পছন্দের খবর জেনে নিন সঙ্গে সঙ্গে

অনলাইন কুইজ প্রতিযোগিতা ‘মুজিব অলিম্পিয়াড’ শুরু

  • জ্যেষ্ঠ প্রতিবেদক, বিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম
    Published: 2021-06-15 19:11:55 BdST

মুজিববর্ষ উপলক্ষে বঙ্গবন্ধুকে নিয়ে শুরু হল আন্তর্জাতিক অনলাইন কুইজ প্রতিযোগিতা 'মুজিব অলিম্পিয়াড: বঙ্গবন্ধু ও বাংলাদেশ চর্চা'।

তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি বিভাগের আইসিটি অধিদপ্তর আয়োজনে 'মুজিব অলিম্পিয়াড’ এর মূল লক্ষ্য হল জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের ব্যক্তিজীবন, রাজনৈতিক ও রাষ্ট্রীয় কর্মজীবন সম্পর্কিত বিষয়গুলো নতুন প্রজন্মের কাছে তুলে ধরা।

তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি বিভাগ এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে জানিয়েছে, প্রতিমন্ত্রী জুনাইদ আহমেদ পলক মঙ্গলবার ভার্চুয়াল এক অনুষ্ঠানে মুজিব অলিম্পিয়াড প্রতিযোগিতার আনুষ্ঠানিক উদ্বোধন করেন।

‘জীবন সংগ্রামে জয়ী হতে বঙ্গবন্ধুর আদর্শ চলার পথের’ মন্তব্য করে প্রতিমন্ত্রী বলেন, “বঙ্গবন্ধু তার সারাজীবন মানুষের জন্য, দেশের জন্য উৎসর্গ করেছেন। বঙ্গবন্ধুর দূরদর্শিতা, প্রজ্ঞা, সাহস, মেধা এবং আবেগ ও ভালোবাসার কারণে দেশের সাড়ে ৭ কোটি মানুষ মুক্তিযুদ্ধে ঐক্যবদ্ধ হয়ে সশস্ত্র সংগ্রামের মধ্যে দিয়ে স্বাধীন সার্বভৌম বাংলাদেশ উপহার দিয়েছে।”

বিশ্বের বাংলা ভাষাভাষী এবং প্রবাসী বাংলাদেশিদের এ অলিম্পিয়াডে অংশগ্রহণের আহ্বান জানান প্রতিমন্ত্রী পলক।

দেশের শিল্পী, সাহিত্যিক এবং সৃজনশীল মেধাবী প্রজন্ম এখন তাদের সৃষ্টিগুলোতে প্রযুক্তি ব্যবহার করছে মন্তব্য করে তিনি বলেন, বঙ্গবন্ধুর জীবনী নিয়ে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার লেখা ‘মুজিব আমার পিতা’ প্রবন্ধটি অবলম্বনে একটি পূর্ণদৈর্ঘ্য অ্যানিমেশন ফিল্ম তৈরি করা হয়েছে, যা ২০২১ সালের মধ্যে মুক্তি পাবে।

মুজিব অলিম্পিয়াড হবে ২৫ জুন বিকাল ৩টা থেকে রাত ১২টা পর্যন্ত। নিবন্ধন করা যাবে ২৪ জুন মধ্যরাত ১২টা পর্যন্ত।

মুজিব অলিম্পিয়াড সম্পর্কে বিস্তারিত জানতে ও রেজিস্ট্রেশন করতে হবে এ প্রতিযোগিতার ওয়েবসাইট (https://www.mujibolympiad.gov.bd/register) থেকে।

এছাড়া https://mujib100sfc.gov.bd/ ওয়েবসাইটে বঙ্গবন্ধুর ওপর ফিল্ম জমা দেওয়া যাবে। 'আমার বঙ্গবন্ধু' শীর্ষক ভিডিওর বিষয়ে বিস্তারিত জানা যাবে www.amarbangabandhu.gov.bd ওয়েবসাইটে।

এছাড়া রয়েছে অডিও বুক যা বঙ্গবন্ধুর নিজের লেখা বই এর অডিও বুক অ্যাপ, ওয়েবসাইট ও ভিডিও। https://www.mujib100aubk.gov.bd ওয়েবসাইটে এ বিষয়ে বিস্তারিত জানা যাবে।

তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি বিভাগের সিনিয়র সচিব এন এম জিয়াউল আলমের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি অধিদপ্তরের মহাপরিচালক এ বি এম আরশাদ হোসেন বক্তব্য দেন। প্রতিযোগিতার বিস্তারিত তুলে ধরেন আইসিটি বিভাগের সহকারী প্রোগ্রামার সৈয়দ ইশতিয়াক আহমেদ।