২০ নভেম্বর ২০১৯, ৫ অগ্রহায়ণ ১৪২৬

নকল ঠেকাতে পরীক্ষার্থীদের মাথায় কার্ডবোর্ডের বাক্স!

  • নিউজ ডেস্ক, বিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম
    Published: 2019-10-19 15:32:48 BdST

bdnews24

পরীক্ষার হলে নকল ঠেকাতে শিক্ষার্থীদের মাথায় কার্ডবোর্ডের বাক্স পরিয়ে তুমুল সমালোচনার মুখে পড়েছে ভারতের কর্নাটকের এক কলেজ।

শিক্ষার্থীদের সঙ্গে এ ধরনের ‘অমানবিক আচরণের’ কারণ দর্শাতে কলেজটির ব্যবস্থাপনা কমিটিকে নোটিশ দিয়েছে রাজ্যটির প্রি-ইউনিভার্সিটি এডুকেশন বোর্ড ; দায়ীদের শাস্তি দেওয়া হবে বলেও আশ্বস্ত করেছে তারা।

বুধবার ভগত পিইউ কলেজের প্রথম বর্ষের শিক্ষার্থীদের রসায়ন মিডটার্ম পরীক্ষায় নকল ঠেকাতে এ অভিনব পদ্ধতি ব্যবহারের ছবি, ভিডিও সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমেও ভাইরাল হয়ে যায় বলে টাইমস অব ইন্ডিয়া জানিয়েছে।

ছবিতে সব পরীক্ষার্থীকে কার্ডবোর্ডের বাক্স পরেই পরীক্ষা দিতে দেখা যাচ্ছে। বাক্সগুলোর যে অংশ শিক্ষার্থীদের মুখের দিকে ছিল, কেবল সেদিকেই সামান্য ছিদ্র করা ছিল।

সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে এ ঘটনার কথা জানতে পেরে শিক্ষা বোর্ডের কর্মকর্তারা তাৎক্ষণিকভাবে ঘটনাস্থলে গিয়ে ভবিষ্যতে কখনোই যেন এ ধরনের ‘পাগলামি’ না করা হয়, সে জন্য কলেজ কর্তপক্ষকে সতর্ক করে দেন।

কর্তৃপক্ষ এ ধরনের কিছু চাপিয়ে দেয়ার চেষ্টা করলে শিক্ষার্থীদের বোর্ডের সঙ্গে যোগাযোগেরও পরামর্শ দেয়া হয়।

“এটা অমানবিক। সভ্য সমাজে এ ধরনের চিন্তা কখনোই গ্রহণযোগ্য হতে পারে না। শিক্ষার্থীদের নিয়ন্ত্রণ ও পরীক্ষার হলে নকল বা দেখাদেখি ঠেকাতে অনেক নিয়ম আছে, কলেজ কর্তৃপক্ষ চাইলে সেগুলোকে কাজে লাগাতে পারতো,” বলেছেন প্রি-ইউনিভার্সিটি বোর্ডের পরিচালক এসসি পীরজাদে।

কলেজ কর্তৃপক্ষের দাবি, শিক্ষার্থীদের সম্মতি নিয়েই তারা নকল ঠেকাতে এ ‘এক্সপেরিমেন্ট’ চালিয়েছিলেন।

“বোর্ডের নির্দেশনা মেনে চলবো আমরা। আমরা তাদের দেয়া সব নিয়মকানুন অনুসরণ করছি,” বলেছেন ভগত পিইউ কলেজের পরিচালকমণ্ডলীর সদস্য এমবি সতীশ।

গত মাসে মেক্সিকোর একটি কলেজের এক শিক্ষকও শিক্ষার্থীদের মাথায় জোর করে বাক্স চাপিয়ে দিয়েছিলেন। অভিভাবকরা কলেজিও দে বেচিলেরস দেল এস্তাদো দে ত্লাক্সকালার ওই শিক্ষককে বরখাস্তেরও দাবি জানিয়েছিলেন।