ভোট দিতে গিয়ে জটিলতায় নৌকার প্রার্থী মহিউদ্দিন

  • জ্যেষ্ঠ প্রতিবেদক বিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম
    Published: 2020-03-21 12:05:27 BdST

bdnews24

ঢাকা-১০ আসনে ভোটার তালিকায় নাম না ওঠায় সকালে ভোট দিতে পারেননি এই আসনে উপনির্বাচনে আওয়ামী লীগের মেয়র প্রার্থী শফিউল ইসলাম মহিউদ্দিন; পরে অবশ্য তিনি নিজের ভোটটি দিতে পেরেছেন।

শনিবার সকাল ১০টার দিকে কলাবাগান লেক সার্কাস বালিকা উচ্চ বিদ্যালয় কেন্দ্রে কেন্দ্রে ভোট দিতে উপস্থিত হন নৌকার প্রার্থী মহিউদ্দিন।

ইভিএমে ভোট দিতে তার আঙুলের ছাপ নেওয়া হলে তা মেলেনি। এরপর ভোটার তালিকায় তার নাম খুঁজে পাওয়া যায়নি। ফলে আধা ঘণ্টা থেকে ভোট না দিয়েই ফিরতে হয় তাকে।

ব্যবসায়ী নেতা মহিউদ্দিন ঢাকার উত্তরা এলাকার ভোটার ছিলেন। রাজনীতিতে নেমে এবার ঢাকা-১০ আসনে ক্ষমতাসীন দলের প্রার্থী হওয়ার পর ভোটার তালিকায় নাম স্থানান্তরের আবেদন করেন তিনি।

তখন উপনির্বাচনের সহকারী রিটার্নিং কর্মকর্তা শাহনাজ পারভীন বিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকমকে বলেন, “তফসিল ঘোষণার দু’দিন আগে এ প্রার্থী (মহিউদ্দিন) স্থানান্তর হওয়ার আবেদন করেছিলেন।

“উত্তরা থেকে ধানমন্ডির লেক সার্কাস এলাকায় ভোটার এলাকা পরিবর্তন করতে এ আবেদন করেন তিনি। ভোটার তালিকা তো আগেই চূড়ান্ত হয়েছিল। ভোটার স্থানান্তরের পর হালনাগাদ তথ্য হয়ত কেন্দ্রে পৌঁছেনি।”

সেই কারণে মহিউদ্দিনের আঙুলের ছাপ মেলেনি জানিয়ে তিনি বলেন, “ইভিএমে ভোটের ক্ষেত্রে আঙ্গুলের ছাপের তথ্যও কেন্দ্রভিত্তিক সংযোজন করতে হয়।

“এখনও আমাদের কাছে কিছু জানানো হয়নি। এ নিয়ে সহায়তা চাইলে ব্যবস্থা করা হবে।”

সংসদ নির্বাচনে প্রার্থীদের সংশ্লিষ্ট এলাকায় ভোটার হওয়ার বাধ্যতামূলক নয়।

তবে মহিউদ্দিন আশা করছিলেন, জটিলতা কাটিয়ে বিকালের মধ্যে ভোট দিতে পারবেন তিনি।

তিনি বিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকমকে বলেন, “সেখানে ছোট একটা ভুল হয়েছে। আমি তো অপেক্ষা করেছিলাম। বিকালের মধ্যে তা ঠিক হয়ে যাবে আশা করি। পরে গিয়ে ভোট দেব।”

ঢাকা-১০ আসনের উপনির্বাচনে বিকাল ৫টা পর্যন্ত ভোটগ্রহণ চলবে।

রিটার্নিং কর্মকর্তা রিটার্নিং কর্মকর্তা জি এম সাহতাবউদ্দিন বিকালে সাংবাদিকদের বলেন, “আওয়ামী লীগ প্রার্থী শফিউল আলম মহিউদ্দিন ভোট দিতে পেরেছেন। ভোটার স্থানান্তর হওয়ায় ইভিএমে ভোটার তথ্য অন্তর্ভুক্ত ছিল না। যে কোনো ভোটারের ক্ষেত্রে তা হতে পারে। বিষয়টি নজরে আসায় প্রয়োজনীয় কাজ সম্পন্ন করা হয়েছে। প্রার্থী ভোটও দিয়েছেন।”