পছন্দের খবর জেনে নিন সঙ্গে সঙ্গে

রূপচর্চায় ভিটামিন সি সম্পর্কিত ভ্রান্ত ধারণা

  • লাইফস্টাইলডেস্ক, বিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম
    Published: 2021-08-29 16:50:24 BdST

bdnews24

অনেকেই মনে করেন ভিটামিন সি ত্বকে বিবর্ণভাব ফেলে। তবে সেটা সত্যি নয়।

ভিটামিন সি ত্বকের জন্য জরুরি ও উপকারী উপাদান। সিরাম, ফেইস ওয়াশ, ময়েশ্চারাইজার ও নানান প্রসাধনীতে ভিটামিন সি’য়ের ব্যবহার দেখা যায়।

বিভিন্ন গবেষণায় দেখা গেছে- ত্বক উজ্জ্বল করতে, বিবর্ণতা ও কালোছোপ কমাতে এমনকি কোলাজেনের মাত্রা বাড়াতে ভিটামিন সি ইতিবাচক ভূমিকা রাখে।

এত উপকারিতার পাশাপাশি ভিটামিন সি সম্পর্কে রয়েছে বেশ কিছু প্রচলিত ভুল ধারণা।

‘হ্যালো গিগিলস ডটকম’য়ে প্রকাশিত প্রতিবেদন থেকে জানানো হল বিস্তারি।

ভ্রান্ত ধারণা: সব ভিটামিন ‘সি’ একই রকম

ক্যালিফোর্নিয়ার ত্বকপরিচর্যার ব্র্যান্ড ‘একাডার্মা’র প্রতিষ্ঠাতা ও কস্মেটিক রসায়নবিদ ডা. শাটিং হু বলেন, “ত্বকের যত্নে নানান রকম ভিটামিন সি ব্যবহৃত হয়। এদের প্রত্যেকের ভিন্ন ভিন্ন কাজ করে।”

যেমন- অ্যাসকরবিক অ্যাসিড সবচেয়ে খাঁটি, কার্যকর এবং ভিটামিন সি’র মধ্যে সবচেয়ে বেশি পরীক্ষিত।

যুক্তরাষ্ট্রের প্রসাধনী নির্মাতা প্রতিষ্ঠান ‘ড্রাংক এলিফ্যান্ট’য়ের প্রতিষ্ঠাতা টিফ্যানি মাস্টারসন এর গুণাগুণ ও উপকারিতার জন্য ভিটামিন সি’কে ‘গোল্ড স্ট্যান্ডারড’ বলে অভিহিত করেন।

“অ্যাসকরবিক অ্যাসিড কার্যকর অ্যান্টিঅক্সিডেন্ট হিসেবে কাজ করে। ফলে পরিবেশের উন্মুক্ত রেডিকেলের কারণে হওয়া বয়সের ছাপ, ত্বকের ভারসাম্যহীনতা ও মলিনতা কমাতে সহায়তা করে” বলেন তিনি।

এছাড়াও, এর প্রদাহরোধী উপাদান লালচেভাব ও ত্বকের অস্বস্তি কমাতে সহায়তে করে।

ডা. হু বলেন, “অ্যাসকরবিক অ্যাসিড সহজেই বিবর্ণ হয়ে যায় এবং এর প্রভাব পড়ে কার্যকারিতার ওপরে। ফলে ত্বকে সংবেদন দেখা দিতে পারে।”

তিনি আরও বলেন, “অন্যদিকে অ্যাসকরবিক অ্যাসিড পলিপেপটাইড ভিটামিন সি’র স্থায়ী অবস্থা যা বিবর্ণতা ও অস্বস্তির ঝুঁকি ছাড়াই ভিটামিন সি’য়ের উপকারিতা দান করে।”

ভিটামিন সি’য়ের বিবর্ণতা এড়াতে সূর্যের আলো থেকে দূরে রাখার জন্য তা কালো কাঁচের পাত্রে সংরক্ষণ করা হয়। 

ভ্রান্ত ধারণা: ভিটামিন সি সূর্যের আলোতে সংবেদনশীলতা বাড়ায়

মাস্টারসন বলেন, “ভিটামিন সি ত্বক এক্সফলিয়েট করে না তাই এতে সংবেদনশীলতা সৃষ্টি হয় না। গবেষণা অনুযায়ী সানস্ক্রিন ব্যবহারের আগে ভিটামিন সি সেরাম ব্যবহার সুরক্ষার দ্বিতীয় স্তর হিসেবে কাজ করে। এছাড়াও, ত্বকে অ্যান্টিঅক্সিডেন্ট বাড়ায় ও সুরক্ষার স্তর দৃঢ় করে।”

ক্যান্ডেস ম্যারিনো হলিউডের জনপ্রিয় সৌন্দর্যবিদ এবং ফেইশল বিশেষজ্। তিনিও ত্বকের যত্নে সকালে এই দুই ধাপ অনুসরণ করা উচিত বলে মনে করেন।

ভ্রান্ত ধারণা: ভিটামিন সি সক্রিয় উপাদান হিসেবে ব্যবহার করা যায় না

এটা ত্বকের ধরন ও সহ্য ক্ষমতার ওপর নির্ভর করে। ত্বকের ধরন ভেদে কিছু ভিটামিন সি এক্সফলিয়েটিং উপাদান আলফা হাইড্রোক্সি অ্যাসিড (এএইচএ), বিটা হাইড্রোক্সি অ্যাসিড (বিএইচএ) বা রেটিনলের সঙ্গে দ্বন্দ্ব সৃষ্টি করতে পারে।

ম্যারিনো ত্বকে ভিটামিন সি ব্যবহারের পরে ধীরে ধীরে অন্যান্য প্রয়োজনীয় অ্যাসিড ও রেটিনল ব্যবহার শুরু করার পরামর্শ দেন। এতে ত্বক সহিষ্ণু হয়ে উঠবে।

মাস্টারসনের মতে, “ভিটামিন সি কিছু কার্যকর উপাদানের সঙ্গে ভালো কাজ করে। যেমন- সানস্ক্রিনের নিচে ভিটামিন সি সেরাম ত্বকের সুরক্ষার স্তর আরও জোরালো করে এবং পেপটাইডের সঙ্গে ভিটামিন সি ব্যবহার কোলাজেন বাড়াতে ও সুরক্ষার স্তর ভালো রাখতে সাহায্য করে।”

ভ্রান্ত ধারণা: ভিটামিন সি বিবর্ণতা বাড়ায়

মাস্টারসন বলেন, “বরং ভিটামিন সি বিশেষত, অ্যাসকরবিক অ্যাসিড ত্বকের রংয়ের ভারসাম্যহীনতা ও বিবর্ণতা কমাতে সহায়তা করে।”

তিনি আরও বলেন, “অ্যাসকরবিক অ্যাসিড বাড়তি মেলানিন উৎপাদন কমায়। ফলে বাদামি দাগ, প্রদাহ ও দাগের গাঢ়ভাব কমাতে সহায়তা করে।”

ছবি: রয়টার্স।

আরও পড়ুন

ত্বকের যত্নে ভিটামিন ই  

ত্বকের যত্নে ভিটামিন সি সিরাম  

সুস্থ ত্বকের জন্য সাত পুষ্টি  

ত্বক ও চুলের যত্নে ভিটামিন ই ব্যবহারের পন্থা