পছন্দের খবর জেনে নিন সঙ্গে সঙ্গে

ওয়ার্কার্স পার্টির সুবর্ণজয়ন্তীতে বছরব্যাপী কর্মসূচি

  • নিজস্ব প্রতিবেদক, বিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম
    Published: 2022-05-15 18:02:35 BdST

bdnews24

গত পঞ্চাশ বছরে রাজপথের আন্দোলনে নানা অর্জনের গৌরবের সঙ্গে লক্ষ্য পূরণে ‘ব্যর্থতার গ্লানি’ নিয়েই দল গঠনের সুবর্ণজয়ন্তী উদযাপন করতে যাচ্ছে বাংলাদেশের ওয়ার্কার্স পার্টি।

রোববার পার্টির কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে এক সংবাদ সম্মেলনে দলের নেতারা জানান, ‘সমাজতন্ত্রের পথে বাংলাদেশকে এগিয়ে নেই’- এই স্লোগানে বছরব্যাপী সুবর্ণজয়ন্তী উদযাপনের প্রস্তুতি নিচ্ছেন তারা।

ওয়ার্কার্স পার্টির পলিট ব্যুরোর সদস্য এবং ‘৫০ বছর পূর্তি উদযাপন কমিটি’র যুগ্ম আহ্বায়ক কামরুল আহসান সংবাদ সম্মেলনে লিখিত বক্তব্যে বলেন, “১৭ মে বাংলাদেশের ওয়ার্কার্স পার্টির প্রতিষ্ঠার পঞ্চাশ বছর পূর্ণ হবে। এই পঞ্চাশ বছরে আমাদের যেমন ছিল সুমহান আন্দোলন অর্জনের, তেমনি লক্ষ্য পূরণ করতে না পারার ব্যর্থতার গ্লানির। এই পঞ্চাশ বছরে পার্টি যেমন এগিয়েছে, তেমনি পিছিয়েছে।

“বহুবিধ বিভক্তি ও ঐক্যের মধ্য দিয়ে বাংলাদেশের কমিউনিস্ট পার্টি (লেনিনবাদী) বর্তমানে বাংলাদেশের ওয়ার্কার্স পার্টি নামে এগিয়ে চলছে। এই পুর্নগঠনের প্রক্রিয়ায় লেনিনবাদী পার্টি যেমন বিভক্তির মুখে পড়েছে, তেমনি বিভিন্ন উপধারায় বিভক্ত বাম কমিউনিস্ট অন্যান্য গ্রুপগুলোকে ঐক্যবদ্ধ করেছে ও শেষ অব্দি ১৯৯২ সালের মে মাসে বাংলাদেশের ওয়ার্কার্স পার্টিতে সংগঠিত হয়ে এক নতুন পথের উন্মোচন করেছে।”

তিনি বলেন, বিভিক্তির ধারা এখনও শেষ হয়নি। আর সে কারণে পার্টি কমরেডদের মতাদর্শগত অবস্থান, সাংগঠনিক শৃঙ্খলা ও ঐক্য ক্ষতিগ্রস্ত হচ্ছে।

“একে মোকাবিলা করে নিরন্তর আন্তঃপার্টি সংগ্রামের মধ্য দিয়ে পার্টিকে মতাদর্শগতভাবে দৃঢ়, সাংগঠনিকভাবে সুশৃঙ্খল ও সর্বোপরি শেণী ও গণসংগ্রামের উপযুক্ত অগ্রগামী বাহিনী হিসাবে পার্টি এগিয়ে চলেছে দেশের ভবিষ্যত বিপ্লবী পরিবর্তনের পথে।”

১৭ মে প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী ‍উৎসব পালনে কেন্দ্রের সঙ্গে সমন্বয় করে সারা দেশে পার্টি কার্যালয় সাজানো, তোরণ নির্মান, আলোকসজ্জা, প্রয়াত নেতাদের ছবি প্রদর্শন, সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান করা হবে বলে সংবাদ সম্মেলনে জানিয়েছেন যুগ্ম আহ্বায়ক কামরুল আহসান।

ওয়ার্কার্স পার্টির সাবেক সাধারণ সম্পাদক আনিসুর রহমান মল্লিক সংবাদ সম্মেলনে বলেন, এ বছর ১৭ মে থেকে ২০২৩ সালের ১৭ মে পর্যন্ত বছরব্যাপী কর্মসূচি হাতে নিয়েছেন তারা। আগামী বছর ১৭ মে পঞ্চাশ বছর পূর্তি সমাপনী অনুষ্ঠান শেষ হবে ‘ওয়ার্কার্স পার্টির পঞ্চাশ বছরের পথ চলা’ শীর্ষক আলোচনা সভার মাধ্যমে।

১৭ মে ২০২২: প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী উৎসব কেন্দ্রীয় অফিস (জেলা-উপজেলা অফিস- যেখানে সম্ভব) সজ্জিতকরণ, তোরণ নির্মাণ, আলোকসজ্জা, প্রয়াত নেতৃবৃন্দের ছবি প্রদর্শন, সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান।

৩১ মে ২০২২: শহীদ জামিল আখতার রতনের মৃত্যুবার্ষিকী: বাংলাদেশে জামায়াতে ইসলামের উত্থান, রাষ্ট্রধর্ম ইসলাম ও সাম্প্রতিক সাম্প্রদায়িক পরিস্থিতি সম্পর্কে আলোচনা অনুষ্ঠান।

৫ জুন ২০২২: পরিবেশ দিবস: গঙ্গা, তিস্তা, যমুনা, মেঘনা ব্যবস্থাপনা ও পানির উপর কৃষক ও আদিবাসীর অধিকার।

১৮ জুন ২০২২: ম্যাক্সিম গোর্কির মৃত্যুদিবস: গণতান্ত্রিক ও সাম্যবাদী আন্দোলনে সাহিত্য ও সাংস্কৃতির ভূমিকা সম্পর্কে আলোচনা।

২৬ জুন ২০২২: শহীদ জননী জাহানারা ইমামের মৃত্যুবার্ষিকী: ঘাতক দালাল বিরোধী আন্দোলন ও যুদ্ধাপরাধী বিচারের তাৎপর্য।

১৩ অগাস্ট ২০২২: ফিদেল কাস্ত্রো, চেগেভারা ও চাভেজ স্মরণ: সমাজতান্ত্রিক আন্দোলন ও লাতিন আমেরিকার অভিজ্ঞতা।

১৭ আগস্ট ২০২২: সন্ত্রাসবিরোধী দিবস: সন্ত্রাস, গুম, খুন, ধর্ষণ প্রতিরোধ বিষয়ক আলোচনা

৯ সেপ্টেম্বর কমরেড মাও জে দংয়ের জন্মদিন: জনগণতান্ত্রিক বিপ্লব: তত্ত্ব ও তার প্রয়োগ

২৮ অক্টোবর ২০২২: শহীদ কমরেড রাসেল আহমেদ খানের মৃত্যুবার্ষিকী: বিএনপি-জামায়াত জোট বিরোধী আন্দোলন

১৭ সেপ্টেম্বর ২০২২: শিক্ষা দিবস: শিক্ষা আন্দোলন-অতীত ও বর্তমান

৭ নভেম্বর ২০২২: রুশ বিপ্লব বার্ষিকী। প্রথম সমাজতান্ত্রিক বিপ্লব, সোভিয়েত রাশিয়ার উত্থান ও পতন

৮ নভেম্বর ২০২২: কমরেড আবুল বাশার, কমরেড শফিকুর রহমান মজুমদার, কমরেড এটিএম নিজামুদ্দিন, কমরেড হাফিজুর রহমান ভূঁইয়া ও কমরেড শফিউদ্দিন আহমেদ স্মরণ: বাংলাদেশের শ্রমিক আন্দোলনের অতীত ও বর্তমান

১০ নভেম্বর ২০২২: শহীদ নূর হোসেন দিবস: স্বৈরাচার এরশাদবিরোধী আন্দোলন

১৭ নভেম্বর ২০২২: মওলানা ভাসানীর মৃত্যুবার্ষিকী: ভাসানী ও স্বাধীনতা

৯ ডিসেম্বর ২০২২: বেগম রোকেয়া দিবস: পঞ্চাশ বাংলাদেশের নারী আন্দোলন; অতীত ও বর্তমান

১৬ ডিসেম্বর ২০২২: বিজয় দিবস: বাংলাদেশের মুক্তিযুদ্ধ

** জানুয়ারি ২০২৩: গণশিল্পী সংস্থার প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী: বাংলাদেশের পঞ্চাশ বছরে সাংস্কৃতিক আন্দোলনের অতীত ও বর্তমান

১৭ জানুয়ারি ২০২৩: কমরেড অমল সেনের মৃত্যুদিবস: বাংলাদেশের কৃষক-খেতমজুর আন্দোলন: অতীত ও বর্তমান

২০ জানুয়ারি ২০২৩: শহীদ আসাদ দিবস

২৩ জানুয়ারি ২০২৩: ঊনসত্তরের গণঅভ্যুত্থান দিবস

২১ ফেব্রুয়ারি ২০২৩: শহীদ দিবস

২২ ফেব্রুয়ারি ২০২৩: স্বাধীন জনগণতান্ত্রিক পূর্ববাংলা ঘোষণা দিবস: বাংলাদেশের মুক্তিযুদ্ধ ও বামপন্থিরা

২৬ মার্চ ২০২৩: স্বাধীনতা দিবস

১৪ এপ্রিল ২০২৩: বাংলা নববর্ষ ও তার সাংস্কৃতিক-সামাজিক তাৎপর্য

১৮ এপ্রিল ২০২৩: চট্টগ্রাম অস্ত্রাগার লুণ্ঠন দিবস: চট্টগ্রামের যুব বিদ্রোহ, বাংলাদেশের যুব আন্দোলন যুবকদের অতীত ও বর্তমান

২৪ এপ্রিল ২০২৩: খাপড়া ওয়ার্ড দিবস: রাজনৈতিক বন্দিদের লড়াই

১লা মে ২০২৩: মে দিবস

৫ মে ২০২৩: মার্কস, এঙ্গেলস, লেনিন ও স্তালিন স্বরণ: কমিউনিস্ট পার্টির ইশতেহার, লেনিনবাদ ও জাতীয় মুক্তি সংগ্রাম

১৭ মে ২০২৩: পঞ্চাশ বছর পূর্তি সমাপনী অনুষ্ঠান: ওয়ার্কার্স পার্টির পঞ্চাশ বছরের পথচলা শীর্ষক আলোচনা।

৫০ বছর পূর্তি উদযাপন কমিটির আহ্বায়ক করা হয়েছে ওয়ার্কার্স পার্টির সাধারণ সম্পাদক ফজলে হোসেন বাদশাকে। কমিটির যুগ্ম আহ্বায়ক ও ওয়ার্কার্স পার্টির পলিট ব্যুরোর সদস্য মাহমুদুল হাসান মানিকসহ কেন্দ্রীয় নেতারা সংবাদ সম্মেলনে উপস্থিত ছিলেন।