যুক্তরাষ্ট্রে আদমশুমারিতে বাংলাদেশিদের চাকরির সুযোগ

  • নিউ ইয়র্ক প্রতিনিধি, বিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম
    Published: 2019-11-18 12:43:58 BdST

bdnews24
সংবাদ সম্মেলনে মাজেদা উদ্দিনসহ কমিউনিটির নেতারা

আদমশুমারি-২০২০ চালাতে দেশব্যাপী অস্থায়ীভাবে ৫ লাখ কর্মী নিয়োগ দেওয়ার ঘোষণা দিয়েছে যুক্তরাষ্ট্র সরকার, এতে করে সেখানে বসবাসরত বাংলাদেশিদের চাকরির সুযোগ তৈরি হয়েছে।

শনিবার নিউ ইয়র্কের ব্রঙ্কসের স্টারলিং-বাংলাবাজার অ্যাভিনিউর এশিয়ান ড্রাইভিং সেন্টারে আয়োজিত এক সংবাদ সম্মেলনে একথা জানায় ‘বাংলাদেশি কমপ্লিট কাউন্ট কমিটি’।

এতে বক্তব্য দেন ‘সাউথ এশিয়ান ফান্ড ফর এডুকেশন, স্কলারশিপ অ্যান্ড ট্রেনিং’ (স্যাফেস্ট) এর প্রতিষ্ঠাতা ও নির্বাহী পরিচালক মাজেদা উদ্দিন।

তিনি জানান, যুক্তরাষ্ট্রে প্রতি ১০ বছর পর এ আদমশুমারি অনুষ্ঠিত হয়। এবার বাংলাসহ ১২টি ভাষা-ভাষীদের এ চাকরিতে নিয়োগ দেবে দেশটির সেন্সাস ব্যুরো।

নিউ ইয়র্কে ‘সেন্সাস টেকার’ পদে নিয়োগপ্রাপ্তরা ঘণ্টায় ২৫ ডলার ও অন্যান্য পদে নিয়োগপ্রাপ্তরা ঘণ্টায় ২০ ডলার করে মজুরি পাবেন। সপ্তাহে পার্টটাইম-ফুলটাইমসহ সর্বোচ্চ ৪০ ঘণ্টা পর্যন্ত কাজের সুযোগ পাবেন তারা। চলতি বছরের নভেম্বর ও ডিসেম্বর মাস নিয়োগ প্রক্রিয়া চলবে।

মাজেদা উদ্দিন বলেন, “এব্যাপারে স্যাফেস্ট সব রকমের সহযোগিতা দিয়ে যাচ্ছে। স্যাফেস্ট এর সহযোগিতায় নিউ ইয়র্কে ব্রঙ্কসের ১২২২ হোয়াইট প্লেইনস রোডে আগামী ২১ ডিসেম্বর সন্ধ্যা ৬টা থেকে রাত ৯টা পর্যন্ত অনলাইনে লোক নিয়োগে সহায়তা দেওয়া হবে।”

‘বাংলাদেশি কমপ্লিট কাউন্ট কমিটি’ জানায়, যুক্তরাষ্ট্রের প্রতিটি অঞ্চলে এ নিয়োগ প্রক্রিয়া ইতিমধ্যে শুরু হয়েছে। নিয়োগপ্রাপ্তরা আগামী ১ এপ্রিল থেকে দেশব্যাপী শুরু হওয়া আদমশুমারিতে ৬ থেকে ৮ সপ্তাহ কাজ করার সুযোগ পাবেন। যুক্তরাষ্ট্রের সিটিজেন ও নন-সিটিজেন ১৮ বছরের বেশি বয়সীরা এ চাকরির জন্য উপযুক্ত বিবেচিত হবেন।

সংবাদ সম্মেলনে আরও বক্তব্য দেন নিউ ইয়র্ক রিজিওনাল সেন্সাস সেন্টারের সুপাভাইজরি পার্টনারশিপ স্পেশালিস্ট জাকেরা আহমেদ, সেন্সাস রিক্রুটিং অ্যাসিস্টেন্ট শামস, নিউ ইয়র্কের ডেপুটি পাবলিক অ্যাডভোকেট জামিলা রোজ, রাজনীতিক মোহাম্মদ এন মজুমদার, ডেমোক্র্যাটিক পার্টির তৃণমূলের সংগঠক ফাহাদ সোলায়মান, কমিউনিটি কর্মী রোক্সানা মজুমদার, নাহিদ খান, জামাল হুসেন ও এমডি আলাউদ্দিন।

প্রবাস পাতায় আপনিও লিখতে পারেন। প্রবাস জীবনে আপনার ভ্রমণ,আড্ডা,আনন্দ বেদনার গল্প,ছোট ছোট অনুভূতি,দেশের স্মৃতিচারণ,রাজনৈতিক ও সাংস্কৃতিক খবর আমাদের দিতে পারেন। লেখা পাঠানোর ঠিকানা probash@bdnews24.com। সাথে ছবি দিতে ভুলবেন না যেন!