করোনাভাইরাস: পরিস্থিতি সামলাতে কারফিউ মহারাষ্ট্র-পাঞ্জাবে

  • নিউজ ডেস্ক, বিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম
    Published: 2020-03-23 20:57:39 BdST

bdnews24

ভারতে লাফিয়ে বাড়ছে করোনাভাইরাস আক্রান্ত রোগীর সংখ্যা। বাড়ছে মৃতের সংখ্যাও। বিভিন্ন রাজ্যে লকডাউনের পদক্ষেপ নিয়ে ভাইরাসের বিস্তার ঠেকানোর চেষ্টা চলছে। তার মধ্যে লকডাউন ভাঙার প্রবণতাও দেখা যাচ্ছে মানুষের মধ্যে। ফলে পরিস্থিতি সামলাতে এবার জারি হয়েছে কারফিউ।

লকডাউন চলছিল মুম্বইয়ে। এবার গোটা রাজ্য জুড়েই জারি হয়েছে কারফিউ। সোমবার মহারাষ্ট্রের মুখ্যমন্ত্রী উদ্ধব ঠাকরে এ ঘোষণা দিয়েছেন। করোনাভাইরাস আক্রান্ত এ মুহূর্তে মহারাষ্ট্রেই সবচেয়ে বেশি জানিয়ে তিনি বলেছেন, সংক্রমণ ঠেকাতেই এ কড়া ব্যবস্থা নেয়া হয়েছে।

আনন্দবাজার পত্রিকা জানায়, মহারাষ্ট্রে ১৪৪ ধারা জারি থাকার পরও রোববার রাজ্যের বহু জায়গাতেই মানুষ জমায়েত করেছে। এতে সংক্রমণ বাড়ার ঝুঁকি আছে বলেই মত বিশেষজ্ঞদের। তাই পরিস্থিতি সামলাতে সোমবার রাজ্য জুড়ে সরকার কারফিউ জারির এ পদক্ষেপ নিল।

লকডাউনে কাজ না হওয়ায় একই পদক্ষেপ নিয়েছে পাঞ্জাব সরকার। রাজ্য জুড়ে পাঞ্জাবই এদিন প্রথম কারফিউ জারি করেছে। পাঞ্জাবে আক্রান্তের সংখ্যা ২০ ছাড়িয়ে যাওয়ায় মুখ্যমন্ত্রী অমরেন্দ্র সিংহ জরুরি বৈঠক করে কারফিউ জারির সিদ্ধান্ত নেন।

কার্ফু চলাকালে কাউকে কোনো ছাড় দেওয়া হবে না। জরুরি প্রয়োজনে বাড়ির বাইরে বেরতে হলে, স্থানীয় প্রশাসনের কাছ থেকে আগে অনুমতি নিতে হবে। রাজ্য সরকার এ সম্পর্কিত নির্দেশ দেওয়ার পরই একাধিক জায়গায় তা কার্যকর করতে রাস্তায় নেমেছে পুলিশ। রোববার ভারতে ‘জনতা কার্ফু’ পালনের পর একাধিক রাজ্যে লকডাউন ঘোষণা করা হয়।