পছন্দের খবর জেনে নিন সঙ্গে সঙ্গে

শুষ্ক ত্বকের অধিকারীদের গোসলের ক্ষেত্রে যা মনে রাখা প্রয়োজন

  • লাইফস্টাইল ডেস্ক, বিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম
    Published: 2021-12-30 15:01:24 BdST

bdnews24
ছবি: রয়টার্স।

গোসলের পরে ত্বকের ধরন অনুযায়ী প্রসাধনী ব্যবহার সুরক্ষার ওপরেও প্রভাব রাখে।

শুষ্ক ত্বকের অধিকারীদের জন্য গোসলের উপযোগী উপায় সম্পর্কে বিশেষজ্ঞদের মতামত জানানো হল ওয়েলঅ্যান্ডগুড ডটকমে প্রকাশিত প্রতিবেদন অবলম্বনে।

দেহের ত্বক ভালো রাখতে মুখের ত্বকের মতো এর দৈনিক পরিচর্যার প্রয়োজন। শীতে সাবান, পানি ও গরম পানিতে আরামদায়ক গোসলের পরে এর আর্দ্রতা রক্ষা করতে ময়েশ্চারাইজারের প্রয়োজন।

ত্বক শুষ্ক হলে এর গুরুত্ব আরও বেশি। ত্বকের ধরন অনুযায়ী প্রসাধনী ব্যবহার ত্বক সুরক্ষিত রাখতে সহায়তা করে।

গরম পানিতে গোসল বাদ দেওয়া

শীতকালে গরম পানিতে গোসল বেশ আরামদায়ক তবে ত্বক বিশেষজ্ঞরা মনে করেন পানির উষ্ণতার মাত্রা কম হওয়াই ভালো। গরম পানি ত্বকের প্রয়োজনীয় লিপিড ও প্রোটিন শুষে নেয় ফলে ত্বক হয়ে যায় শুষ্ক ও খসখসে। তাই গরম পানিতে গোসল করলে চাইলে তা কুসুম গরম হওয়া উচিত।

ত্বক সবসময় এক্সফলিয়েট না করা

ত্বকের মৃত কোষ দূর করতে স্ক্রাব করা প্রয়োজন। এটা ত্বকে বেশ সতেজ ভাবও আনে। তবে ঘন ঘন স্ক্রাব ব্যবহার ত্বকের সুরক্ষার স্তর ভেঙে দেয়। আর্দ্রতা হ্রাস পাওয়াতে ত্বক হয়ে পড়ে মলিন, শুষ্ক ও খসখসে।

স্ক্রাবের মাধ্যমে অতিরিক্ত আর্দ্রতা হ্রাস পাওয়াতে ত্বক ফাটা ও জ্বলুনির মতো সমস্যা দেখা যায়।

সপ্তাহে দুই দিন ত্বক এক্সফলিয়েট করা ত্বকের জন্য নিরাপদ।

সংবেদনশীল ত্বকের জন্য উপকারী সাবান ব্যবহার

শীতের ঠাণ্ডা বাতাস ও শুষ্ক আবহাওয়া ত্বককে অনেক সংবেদনশীল করে তোলে। তাই এই সময়ে সুগন্ধিযুক্ত সাধারণ ‘বডি ওয়াশ’ ব্যবহার না করে বরং সংবেদনশীল ত্বকের জন্য তৈরি এমন প্রসাধানী ব্যবহার করা প্রয়োজন।

গোসলে কম সময় ব্যয় করা

গোসলে কম সময় ব্যয় করা কেবল পরিবেশের জন্যই না বরং ত্বকের সুরক্ষার স্তরের জন্যও ভালো, এতে ত্বকে অতিরিক্ত শুষ্কতা বা জ্বলুনি দুটোই কমে।  

যুক্তরাষ্ট্রের ত্বক বিশেষজ্ঞ ডা মারিসা গার্সিক পরামর্শ দেন, “বেশি সময় পানির সংস্পর্শে থাকা বিশেষত গরম পানির সংস্পর্শে থাকা ত্বককে শুষ্ক করে তোলে এবং অস্বস্তি বাড়ায়। তাই গোসলের জন্য দশ মিনিট সময় নির্ধারণ করা উচিত যা ত্বকের কোনো ক্ষতি না করেও ত্বক পরিষ্কার করবে এবং সুরক্ষা বজায় রাখবে।”

আলতো করে মোছা ও ময়েশ্চারাইজার ব্যবহার

দশ মিনিট পানির সংস্পর্শে থাকার পরে আলতোভাবে ত্বক মুছে নিতে হবে এবং আর্দ্রতা রক্ষা করতে লোশন বা ক্রিম সারা দেহে ব্যবহার করতে হবে।

আরেক ত্বক বিশেষজ্ঞ সিপোরা শেইনহাউজের ভাষায়, “গোসলের পরে শরীর হালকা আর্দ্র থাকা অবস্থায় ময়েশ্চারাইজার ব্যবহার করার উপযুক্ত সময়, এতে শীতেও দেহের আর্দ্রতা বজায় থাকে।”

আরও পড়ুন

শুষ্ক ত্বকের প্রাকৃতিক সমাধান  

শীতের শুষ্কতা যেন ত্বকে না পড়ে  

দূরে থাক ঠোঁটের শুষ্কতা