নতুন প্রতিমন্ত্রীর শপথের গুঞ্জন

  • নিজস্ব প্রতিবেদক, বিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম
    Published: 2020-11-24 01:39:45 BdST

মন্ত্রিসভায় নতুন ‍মুখ যুক্ত হয়ে ধর্ম প্রতিমন্ত্রী হিসেবে একজনের শপথের গুঞ্জন চলছে।

সোমবার সোশাল মিডিয়ার পাশাপাশি কয়েকটি সংবাদ মাধ্যমে এই খবর এলেও সরকারের পক্ষ থেকে কোনো বক্তব্য আসেনি।

তবে বঙ্গভবনে খোঁজ নিয়ে জানা গেছে, মঙ্গলবার সন্ধ্যায় শপথ অনুষ্ঠানের প্রস্তুতি নেওয়া হচ্ছে।

বঙ্গভবনের একটি সূত্র বিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকমকে বলেছে, “আগামীকাল রাষ্ট্রপতি একজন নতুন প্রতিমন্ত্রীকে শপথ পড়াবেন বলে কর্মসূচি রাখা হয়েছে।”

সাধারণত বঙ্গভবনে যদি ১-২ জন মন্ত্রী বা প্রতিমন্ত্রী শপথ নেন, তবে আয়োজন ছোট হয়। করোনাভাইরাস মহামারীর কারণে সেই ছোট আয়োজনের পরিসরও সংক্ষিপ্ত হতে পারে।

বঙ্গভবনের এই শপথ অনুষ্ঠানের দায়িত্বে থাকে মন্ত্রিপরিষদ বিভাগ। কিন্তু সেই বিভাগের পক্ষ থেকে কিছু জানানো হয়নি।

গণমাধ্যমে নতুন ধর্ম প্রতিমন্ত্রী হিসেবে জামালপুরের আওয়ামী লীগ সংসদ সদস্য ফরিদুল হক খান দুলালের নাম এসেছে।

৬৪ বছর বয়সী ফরিদুল হক জামালপুর-২ (ইসলামপুর) আসন থেকে এনিয়ে তৃতীয়বার সংসদে প্রতিনিধিত্ব করছেন।

সোমবার রাতে জানতে চাইলে ফরিদুল হক বিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকমকে বলেন, “কাল সকালে হয়ত প্রজ্ঞাপন জারি হতে পারে। তখন আপনারা-আমরা জানতে পারব।

“আগামীকাল দুইটার আগে কিছু বলা যাবে না। দুয়েকদিনের মধ্যে শপথ অনুষ্ঠানও হতে পারে। আমরা এটুকু শুনেছি যে, আগামীকাল না হলে পরশুদিন হবে।”

সংসদ সদস্য ফরিদুল হক খান

সংসদ সদস্য ফরিদুল হক খান

শপথ নেওয়ার ডাক পেয়েছেন কি না- জানতে চাইলে তিনি বলেন, “এ রকম কোনো কিছু না। আমরা কাল দুপুরের মধ্যে খবর পাব যে কালকে শপথ হবে কি না বা কার কী পজিশন বা কার কী হতে পারে বা কাকে ডাকে।

“কাকে দেবে না দেবে কোনো কিছু কারও নলেজে নেই, এমনকি আমাদের নলেজেও নেই।”

গণমাধ্যমের খবরের বিষয়ে দৃষ্টি আকর্ষণ করা হলে ফরিদুল হক বলেন, “এটা যারা করেছে তারা অতি উৎসাহী হয়ে করেছে। অযথা এটা সামাজিক মাধ্যমে দিয়ে দিয়েছে। এ নিয়ে আমি কমপ্লেইনও করেছি।”

ফরিদুল হক করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে সেরেও উঠেছেন।

মন্ত্রিসভায় ধর্ম মন্ত্রণালয় এখন শূন্য রয়েছে। টেকনোক্র্যাট কোটায় স্থান ধর্ম প্রতিমন্ত্রীর দায়িত্বে থাকা শেখ মো. আবদুল্লাহ গত ১৩ জুন মারা যাওয়ার পর নতুন কাউকে সেই দায়িত্ব দেওয়া হয়নি।

রুলস অব বিজনেস অনুযায়ী, কোনো মন্ত্রণালয়ের মন্ত্রী, প্রতিমন্ত্রী বা উপমন্ত্রী না থাকলে সেই মন্ত্রণালয়ের দায়িত্ব প্রধানমন্ত্রী অধীনে চলে যায়।

প্রতিমন্ত্রী মারা যাওয়ার পর প্রধানমন্ত্রীর হাতে ধর্ম মন্ত্রণালয়  

একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে বিপুল বিজয়ের পর ২০১৯ সালের ৭ জানুয়ারি প্রধানমন্ত্রী হিসেবে টানা তৃতীয় মেয়াদে শপথ নেন শেখ হাসিনা। ২৪ জন মন্ত্রী, ১৯ জন প্রতিমন্ত্রী এবং তিনজন উপমন্ত্রীকে নিয়ে নতুন সরকারের মন্ত্রিসভা সাজান তিনি।

মন্ত্রিসভায় দুই দফা রদবদল এবং একজন প্রতিমন্ত্রী মারা যাওয়ার পর শেখ হাসিনা নেতৃত্বাধীন সরকারে বর্তমানে ২৫ জন মন্ত্রী, ১৮ জন প্রতিমন্ত্রী এবং তিনজন উপমন্ত্রী রয়েছেন।