পছন্দের খবর জেনে নিন সঙ্গে সঙ্গে

কোভিড-১৯: ভারতে এপ্রিলের পর সর্বনিম্ন দৈনিক শনাক্ত

  • নিউজ ডেস্ক বিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম
    Published: 2021-06-14 11:30:16 BdST

bdnews24

করোনাভাইরাস মহামারীর দ্বিতীয় ঢেউয়ে বিপর্যস্ত ভারতে দৈনিক শনাক্ত রোগীর সংখ্যা কমতে থাকলেও সেই অনুপাতে মৃত্যুর সংখ্যা কমছে না।

দেশটির স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ের তথ্যে দেখা গেছে, সোমবার সকালের আগের ২৪ ঘণ্টায় সেখানে ৭০ হাজার ৪২১ জন নতুন রোগী শনাক্ত হয়েছেন আর একই সময় মৃত্যু হয়েছে ৩৯২১ জনের।

১ এপ্রিলের পর থেকে ভারতে দৈনিক শনাক্ত রোগীর এটিই সর্বনিম্ন সংখ্যা বলে জানিয়েছে দেশটির গণমাধ্যম।

নতুন আক্রান্তদের নিয়ে ভারতে শনাক্ত কোভিড-১৯ রোগীর সংখ্যা দুই কোটি ৯৫ লাখ ১০ হাজার ৪১০ জনে দাঁড়িয়েছে। শনাক্ত রোগীর সংখ্যায় বিশ্বে শীর্ষে আছে যুক্তরাষ্ট্র, ভারত আছে দ্বিতীয় স্থানে।

যুক্তরাষ্ট্র ও ব্রাজিলের পর মৃতের সংখ্যায় তৃতীয় স্থানে থাকা ভারতে মোট মৃত্যু হয়েছে তিন লাখ ৭৪ হাজার ৩০৫ জনের।

টানা সাত দিনের মতো দেশটিতে প্রতি ১০০ জনের মধ্যে আক্রান্তের সংখ্যা পাঁচ জনের নিচে রয়েছে।

এদিন সবচেয়ে বেশি রোগী শনাক্ত হয়েছে ভারতের তামিলনাডু রাজ্যে, তারপর যথাক্রমে কেরালায় ও মহারাষ্ট্রে। দেশটির রাজ্যগুলোর মধ্যে মহারাষ্ট্র শনাক্ত রোগীর সংখ্যায় শীর্ষ আছে। 

রাজধানী দিল্লিতে দৈনিক শনাক্ত তিন মাসের মধ্যে সবচেয়ে কম হওয়ায় লকডাউন শিথিল করা হচ্ছে। সোমবার থেকে নগরীটিতে দোকান, মার্কেট ও রেস্তোরাঁ ফের খোলার অনুমতি দেওয়া হয়েছে।

হরিয়ানায় চলমান লকডাউন ২১ জুন পর্যন্ত বাড়ানো হলেও বিধিনিষেধে কিছু ছাড় দেওয়া হয়েছে।

এপ্রিলের প্রথমদিকে ভারতজুড়ে করোনাভাইরাস সংক্রমণের দ্বিতীয় ঢেউ শুরু হলে মাসের মাঝামাঝি দেশটির বহু রাজ্যে লকডাউন জারি করা হয়েছিল, এখন সংক্রমণ কমতে থাকায় অধিকাংশ রাজ্যই বিধিনিষেধ শিথিল করা শুরু করেছে। 

সংক্রমণের দ্বিতীয় ঢেউয়ের সর্বোচ্চ পর্যায়ে ৭ মে চার লাখ ১৪ হাজার ১৮৮ জন রোগী শনাক্ত হয়ে বিশ্বরেকর্ড করেছিল ভারত। এরপর ১৯ মে দেশটিতে ২৪ ঘণ্টার মধ্যে সর্বোচ্চ ৪৫২৯ জন রোগীর মৃত্যু হয়েছিল।