২১ সেপ্টেম্বর ২০১৯, ৬ আশ্বিন ১৪২৬

ভারতীয় হিসেবে যে গর্ব ছিল, তা হারালাম: অমর্ত্য সেন

  • নিউজ ডেস্ক বিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম
    Published: 2019-08-20 18:47:50 BdST

bdnews24

কাশ্মীর নিয়ে নরেন্দ্র মোদী সরকারের পদক্ষেপের তীব্র সমালোচনা করলেন নোবেলবিজয়ী ভারতীয় অর্থনীতিবিদ অমর্ত্য সেন।

তিনি বলেছেন, ভারতের গণতন্ত্রের জন্য ভারতীয় হিসেবে যে গর্ব অনুভব করতেন তিনি, এই পদক্ষেপের পর আর তা অনুভব করছেন না।

আকস্মিক এক পদক্ষেপে গত ৫ অগাস্ট মোদী সরকার জম্মু ও কাশ্মীরের বিশেষ রাজ্যের মর্যাদা বাতিল করে অঞ্চলটিকে পুরোপুরি ভারতের সঙ্গে যুক্ত করার ঘোষণা দেয়।  

এই পদক্ষেপে কাশ্মীরিরা ব্যাপক অসন্তোষ প্রকাশ করছে, মোদী সরকারের সমালোচনা হচ্ছে নানা মহলেই।

সোমবার এনডিটিভিকে দেওয়া এক সাক্ষাৎকারে অমর্ত্য সেন বলেন, “ভারতীয় হিসেবে আমার গর্ব ছিল এই জন্য যে গোটা বিশ্বে গণতন্ত্রের জন্য এত কিছু করেছে ভারত।

“তবে এখন আর আমি একজন ভারতীয় হিসাবে এই সত্য নিয়ে গর্বিত নই যে ভারতই গণতন্ত্রের পক্ষে প্রথম প্রাচ্যের দেশ ছিল। কেননা যে পদক্ষেপ নেওয়া হয়েছে তাতে আমরা সেই অবস্থান হারিয়ে ফেলেছি।”

কাশ্মীর নিয়ে মোদী সরকারের পদক্ষেপে মানুষের অধিকারে প্রশ্নটিও খর্ব হয়েছে বলে মনে করেন নোবেলজয়ী এই বাঙালি।

তিনি বলেন, “আমি মনে করি না যে গণতন্ত্র ছাড়া কোনোভাবে কাশ্মীর সমস্যার সমাধান করা সম্ভব।”

সরকার নিরাপত্তার যে বিষয় বলছে, তার পরিপ্রেক্ষিতে অমর্ত্য সেন বলেন, “এটি ঔপনিবেশিক অজুহাত। ব্রিটিশরা এভাবেই ২০০ বছর ধরে দেশ চালিয়েছিল।”

কাশ্মীরিরা বলছে, তাদের মতামতের তোয়াক্বা না করেই রাজ্যের বিশেষ মর্যাদা রদ করা হয়েছে, যার মধ্য দিয়ে সংবিধানের শর্তের ব্যত্যয় ঘটেছে।

মর্যাদা পরিবর্তনের কারণে আগে এখন কাশ্মীরের  নিজস্ব সংবিধান, পতাকা, দণ্ডবিধি থাকছে না এবং ওই রাজ্যে ভারতীয় যে কেউ জমি কিনতে পারবে।

এই সব বিষয়ে কাশ্মীরিদের মতামত শোনার উপর গুরুত্ব দিয়ে অমর্ত্য সেন বলেন, “রাজ্যের জনগণের (জম্মু ও কাশ্মীর) কথা ভেবেও কিছু সিদ্ধান্ত নেওয়া উচিৎ। এটি এমন একটি বিষয় যেখানে কাশ্মীরিদের বৈধ দৃষ্টিভঙ্গি রয়েছে, কারণ যে এটি তাদের জমি।”

জম্মু ও কাশ্মীরের রাজনৈতিক নেতাদের গ্রেপ্তারের সমালোচনাও করেন অমর্ত্য সেন।

“জনগণের নেতাদের কণ্ঠস্বর না শুনে আপনারা ন্যায়বিচার করতে পারেন বলে আমি মনে করি না এবং যদি আপনি হাজার হাজার নেতার মুখ বন্ধ রাখেন, তাদের অনেককে কারাগারে আটকে রাখেন... তাহলে আপনি গণতন্ত্রের বৈশিষ্ট্যকে দমন করছেন।”

আরও খবর

জয় শ্রী রাম স্লোগান এখন ব্যবহৃত হচ্ছে মানুষ পেটাতে: অমর্ত্য সেন