বিজেপি নেতৃত্বাধীন জোট ছাড়ল পাঞ্জাবের আকালি দল

  • নিউজ ডেস্ক, বিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম
    Published: 2020-09-27 17:29:41 BdST

bdnews24
সাংবাদিক সম্মেলনে বিজেপি নেতৃত্বাধীন এনডিএ জোট ছাড়ার ঘোষণা দেন পাঞ্জাবের শিরোমনি আকালি দলের প্রধান সুখবির সিং বাদল। ছবি টুইটার থেকে নেওয়া

ভারতের পার্লামেন্টে পাস হওয়া কৃষিখাত সংশ্লিষ্ট তিনটি বিল নিয়ে তীব্র মতবিরোধের জেরে ন্যাশনাল ডেমোক্র্যাটিক অ্যালায়েন্স (এনডিএ) ছাড়ার ঘোষণা দিয়েছে বিজেপির পুরনো মিত্র পাঞ্জাবের প্রভাবশালী শিরোমনি আকালি দল।

শনিবার রাতে দলটির প্রধান সুখবির সিং বাদল ক্ষমতাসীন জোট  ছাড়ার সিদ্ধান্তের কথা জানান বলে এক প্রতিবেদনে জানিয়েছে হিন্দুস্তান টাইমস।  

“আজ রাতে শিরোমনি আকালি দলের সিদ্ধান্ত গ্রহণকারী সর্বোচ্চ পরিষদ কোর কমিটির জরুরি বৈঠকে সদস্যরা সর্বসম্মতভাবে বিজেপি নেতৃত্বাধীন এনডিএ জোট থেকে বেরিয়ে যাওয়ার সিদ্ধান্ত নিয়েছে,” চন্ডিগড়ে সাংবাদিকদের বলেছেন বাদল।

চলতি মাসে পার্লামেন্টে পাস হওয়া কৃষি সংস্কার বিলগুলোকে পাঞ্জাবের কৃষকদের জন্য ‘প্রাণঘাতী ও ধ্বংসাত্মক’ বলেও অভিহিত করেছেন তিনি। 

কৃষি বিল নিয়ে মতবিরোধের পাশাপাশি পাঞ্জাব এবং শিখদের নানান ইস্যু বিশেষ করে জম্মু ও কাশ্মীরের দাপ্তরিক ভাষা থেকে পাঞ্জাবিকে বাদ দেওয়াও জোট ছাড়ার সিদ্ধান্ত নেওয়ায় ভূমিকা রেখেছে বলে জানান আকালি দলপ্রধান।

আকালির আগে বিভিন্ন বিষয়ে মতবিরোধের জেরে শিব সেনা ও তেলেগু দেশম পার্টি এনডিএ জোট ছেড়েছিল।

বাদল জানান, তার দল শান্তি, সাম্প্রদায়িক সম্প্রীতি এবং পাঞ্জাব, পাঞ্জাবি ভাষা, শিখ ও কৃষকদের স্বার্থ সুরক্ষায় কাজ অব্যাহত রাখবে।

দলের সবস্তরের নেতাকর্মী এবং বিশেষত কৃষকদের সঙ্গে আলোচনার পরই এনডিএ জোট ছাড়ার সিদ্ধান্ত চূড়ান্ত হয়, বলেছেন তিনি।

কৃষি সংস্কার সংক্রান্ত বিলগুলো পার্লামেন্টে ওঠার পর থেকেই বিজেপি ও আকালি দলের মধ্যে দূরত্ব স্পষ্ট হচ্ছিল। গত সপ্তাহে বাদলের স্ত্রী হারসিমরত কৌর কেন্দ্রীয় মন্ত্রিসভা থেকে পদত্যাগ করলে আকালির জোট ছাড়ার গুঞ্জন শুরু হয়।

পার্লামেন্টে পাস হওয়া কৃষি সংক্রান্ত তিনটি বিলের প্রতিবাদে ভারতজুড়ে বিভিন্ন কৃষক সংগঠনের প্রতিবাদ অব্যাহত আছে। শুক্রবার ভারতজুড়ে বন্‌ধও পালিত হয়েছে।

তামিল নাডুর ক্ষমতাসীন অল ইন্ডিয়া আন্না দ্রাবিড়া মুনেত্রা কাজাঘাম (এআইএডিএমকে) পার্লামেন্টে পাস হওয়া কৃষি বিলে সমর্থন দেওয়ায় দলটির তুমুল সমালোচনা করেছেন ভারতের খ্যাতনামা অভিনেতা কমল হাসান।

“এই সমর্থন কি কৃষকদের সঙ্গে মুখ্যমন্ত্রী ইদাপ্পাদি পালানিস্বামীর বিশ্বাসঘাতকতা নয়?,” বলেছেন তিনি।

কৃষকদের ক্ষোভ-বিক্ষোভ আমলে নিয়ে পার্লামেন্টে অনুমোদিত বিলগুলোতে স্বাক্ষর না করে সেগুলো ফিরিয়ে দিতে কমল তার বিবৃতিতে রাষ্ট্রপতি রাম নাথ কোবিন্দের প্রতি অনুরোধও জানিয়েছেন।