জামায়াতকে নেবে জানলে বিএনপির সঙ্গে ‘যেতেন না’ কামাল

  • নিউজ ডেস্ক বিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম
    Published: 2018-12-28 01:14:03 BdST

bdnews24
কামাল হোসেন

বিএনপি জামায়াতে ইসলামীকে নির্বাচনে সঙ্গে নেবে জানলে তাদের সঙ্গে জোট করতেন না বলে ভারতের একটি সংবাদপত্রকে দেওয়া সাক্ষাৎকারে দাবি করেছেন জাতীয় ঐক্যফ্রন্টের শীর্ষনেতা কামাল হোসেন।

জামায়াতের সঙ্গে ধানের শীষ প্রতীক নিয়ে ভোট করা নিয়ে সমালোচনার মধ্যে একাদশ সংসদ নির্বাচনের চার দিন আগে দি ইন্ডিয়ান এক্সপ্রেসকে দেওয়া সাক্ষাৎকারে এই দাবি করেন তিনি।

এই নির্বাচনের আগে বিএনপিকে সঙ্গে নিয়ে জাতীয় ঐক্যফ্রন্ট গড়ে তোলেন গণফোরাম সভাপতি কামাল। এই নির্বাচনে গণফোরামের প্রার্থীরা যেমন ধানের শীষ প্রতীক নিয়ে ভোট করছেন, তেমনি বিএনপির পুরনো জোটসঙ্গী নিবন্ধনহীন জামায়াতের নেতারাও বিএনপির প্রতীকেই ভোট করছেন।

আওয়ামী লীগের এক সময়ের নেতা কামাল জামায়াতের সঙ্গে নিজের আদর্শিক মতভিন্নতার কথা জাতীয় ঐক্যফ্রন্ট গঠনের সময় বললেও একই প্রতীকে ভোটে নামার পর সাংবাদিকদের এই সংক্রান্ত প্রশ্ন এড়িয়ে যাচ্ছেন।

আওয়ামী লীগের নেতারা তাদের পুরনো নেতার সমালোচনা করে বলছেন, এর মধ্য দিয়ে কামাল হোসেনের ‘মুখোশ উন্মোচিত’ হয়েছে।

ইন্ডিয়ান এক্সপ্রেসের প্রশ্নে কামাল বলেন, “আমি যদি আগে জানতাম (জামায়াত নেতাদের বিএনপি প্রার্থী করবে), তাহলে এই প্রক্রিয়ায় যুক্ত হতাম না।”

“তবে এদের (জামায়াত) যদি ভবিষ্যতে সরকারে নেওয়া হয়, তবে আমি এক দিনের জন্যও থাকব না,” বলেন তিনি।

কামাল বলেন, “জামায়াতের জন্য ক্ষেত্র তৈরি করে দেওয়াটা বোকামি।”

বিএনপিকে নিয়ে ঐক্যফ্রন্ট গঠনের প্রেক্ষাপট তুলে ধরে তিনি বলেন, “আমি নিজের আইন পেশায় ব্যস্ত ছিলাম, কয়েক মাস আগে বিএনপির মহাসচিব এলেন, আমাকে বললেন এই জোটের নেতৃত্ব দিতে।

“দেশে যা ঘটছিল, তাতে আমি উদ্বিগ্ন ছিলাম, তাই আমি এতে রাজি হই।”

কামাল বলেন, বাক স্বাধীনতা ও গণতন্ত্র নিশ্চিতের জন্য বিএনপিকে সঙ্গে নিয়ে জোট গঠন করে আওয়ামী লীগের বিরুদ্ধে নামেন।

“আমার বয়স ৮০ বছর, আমি শুধু নেমেছি আইনের শাসন প্রতিষ্ঠার জন্য, গণতন্ত্র পুনরুদ্ধারের জন্য।।”

“আমি নির্বাচনের দিনটির জন্য অপেক্ষা করছি, ওই দিনটি হবে মুক্তির দিন। যদি অবাধ ও নিরপেক্ষ নির্বাচন হয়, তবে তা হবে দ্বিতীয় স্বাধীনতা দিবস,” বলেন তিনি।

কামাল দাবি করেন, বাংলাদেশে এখন ‘স্বৈরতন্ত্র’ চলছে।

ভারতের সঙ্গে ‘সত্যিকারের সহযোগিতাপূর্ণ সম্পর্ক’ চাওয়ার কথাও বলেন ঐক্যফ্রন্টের শীর্ষনেতা।