রাজনীতি মহান ব্রত, কোনো পেশা নয়: ওবায়দুল কাদের

  • নিজস্ব প্রতিবেদক, বিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম
    Published: 2020-08-11 21:23:53 BdST

রাজনৈতিক সংস্কৃতি নষ্ট হলে কিংবা নেতাকর্মীরা লাভের চোরাবালিতে নিমজ্জিত হলে জনগণের স্বপ্ন ছিনতাই হয়ে যায় বলে মন্তব্য করেছেন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদের।

জাতীয় শোক দিবস উপলক্ষ্যে মঙ্গলবার রাজধানীর ডিপ্লোমা ইঞ্জিনিয়ার্স ইনস্টিটিউটে স্বেচ্ছাসেবক লীগ আয়োজিত এক আলোচনা সভায় ভিডিও কনফারেন্সের মাধ্যমে বক্তব্য দেন তিনি।

ওবায়দুল কাদের বলেন, “রাজনীতি মহান ব্রত, এটা কোনো পেশা নয়। সাধারণ জনগণ নিষ্ক্রিয় থাকলেও তাদের স্বার্থ রক্ষার জন্য রাজনৈতিক নেতাকর্মীদের সক্রিয় থাকতে হয়। রাজনৈতিক নেতাকর্মীরা হল জনগণের স্বার্থ রক্ষার অতন্দ্র প্রহরী।

“যারা বলে রাজনীতিতে শেষ কথা বলতে কিছু নেই, তারা জনকল্যাণের মূল মন্ত্র থেকে সরে গিয়ে লুটপাটের সংস্কৃতির বিস্তার ঘটায়। রাজনীতিকে নিজেদের স্বার্থ সিদ্ধির হাতিয়ার হিসেবে ব্যবহার করে। সত্যিকারের রাজনৈতিক নেতাকর্মীরা লোভের বশবর্তী হয়ে রাজনীতিতে সম্পৃক্ত হয় না।”

বঙ্গবন্ধুর রাজনৈতিক জীবনের স্মৃতিচারণ করে সগক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী কাদের বলেন, “প্রতিবাদকারী কিশোর থেকে রাজনৈতিক কর্মী, এরপর রাজনৈতিক কর্মকাণ্ডের প্রতিপালন ও আদর্শের অনুশীলনের মাধ্যমে রাজনৈতিক কর্মী থেকে রাজনৈতিক নেতা। তারপর বাঙালির অধিকার প্রতিষ্ঠার আন্দোলন-সংগ্রামের বোঝা নিজ স্কন্ধে বয়ে তিনি হয়ে ওঠেন রাজনীতিবিদ। বিশ্বের মহান নেতাদের অন্যতম একজন, একটি স্বাধীন-সার্বভৌম জাতি রাষ্ট্রের প্রতিষ্ঠাতা, বাঙালি জাতির পিতা।”

দুর্যোগ-দুর্বিপাকে এদেশের মানুষের পাশে থেকে কাজ করে যাওয়া বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের ঐতিহ্য মন্তব্য করে তিনি বলেন, প্রতিষ্ঠার পর থেকে আওয়ামী স্বেচ্ছাসেবক লীগ দুর্যোগে-দুর্ভোগে-দুর্বিপাকে দুঃখ-বিষাদের দিনে এদেশের মানুষের পাশে থেকে সর্বাত্মকভাবে কাজ করে যাচ্ছে। করোনা সংকটের শুরু থেকেই সাধারণ মানুষের মাঝে স্বাস্থ্য সুরক্ষা সামগ্রী বিতরণ ও সচেতনতা সৃষ্টির লক্ষ্যে প্রচার-প্রচারণা চালানো, কৃষকের ধান কেটে বাড়ি পৌঁছে দেওয়া, চিকিৎসা সেবা নিশ্চিত করতে ফ্রি অ্যাম্বুলেন্স সার্ভিস ও টেলিমেডিসিন সেবা কার্যক্রম পরিচালনা, অসহায় মানুষের  মধ্যে খাদ্য সহায়তা বিতরণসহ জনকল্যাণমুখী অসংখ্য উদ্যোগ গ্রহণ করেছে স্বেচ্ছাসেবক লীগ। বর্তমানে বন্যা দুর্গতদের পাশে থেকে সারাদেশে কাজ করে যাচ্ছে স্বেচ্ছাসেবক লীগের নেতা-  কর্মীরা।

স্বেচ্ছাসেবক লীগের সভাপতি নির্মল রঞ্জন গুহের সভাপতিত্বে আলোচনা সভায় বক্তব্য রাখেন আওয়ামী লীগের যুগ্ম-সাধারণ সম্পাদক আ ফ ম বাহাউদ্দিন নাসিম, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের উপ-উপাচার্য এএসএম মাকসুদ কামাল, অধ্যাপক শিবলী রুবাইয়াতুল ইসলাম, স্বেচ্ছাসেবক লীগের সাধারণ সম্পাদক একেএম আফজালুর রহমান বাবু, ঢাকা মহানগর দক্ষিণের সভাপতি কামরুল হাসান রিপন।