ভারতে ২৪ ঘণ্টায় সাড়ে ৬ হাজারের বেশি আক্রান্ত শনাক্ত

  • নিউজ ডেস্ক, বিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম
    Published: 2020-05-23 12:41:54 BdST

bdnews24

সংক্রমণ মোকাবেলায় কঠোর লকডাউনের ‍বিধিনিষেধ শিথিল হওয়ার পর থেকে ভারতে প্রতিদিনই নতুন করোনাভাইরাসে আক্রান্তের সংখ্যা আগের দিনের রেকর্ড ছাড়িয়ে যাচ্ছে।

শুক্রবার সকাল থেকে শনিবার সকাল পর্যন্ত ২৪ ঘণ্টায় দেশটিতে নতুন ৬ হাজার ৬৫৪ রোগী শনাক্ত হয়েছে। আগের ২৪ ঘণ্টায় শনাক্ত আক্রান্তের সংখ্যা ছিল ৬ হাজার ৮৮।

সরকারি হিসাবে শনিবার সকাল পর্যন্ত ভারতে কোভিড-১৯ এ আক্রান্তের সংখ্যা বেড়ে এক লাখ ২৫ হাজার ১০১ এ দাঁড়িয়েছে বলে এক প্রতিবেদনে জানিয়েছে এনডিটিভি।   

ভারতের স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয় ২৪ ঘণ্টায় করোনাভাইরাসে নতুন আরও ১৩৭ জনের মৃত্যুর খবর নিশ্চিত করেছে। সব মিলিয়ে দেশটিতে কোভিড-১৯ এ মৃতের সংখ্যা তিন হাজার ৭২০ এ পৌঁছেছে।

আক্রান্ত সোয়া এক লাখের মধ্যে শনিবার পর্যন্ত ৫১ হাজার ৭৮৪ জন সুস্থ হয়ে বাড়ি ফিরেছেন বলেও কর্মকর্তারা জানিয়েছেন।

সংক্রমণ মোকাবেলায় ভারত সরকার মার্চের শেষেই দেশজুড়ে কঠোর লকডাউন দিয়েছিল।

দেশটির সরকারি তথ্যে দেখা যাচ্ছে, চতুর্থ ধাপে এসে লকডাউন শিথিলের পর মাত্র চারদিনেই ভারতে প্রায় ২৫ হাজার আক্রান্ত শনাক্ত হয়েছে।

বিধিনিষেধ শিথিল হলেও ভারত মাত্র দুই মাসের ব্যবধানে করোনাভাইরাস শনাক্তে পরীক্ষা শতগুণ বাড়িয়েছে বলে এনডিটিভির প্রতিবেদনে জানানো হয়েছে।

মার্চে দেশটি প্রতিদিন এক হাজার পরীক্ষা করতো, চলতি মাসে সেই সংখ্যা এক লাখে পৌঁছেছে।

ভারতে এখন প্রতি ১০ লাখ জনগোষ্ঠীর মধ্যে গড়ে ২ হাজার জনের পরীক্ষা হচ্ছে। স্পেন পরীক্ষা করছে প্রতি ১০ লাখে ৬৫ হাজার জনের; যুক্তরাষ্ট্র ও জার্মানিতে এ সংখ্যা ৩৮ হাজারের কাছাকাছি।

মহারাষ্ট্রেই শনিবার সকাল পর্যন্ত ২৪ ঘণ্টায় নতুন দুই হাজার ৯৪০ জনের দেহে নতুন করোনাভাইরাসের উপস্থিতি মিলেছে বলে ভারতের স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয় জানিয়েছে। রাজ্যগুলোর মধ্যে এরপর সবচেয়ে বেশি আক্রান্ত শনাক্ত হয়েছে তামিল নাডুতে, ৭৮৪ জন। 

ভারতের এ দুটি রাজ্যেই আক্রান্তের সংখ্যা প্রায় ৬০ হাজারের কাছাকাছি পৌঁছে গেছে।

দিল্লিতে শুক্রবার নতুন করে আরও ৬৬০ জন কোভিড-১৯ রোগী শনাক্ত হয়েছে। ভারতের এ রাজধানী শহরে ভাইরাস সংক্রমণের ‘হটস্পটের’ সংখ্যাও একদিনের মধ্যে ৭৯ থেকে বেড়ে ৯২ হয়েছে। 

বিধিনিষেধ শিথিলের পর থেকে আক্রান্তের সংখ্যায় উল্লম্ফন দেখে তামিল নাডু সোমবার থেকে অভ্যন্তরীণ রুটে ফ্লাইট চালুর সিদ্ধান্তটি পুনর্বিবেচনা করতে কেন্দ্রীয় সরকারকে অনুরোধ জানিয়েছে।

মহামারী আকারে ছড়িয়ে পড়া করোনাভাইরাসে শনিবার সকাল পর্যন্ত বিশ্বজুড়ে শনাক্ত আক্রান্তের সংখ্যা ৫২ লাখ পেরিয়ে ৫৩ লাখের দিকে ছুটছে; মৃতের সংখ্যা ছাড়িয়েছে ৩ লাখ ৩৮ হাজার।

আক্রান্তের তালিকায় শুক্রবার রাশিয়াকে টপকে দ্বিতীয় স্থানে উঠে এসেছে ব্রাজিল। যুক্তরাষ্ট্রের পর দক্ষিণ আমেরিকা ভাইরাসের প্রাদুর্ভাবের নতুন কেন্দ্র হতে যাচ্ছে বলে গত সপ্তাহেই বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার কর্মকর্তারা ধারণা দিয়েছিলেন।

ব্রাজিল ছাড়াও ওই অঞ্চলের পেরু ও চিলিতে আক্রান্তের সংখ্যা হু হু করে বাড়ছে।