উপনির্বাচনে বিএনপির ৩ প্রার্থী রবি, শিপন ও সাদিক

  • জ্যেষ্ঠ প্রতিবেদক, বিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম
    Published: 2020-02-17 21:52:44 BdST

bdnews24

জাতীয় সংসদের তিনটি আসনে উপনির্বাচনে দলীয় প্রার্থী চূড়ান্ত করেছে বিএনপি।

ঢাকা-১০ আসনে প্রার্থী করা হয়েছে শেখ রবিউল আলমকে। বাগেরহাই-৪ আসনে লড়বেন কাজী খায়রুজ্জামান শিপন। গাইবান্ধা-৩ আসনে ডা. সৈয়দ মাইনুল হাসান সাদিক হচ্ছেন ধানের শীষের প্রার্থী।

সোমবার রাতে ঢাকার গুলশানে দলীয় চেয়ারপারসনের কার্যালয়ে বিএনপির মনোনয়ন বোর্ড প্রার্থী হতে ইচ্ছুকদের সাক্ষাৎকার নেওয়ার পর তিন প্রার্থীর নাম ঘোষণা করেন বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর।

আওয়ামী লীগের শেখ ফজলে নূর তাপস মেয়র নির্বাচন করতে পদত্যাগ করায় ঢাকা-১০ আসন শূন্য হয়েছে। বাকি দুটি আসন শূন্য হয়েছে আওয়ামী লীগেরই দুই সংসদ সদস্যের মৃত্যুতে।

আগামী ২৯ মার্চ এই তিনটি আসনে উপনির্বাচনে ভোটগ্রহণ হবে। মনোনয়নপত্র জমা দেওয়া যাবে ১৯ ফেব্রুয়ারি পর্যন্ত।

এই নির্বাচনে অংশ নিতে বিএনপির মনোনয়ন পাওয়া তিনজনই নতুন; একাদশ সংসদ নির্বাচনে তারা আসনগুলোতে প্রার্থী ছিলেন না। 

ঢাকা-১০ আসনের প্রার্থী শেখ রবিউল বিএনপির জাতীয় নির্বাহী কমিটির সদস্য এবং ঢাকা মহানগর দক্ষিণ কমিটির যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক। তার বয়স ৪৮ বছর। ধানমন্ডি থানা বিএনপিরও সভাপতি তিনি।

বাগেরহাট-৪ আসনের প্রার্থী কাজী খায়রুজ্জামান শিপন জেলা বিএনপির সদস্য। তার আবেদনপত্রে বয়স লেখা হয়েছে ৪৬ বছর।

গাইবান্ধা-৩ আসনের ডা. সৈয়দ মাইনুল হাসান সাদিক গাইবান্ধা জেলা বিএনপির সভাপতি। ৬২ বছর বয়সী সাদিক বিএনপি সমর্থক চিকিৎসকদের সংগঠন ড্যাবের নেতা।

সরকার ও নির্বাচন কমিশনের প্রতি চরম অনাস্থা প্রকাশের পরও এই উপনির্বাচনে অংশ নিচ্ছে বিএনপি। দলটির পক্ষ থেকে বলা হচ্ছে, আন্দোলনের অংশ হিসেবে তাদের এই নির্বাচনে অংশগ্রহণ।

দলের মনোনয়ন পাওয়া তিনজনই এক বাক্যে সাংবাদিকদের বলেছেন, প্রতিকূল অবস্থার মধ্যে দলের সিদ্ধান্ত অনুযায়ী ‘গণতন্ত্র ফিরিয়ে আনা এবং খালেদা জিয়ার মুক্তির আন্দোলনের অংশ হিসেবে’ তারা এই নির্বাচনে অংশ নিচ্ছেন।

তিন প্রার্থী ঠিক করতে বিএনপির মনোনয়ন বোর্ডের বৈঠকে লন্ডন থেকে স্কাইপে যুক্ত হয়ে সভাপতিত্ব করেন দলের ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান তারেক রহমান।

সভায় মহাসচিব ফখরুল ছাড়াও ছিলেন স্থায়ী কমিটির সদস্য খন্দকার মোশাররফ হোসেন, মওদুদ আহমদ, জমিরউদ্দিন সরকার, মির্জা আব্বাস, আবদুল মঈন খান, নজরুল ইসলাম খান, গয়েশ্বর চন্দ্র রায়, সেলিমা রহমান ও ইকবাল হাসান মাহমুদ টুকু।