পছন্দের খবর জেনে নিন সঙ্গে সঙ্গে

কাশ্মীরি মানবাধিকারকর্মী খুররম পারভেজ সন্ত্রাসবিরোধী আইনে গ্রেপ্তার

  • নিউজ ডেস্ক, বিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম
    Published: 2021-11-23 14:18:05 BdST

bdnews24
খুররম পারভেজ, ছবিটি বিবিসি থেকে নেওয়া

কাশ্মীরের সুপরিচিত মানবাধিকারকর্মী খুররম পারভেজকে সন্ত্রাসবিরোধী আইনে গ্রেপ্তার করেছে ভারতে সন্ত্রাসবাদ মোকাবেলার দায়িত্বে থাকা সংস্থা এনআইএ।

তার বিরুদ্ধে ‘সন্ত্রাসে অর্থায়ন’ ও ‘ষড়যন্ত্রের’ অভিযোগ আনা হয়েছে বলে জানিয়েছে বিবিসি।

সন্ত্রাসবিরোধী আইনে গ্রেপ্তার হওয়ায় পারভেজের জামিন পাওয়া কঠিন হবে।

ভারতের জাতীয় তদন্ত সংস্থা এনআইএ সোমবার এই মানবাধিকারকর্মীর বাড়ি ও কার্যালয়ে অভিযান চালানোর পর তাকে গ্রেপ্তার করে। এ বিষয়ে পারভেজের দিক থেকে কোনো মন্তব্য পাওয়া যায়নি।

সুপরিচিত এই মানবাধিকারকর্মীকে গ্রেপ্তারের ঘটনা বিশ্বজুড়ে আলোড়ন সৃষ্টি করেছে; অনেকেই তাকে ছেড়ে দেওয়ার দাবি জানিয়েছেন।

মানবাধিকারকর্মীদের পাশাপাশি অন্যরাও তার গ্রেপ্তারকে ‘মানবাধিকারের জন্য লড়তে থাকাদের শাসানোর’ চেষ্টা হিসেবে দেখছেন।

ক্ষমতাসীন ভারতীয় জনতা পার্টির (বিজেপি) কড়া সমালোচক পারভেজের জম্মু কাশ্মীর কোয়ালিশন অব সিভিল সোসাইটি (জেকেসিসিএস) ভারত নিয়ন্ত্রিত উপত্যকাটিতে নিরাপত্তা বাহিনীর মানবাধিকার লংঘন ও অত্যধিক বল প্রয়োগ নিয়ে বেশ কয়েকটি প্রতিবেদন প্রকাশ করেছিল।

পারভেজ কাশ্মীর ও এশিয়ার অন্যত্র গুম নিয়ে কাজ করা এশিয়ান ফেডারেশন এগেইনস্ট ইনভলান্টারি ডিসঅ্যাপিয়ারেন্সেসেরও (এএফএডি) চেয়ারপারসন।

২০১৬ সালে সেপ্টেম্বরে তাকে বিতর্কিত জননিরাপত্তা আইনে গ্রেপ্তার করা হয়েছিল। গ্রেপ্তারের আগের দিন তাকে সুইজারল্যান্ড যেতেও বাধা দেওয়া হয়েছিল; জাতিসংঘের মানবাধিকার কাউন্সিলের ৩৩তম অধিবেশনে যোগ দিতে পারভেজ সেবার সুইজারল্যান্ড যেতে চেয়েছিলেন।

গ্রেপ্তার হওয়ার ৭৬ দিন পর বিশ্বজুড়ে তৎপর মানবাধিকারকর্মীদের চাপে ছাড়া পেয়েছিলেন এ মানবাধিকারকর্মী।

সোমবার এনআইএ-র তদন্ত কর্মকর্তারা পারভেজের বাড়ি এবং শ্রীনগরে জেকেসিসিএসের কার্যালয়ে তল্লাশি চালায়। এরপর তারা পারভেজকে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য নিয়ে যায় এবং সন্ধ্যার দিকে গ্রেপ্তার দেখায়। 

তার বিরুদ্ধে বিতর্কিত বেআইনি কার্যকলাপ (প্রতিরোধ) আইনে ‘অপরাধমূলক ষড়যন্ত্র’, ‘সরকারের বিরুদ্ধে যুদ্ধ শুরুর চেষ্টা’ এবং ‘সন্ত্রাসী কর্মকাণ্ড ও সন্ত্রাসী সংগঠনের জন্য অর্থ তোলা’সহ বেশ কয়েকটি অভিযোগ আনা হয়েছে।

পারভেজকে গ্রেপ্তারের ঘটনায় উদ্বেগ প্রকাশ করেছেন মানবাধিকার বিষয়ক জাতিসংঘের বিশেষ র‌্যাপোর্টার মেরি ললোর।

এক টুইটে তিনি বলেছেন, “পারভেজ সন্ত্রাসী নন, তিনি মানবাধিকার সুরক্ষায় নিবেদিতপ্রাণ কর্মী।”