মিয়ানমারে পার্লামেন্ট নির্বাচন ৮ নভেম্বর

  • >> রয়টার্স
    Published: 2020-07-01 22:27:36 BdST

bdnews24

মিয়ানমারে ৮ নভেম্বরে অনুষ্ঠিত হবে পার্লামেন্ট নির্বাচন। ইউনিয়ন ইলেকশন কমিশন (ইউইসি) এ তারিখ নির্ধারণ করেছে।

ইউইসি চেয়ারম্যানের বিবৃতি তুলে ধরে মিয়ানমারের রাষ্ট্রীয় টিভি এ খবর জানিয়েছে।

মিয়ানমারে প্রথম গণতান্ত্রিক সরকারের যাত্রা শুরুর পর দেশটিতে গণতান্ত্রিক সংস্কারের পথ পরিক্রমায় এ নির্বাচনকে এক গুরুত্বপূর্ণ পরীক্ষা হিসাবেই দেখছেন বিশ্লেষকরা।

মিয়ানমারে বহু বছর পর ২০১৫ সালে প্রথম গণতান্ত্রিক উপায়ে সবার অংশগ্রহণে সাধারণ নির্বাচন অনুষ্ঠিত হয়। তাতে নোবেল শান্তি পুরস্কারজয়ী নেত্রী অং সান সু চি বিপুল ভোটে জয়লাভ করে ক্ষমতায় আসেন।

এর মধ্য দিয়ে মিয়ানমারে কয়েক দশকের জান্তা শাসনের অবসান ঘটে। নতুন পার্লামেন্ট অধিবেশনের মধ্য দিয়ে দীর্ঘপ্রতীক্ষিত গণতন্ত্রের যাত্রা শুরু হয়।

কিন্তু ২০১৭ সালে সেনাবাহিনীর দমনপীড়নের মুখে লাখো রোহিঙ্গা মুসলিম মিয়ানমার ছেড়ে পালানোর ঘটনায় সু চির প্রশাসন ব্যাপক সমালোচনার শিকার হয়েছে এবং আন্তর্জাতিক চাপে পড়েছে।

সংবিধানের আওতায় মিয়ানমারে এখনো সেনাবাহিনীর হাত শক্তিশালী। গুরুত্বপূর্ণ মন্ত্রণালয়গুলোর ওপর সেনাবাহিনীর নিয়ন্ত্রণ আছে। তাছাড়া, পার্লামেন্টের ২৫ শতাংশ আসনও সেনাবাহিনীর জন্য সংরক্ষিত আছে।

বিশ্লেষকরা বলছেন, নির্বাচনে সু চির দল ‘ন্যাশনাল লিগ ফর ডেমোক্রেসি’ (এনএলডি) অন্যান্য দলের চেয়ে ভাল ফল করার আশা আছে। তবে দলটির সংখ্যাগরিষ্ঠতা কমতে পারে।

রাজনৈতিক বিশ্লেষক রিচার্ড হোরসে বলেন, এনএলডি নিয়ে সাম্প্রতিক সময়ে মিয়ানমারে গণ অসন্তোষ আছে। বিশেষ করে সংখ্যালঘু জাতিগত সম্প্রদায়ের মধ্যে।

তবে নেত্রী সু চির জনপ্রিয়তা মিয়ানমারে এখনো তুঙ্গে। তাই নির্বাচনে এনএলডি’র বিপুল ভোটে জয়ের সম্ভাবনাও উড়িয়ে দেওয়া যায় না বলেও জানান তিনি।