পছন্দের খবর জেনে নিন সঙ্গে সঙ্গে

ডায়েট’য়ে থেকেও চকলেট খাওয়ার পন্থা

  • লাইফস্টাইলডেস্ক, বিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম
    Published: 2021-09-22 12:31:56 BdST

bdnews24
ছবি: রয়টার্স।

চকলেট খাবেন অথচ ওজন বাড়বে না।

ওজন কমানোর পন্থায় যখন পছন্দের খাবার খাদ্যাভ্যাস থেকে বাদ দিতে হয় তখন আফসোস হতেই পারে। আর যাদের চকলেট ভীষণ পছন্দ তাদের জন্য এই খাবার বাদ দেওয়া বেশ দুরুহ কাজ।

তবে ভারতীয় পুষ্টিবিদ ও ‘ডায়েট পডিয়াম’য়ের প্রতিষ্ঠাতা শিখা মহাজান বলছেন, “কিছুটা সচেতন হলে এবং খাবারে বৈচিত্র্য রাখলে পছন্দের চকলেট বাদ না দিয়েও ওজন নিয়ন্ত্রণে রাখা সম্ভব।

ফেমিনা ডটইন’য়ে প্রকাশিত প্রতিবেদনে ওজন বৃদ্ধি না করেও পছন্দের চকলেটের স্বাদ গ্রহণের উপায় সম্পর্কে তার দেওয়া পরামর্শগুলো এখানে দেওয়া হল।

মিষ্টির চাহিদা মেটাতে ছোট টুকরার চকলেট খাওয়া: প্রতিদিন ছোট এক টুকরা চকলেট খেয়েও ওজন কমানো যায়। তবে এর পরিমাণের দিকে খেয়াল রাখতে হবে। যদি স্বাস্থ্যকর খাদ্যাভ্যাসে অভ্যস্ত হয়ে থাকেন তাহলে সামান্য পরিমাণ মিষ্টি খাবার ওজন নিয়ন্ত্রণে তেমন কোনো বাধার সৃষ্টি করবে না।

ডার্ক চকলেট: ওজন কমাতে চাইলে ডার্ক চকলেট খাওয়া উপকারী। ৭০ শতাংশের বেশি কোকোয়া সমৃদ্ধ চকলেট খাওয়া বিপাক বাড়ায়, পেট ভরা রাখে ও ইনসুলিনের মাত্রা নিয়ন্ত্রণে রাখতে সহায়তা করে।

ডার্ক চকলেট কেবল স্বাস্থ্যকরই না বরং তা জটিল স্বাদ সমৃদ্ধ যা সাধারণ দুধ-চিনি সমৃদ্ধ চকলেটের চেয়ে বেশি বেশিক্ষণ পেট ভরা রাখে। 

অন্য খাবারের সঙ্গে মেশানো: সকালের নাস্তায় চকলেট পাউডার বা দইয়ের সঙ্গে কয়েকটা চকলেট চিপস যোগ করে খেতে পারেন। এছাড়াও ক্ষুধাভাব কমাতে পছন্দের কফির সঙ্গে চকলেটের গুঁড়া মেশানো যেতে পারে।

অপ্রক্রিয়াজাত উপাদান যেমন- কাজু বাদাম, কাঠ বাদাম, তিলে বীজ বা বেরির সঙ্গে কোকোয়া যোগ করে খাওয়া পুষ্টিমান বাড়াতে সহায়তা করে।

চকলেটের বিকল্প: চকলেটে প্রচুর শর্করা ও চর্বি থাকে। তাই কিছুটা কম ক্যালরি সমৃদ্ধ চকলেট মুসেজ, কম ক্যালরি যুক্ত চকলেটের মিষ্টান্ন ও ‘হট চকলেট’ পানীয় গ্রহণ করা যেতে পারে।

 

আরও পড়ুন

চকলেটেও রয়েছে বিষাক্ত উপাদান  

ত্বকের জন্য চকলেট  

যেসব মিষ্টি খাবার ওজন কমানোতে সমস্যা করে না