভ্রংশের পূর্বাভাসগুলো জানা থাকা অত্যন্ত জরুরি।

যদিও এই রোগের এখন পর্যন্ত কোনো নিশ্চিত চিকিৎসা নেই। তবে প্রাথমিক অবস্থায় শনাক্ত করতে পারলে রোগের তীব্রতা কমানোর ব্যবস্থা নেওয়া যায়।

স্বাস্থ্যবিষয়ক ওয়েবসাইট ‘বেস্ট লাইফ অনলাইন ডটকম’য়ে প্রকাশিত এক প্রতিবেদনে বিভিন্ন বিশেষজ্ঞের পরামর্শের আলোকে সেই পূর্বাভাসগুলো তুলে ধরা হল।

খাবারে ধাতব স্বাদ

খাবারের স্বাদ ধাতব মনে হওয়া কমানোর জন্য তৈরি করা মাউথওয়াশ ‘মেটাকিল’য়ের নির্মাতারা বলেন, “শরীরের যেসব স্থানে পাঁচ ইন্দ্রিয়ের সংকেতগুলো অনুভূত হয় সেসব স্থানে মস্তিষ্ক শক্তিশারী সংকেত পাঠাতে পারে না যদি কোনো ব্যক্তি স্মৃতিভ্রমে আক্রান্ত হয়। ফলে ইন্দ্রিয়ানুভূতিতে দ্বিধা তৈরি হয়, যার একটি বহিঃপ্রকাশ হল স্বাদজনীত অস্বাভাবিক অনুভূতি।”

“বয়সের সঙ্গে ইন্দ্রিয় দুর্বল হয় ঠিক, তবে ‘ডিমেনশা’ হলে সেই দুর্বল হওয়ার গতি কয়েকগুন বেড়ে যায়। আর মস্তিষ্ক যেহেতু পুরো শরীর নিয়ন্ত্রণের কেন্দ্র, তাই সেখানে কোনো রোগ হলে তার প্রভাব পুরো শরীরেই পড়ে।”

স্বাদ না পাওয়া থেকে পুষ্টিহীনতা

আমেরিকান জার্নাল অফ মেডিসিন’য়ে ২০১৬ সালে প্রকাশিত এক গবেষণা বলে, “স্বাদ ও গন্ধের অনুভূতিতে সমস্যা তৈরি হওয়ার কারণে যেকোনো ব্যক্তি খাওয়া প্রতি রুচি হারাবে। পর্যাপ্ত খাবার গ্রহণ না করলে স্বাভাবিকভাবেই শরীরের পুষ্টির ঘাটতি তৈরি হবে। ফলে শক্তি, পেশি, নড়াচড়ার ক্ষমতা, জীবনের মান সবই কমতে থাকবে ক্রমেই।”

স্বাস্থ্যের অবনতি

খাবারের স্বাদ অদ্ভুত হওয়ার কারণে কেউ আবার বেশি খাওয়াও শুরু করতে পারেন আগের মতো স্বাদ উপভোগ করার আশায়।

এই বিষয়য়ে ২০১৬ সালের ওই গবেষণা বলে, “খাবারে আগের মতো স্বাদ অনুভূত না হলে মানুষ লবণ ও চিনির প্রতি বেশি নির্ভরশীল হতে থাকে। আর এই দুই উপাদানই ডেকে আনে অসংখ্য দূরারোগ্য ব্যধি। আর বৃদ্ধ বয়সে এদের কুপ্রভাব কয়েকগুন বেশি তীব্র হয়।”

ধাতব স্বাদের ভিন্ন ইঙ্গিত

কিছু দুর্লভ ক্ষেত্রে বৃক্ক কিংবা যকৃত নষ্ট হওয়া, ক্যান্সার, ডায়াবেটিস ইত্যাদির কারণে রোগী মুখে ধাতব কিংবা অদ্ভুত কোনো স্বাদ অনুভব করেছেন এমন নজির আছে বলে দাবি করেন বিশেষজ্ঞ চিকিৎসকরা।

‘ক্লিভল্যান্ড ক্লিনিকের দাবি, “মুখগহ্বর পরিষ্কার না করা, গর্ভধারণ, কিছু ওষুধের কারণে মুখে ধাতব কিংবা অস্বাভাবিক স্বাদ অনুভূত হতে পারে। তাই এক্ষেত্রে চিকিৎসকের পরামর্শ নিতে দেরি না করাই বুদ্ধিমানের কাজ হবে।”

আরও পড়ুন

বেশি জ্ঞানে মতিভ্রম  

ডায়াবেটিস ও বিষন্নতায় ‘স্মৃতিলোপ’  

বয়সের সঙ্গে আস্থাও বাড়ে