পছন্দের খবর জেনে নিন সঙ্গে সঙ্গে

আওয়ামী লীগই ‘লবিস্ট’ লাগিয়েছে, অভিযোগ বিএনপির

  • জ্যেষ্ঠ প্রতিবেদক, বিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম
    Published: 2022-01-19 18:49:40 BdST

বিএনপি ‘দেশের বিরুদ্ধে অপপ্রচার’ চালাতে যুক্তরাষ্ট্রে লবিস্ট নিয়োগে ৩৭ লাখ ডলার খরচ করছে বলে পররাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী মন্তব্য করার পর পাল্টা অভিযোগ করেছে বিএনপি।

দলটির স্থায়ী কমিটির সদস্য খন্দকার মোশাররফ হোসেন বুধবার বলেছেন, “নিজেদের অপকর্ম ঢাকতে আওয়ামী লীগই ১৪ বছর ধরে লবিস্ট নিয়োগ করে আসছে।”

পররাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী শাহরিয়ার আলমের ওই অভিযোগ ‘বানোয়াট ও ভিত্তিহীন’ বলে দাবি করেন বিএনপির এই নেতা।

তিনি বলেন, “যখন আমেরিকা থেকে দেশের একটি সংস্থা এবং এর উচ্চ পর্যায়ের কর্মকর্তাদের বিরুদ্ধে নিষেধাজ্ঞা এসেছে, যখন বাংলাদেশ গণতন্ত্র সামিটে দাওয়াত পায় না। তখন আজকে এই কথাগুলো উঠছে। আমাদের প্রশ্ন, আগে কেন এগুলো ওঠেনি?”

সোমবার জাতীয় সংসদে রাষ্ট্রপতির ভাষণের ওপর আনা ধন্যবাদ প্রস্তাবের আলোচনায় পররাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী বলেন, “তিন বছরে যুক্তরাষ্ট্রের একটি লবিস্ট ফার্মের পিছনে বিএনপি দুই মিলিয়ন মার্কিন ডলার ব্যয় করেছে।”

সরকারের বিরুদ্ধে বিএনপি যুক্তরাষ্ট্রে কত টাকা খরচ করেছে, তার হিসাব সরকারের কাছে রয়েছে বলে দাবি করেন পররাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী।

তিনি বলেন, “বিএনপি-জামায়াত গত পাঁচ বছরে কতগুলো লবিস্ট ফার্মে টাকা দিয়েছে তার চুক্তি, টাকা-পয়সার হিসাব আছে- এটা প্রকাশ করা হবে। কে, কোন অ্যাকাউন্টে দিয়েছেন সব কিছু আছে।”

এর প্রতিক্রিয়ায় খন্দকার মোশাররফ হোসেন সাংবাদিকদের বলেন, “আমি কিছুদিন আগে পত্র-পত্রিকায় দেখেছি, আওয়ামী লীগ সরকার এদেশের গণতন্ত্র হত্যা করছে, মানবাধিকার লঙ্ঘন ও চুরি-ডাকাতি করে দেশের অর্থনীতি লুণ্ঠন করছে- এগুলো যাতে ধামাচাপা দেওয়া যায় সেজন্য তারা বিদেশে লবিস্ট নিয়োগ করেছে গত ১৪ বছর ধরে।

“এটা যখন পত্র-পত্রিকায় বের হয়েছে, আজকে এই সরকার এ ধরনের একটি মিথ্যা-বানোয়াট কতগুলো ডকুমেন্ট দিয়ে তারা শুধু জবাব দেওয়ার জন্য বা জনগণকে বিভ্রান্ত করার জন্য এ ধরনের কথা বলছে। এগুলো সম্পূর্ণ বানোয়াট।”

বিএনপির প্রতিষ্ঠাতা জিয়াউর রহমানের জন্মবার্ষিকী উপলক্ষে বুধবার শেরে বাংলা নগরে তার কবরে শ্রদ্ধা জানান বিএনপির নেতাকর্মীরা।

এ সময় পররাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রীর অভিযোগ অস্বীকার করে খন্দকার মোশাররফ বলেন, এ ব্যাপারে শিগগিরই সংবাদ সম্মেলন করা হবে।

“আমরা আজ শহীদ প্রেসিডেন্ট জিয়াউর রহমানকে শ্রদ্ধা জানাচ্ছি, তার রুহের মাগফেরাত কামনা করছি। তার জন্মদিনে আমরা শপথ নিয়েছি, আমরা গণতন্ত্র, মানুষের ভোটের অধিকার পুনরুদ্ধার করব। এদেশের মানুষের যে মালিকানা, তা তাদেরকে ফিরিয়ে দেব।

“এজন্য দেশপ্রেমিক-গণতান্ত্রিক-জাতীয়তাবাদী শক্তি ঐক্যবদ্ধ হয়ে, জনগণকে ঐক্যবদ্ধ করে আমরা এদেশে এমন একটা পরিবেশ সৃষ্টি করতে চাই যে, পরিবেশের গণতন্ত্র ফিরে আসবে। যে পরিবেশে খালেদা জিয়া মুক্তি পাবেন, ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান তারেক রহমান দেশে ফিরে স্বাধীনভাবে রাজনীতি করার সুযোগ পাবেন।”

‘বাকশাল পোক্ত করতেই ইসি গঠনের আইনের খসড়া’

নির্বাচন কমিশন গঠনে মন্ত্রিসভায় অনুমোদিত আইনের খসড়া সমালোচনা করে বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য মির্জা আব্বাস সাংবাদিকদের বলেন, “এক কথায় যদি বলি, বাকশালকে পাকাপোক্ত করার জন্য এটা তারা করছে। আমরা এই ব্যাপারে একেবারেই আগ্রহী না। এই কারণে যে, নিরপেক্ষ সরকার ছাড়া আমরা তো নির্বাচনই যাব না।

“নিরপেক্ষ সরকার যদি না আসে, বিএনপি কোনো নির্বাচনে যাবে না। শুধু তাই নয়, সেই নির্বাচনকে আমরা প্রতিহত করব, হতেও দেবে না।”

জিয়াউর রহমানের জন্মবার্ষিকী উপলক্ষে সকালে নয়া পল্টনের কেন্দ্রীয় কার্যালয়, চেয়ারপারসনের কার্যালয়সহ সারা দেশে দলের সকল কার্যালয়ে দলীয় পতাকা উত্তোলন করা হয়।

দলের প্রতিষ্ঠাতার আত্মার শান্তি কামনা করে বিশেষ মোনাজাত এবং শেরেবাংলা নগরে তার কবরে পুস্পমাল্য অর্পণ করা হয়।

খন্দকার মোশাররফ হোসেন ও মির্জা আব্বাস ছাড়াও দলের স্থায়ী কমিটির সদস্য গয়েশ্বর চন্দ্র রায় ও নজরুল ইসলাম খান, চেয়ারপারসনের উপদেষ্টা কাউন্সিলের সদস্য আবদুস সালাম, আমান উল্লাহ আমান, ফরহাদ হালিম ডোনার, জ্যেষ্ঠ যুগ্ম মহাসচিব রুহুল কবির রিজভী, কেন্দ্রীয় নেতা খায়রুল কবির খোকনসহ অন অন্যান্য নেতাকর্মীরা উপস্থিত ছিলেন।

দুপুরে নয়া পল্টনের কার্যালয়ের নিচতলায় ‘ফ্রি মেডিকেল ক্যাম্প’ খোলা হয়। ডক্টরস অ্যাসোসিয়েশন অব বাংলাদেশের (ড্যাব) উদ্যোগে এই ক্যাম্প থেকে চিকিৎসা সেবার পাশাপাশি বিনামূল্যে ওষুধ দেওয়া হয়। বৃহস্পতিবারও চলবে এই ফ্রি মেডিকেল ক্যাম্প।