২২ জুলাই ২০১৯, ৭ শ্রাবণ ১৪২৬

জাতিসংঘে বাংলাদেশ মিশনে ঈদ পুনর্মিলনী

  • নিউ ইয়র্ক প্রতিনিধি, বিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম
    Published: 2019-06-12 16:01:10 BdST

bdnews24

জাতিসংঘের সদস্য দেশগুলোর স্থায়ী প্রতিনিধি ও রাষ্ট্রদূতদের সম্মানে ঈদ পুনর্মিলনী করেছে বাংলাদেশ স্থায়ী মিশন।

মঙ্গলবার যুক্তরাষ্ট্রের নিউ ইয়র্কে জাতিসংঘের বঙ্গবন্ধু মিলনায়তনে এ অনুষ্ঠানে অতিথিদের স্বাগত জানান বাংলাদেশের পররাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী মো. শাহরিয়ার আলম, বাংলাদেশের স্থায়ী প্রতিনিধি ও রাষ্ট্রদূত মাসুদ বিন মোমেন ও পররাষ্ট্র সচিব মো. শহীদুল হক।

এতে অনুষ্ঠানটি ভারত, শ্রীলঙ্কা, জাপান, রাশিয়া, চীন, সৌদি আরব ও কাতারসহ শতাধিক দেশের স্থায়ী প্রতিনিধি ও বিভিন্ন পর্যায়ের কূটনীতিকদের মিলনমেলায় পরিণত হয়। এ সমাগমে ‘ইন্টারন্যাশনাল অর্গানাইজেশন ফর মাইগ্রেশন’ (আইওএম) এর ডেপুটি ডাইরেক্টর জেনারেল পদে আসন্ন নির্বাচনে বাংলাদেশের প্রার্থী হিসেবে পররাষ্ট্র সচিব মো. শহীদুল হকের প্রার্থীতার বিষয়টি আলোচনা করা হয়।

তাকে সমর্থন দেওয়ার জন্য সদস্য দেশগুলোর প্রতিনিধিদের আহ্বান জানিয়ে শাহরিয়ার আলম বলেন, “বাংলাদেশের পররাষ্ট্র সচিব শহীদুল হক প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার অভিবাসন বিষয়ক বিশেষ দূত এবং আইওএম-এ দীর্ঘ ১২ বছর কাজ করার অভিজ্ঞতা সম্পন্ন একজন পেশাদার কূটনীতিক। আইওএম এর ডেপুটি ডাইরেক্টর জেনারেল হিসেবে তিনি কাজ করার সুযোগ পেলে বৈশ্বিক অভিবাসনের উন্নত ব্যবস্থাপনার ক্ষেত্রে আইওএমকে আরও কার্যকর প্রতিষ্ঠানে পরিণত করতে এই অভিজ্ঞতা কাজে লাগাতে পারবেন।”

জাতিসংঘ অর্থনৈতিক ও সামাজিক পরিষদের (ইকোসক) সদস্যপদে বাংলাদেশের প্রার্থীর প্রতি সমর্থনদানের জন্য তিনি উপস্থিত কূটনীতিকদের ধন্যবাদ জানান। আগামী ১৪ জুন ইকোসকের এ নির্বাচন অনুষ্ঠিত হওয়ার কথা রয়েছে।

বাংলাদেশের স্থায়ী প্রতিনিধি ও রাষ্ট্রদূত মাসুদ বিন মোমেন বাংলাদেশের প্রার্থীর প্রতি সবার সমর্থন প্রত্যাশা করে রোহিঙ্গা সঙ্কটের স্থায়ী সমাধানে সদস্য দেশগুলোকে কার্যকর ভূমিকা রাখার আহ্বান জানান।

পররাষ্ট্র সচিব মো. শহীদুল হক উপস্থিত কূটনীতিকদের সামনে বৈশ্বিক অভিবাসনের সাম্প্রতিক চালচিত্র (মাইগ্রেশন অর্ডার ৩.০) তুলে ধরেন। তিনি নিরাপদ, নিয়মতান্ত্রিক ও নিয়মিত অভিবাসন প্রতিষ্ঠায় একটি কার্যকর ব্যবস্থাপনা গড়ে তোলার বিষয়ে আলোকপাত করেন এবং অভিবাসনের বিভিন্ন সমস্যার কথা তুলে ধরেন। আইওএম ও অভিবাসন নিয়ে কাজ করার অভিজ্ঞতা বৈশ্বিক কল্যাণে ব্যবহার করতে চান বলে উল্লেখ করেন পররাষ্ট্র সচিব।

গত ডিসেম্বরে বাংলাদেশ এবং স্পেনকে আন্তর্জাতিক অভিবাসন রিভিউ ফোরামের মোডালিটিস নির্ধারণে কো-ফ্যাসিলেটেটর নিয়োগ দেওয়া হয়। মঙ্গলবার বাংলাদেশ ও স্পেন জাতিসংঘে এই রেজুলেশনের জিরো ড্রাফট এর উপর প্রথম অনানুষ্ঠানিক আলোচনা পরিচালনা করে। সেখানে বাংলাদেশের স্থায়ী প্রতিনিধি মাসুদ বিন মোমেন ও স্পেনের স্থায়ী প্রতিনিধি কো-ফ্যাসিলেটরের দায়িত্ব পালন করেন।

আনুষ্ঠানে আসা বিদেশি কূটনীতিকদের বাংলাদেশি খাবার দেওয়া হয় এবং বাংলাদেশের চাসহ বিভিন্ন হস্তশিল্প ঈদ উপহার দেওয়া হয়।

প্রবাস পাতায় আপনিও লিখতে পারেন। প্রবাস জীবনে আপনার ভ্রমণ,আড্ডা,আনন্দ বেদনার গল্প,ছোট ছোট অনুভূতি,দেশের স্মৃতিচারণ,রাজনৈতিক ও সাংস্কৃতিক খবর আমাদের দিতে পারেন। লেখা পাঠানোর ঠিকানা probash@bdnews24.com। সাথে ছবি দিতে ভুলবেন না যেন!