চীনে শহীদ দিবস ও আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস উদযাপন

  • ছাইয়েদুল ইসলাম, চীন প্রতিনিধি, বিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম
    Published: 2020-02-25 16:55:35 BdST

bdnews24

যথাযোগ্য মর্যাদা ও ভাবগম্ভীর পরিবেশে চীনের বেইজিং-এ অবস্থিত বাংলাদেশ দূতাবাসে মহান শহীদ দিবস ও আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস পালিত হয়েছে। 

এ উপলক্ষে শুক্রবার সকালে দিনের কর্মসূচির শুরুতে দূতাবাস প্রাঙ্গণে জাতীয় পতাকা অর্ধনমিত করেন চীনে নিযুক্ত বাংলাদেশের রাষ্ট্রদূত মাহবুব উজ জামান।

দূতাবাসের দোয়েল হলরুমে মহান শহীদ দিবস ও আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস উপলক্ষে আলোচনা সভার আয়োজন করা হয়।

এসময় সকল ভাষা শহীদসহ জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান এবং মুক্তিযুদ্ধে বীর শহীদরে আত্মার মাগফিরাত কামনা করে দোয়া পরিচালনা করা হয়। ভাষা শহীদদের স্মরণে দাঁড়িয়ে এক মিনিট নীরবতা পালন করা হয়।

অনুষ্ঠানে মূল অংশে মহান মাতৃভাষা দিবস উপলক্ষে রাষ্ট্রপতি, প্রধানমন্ত্রী, পররাষ্ট্রমন্ত্রী ও পররাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রীর বানী পাঠ করা হয়। এ সময় দূতাবাসের সকল কর্মকর্তা ও কর্মচারীবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন। আলোচনা অনুষ্ঠানে বক্তারা মহান শহীদ দিবস ও আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস তাৎপর্য ঐতিহাসিক প্রেক্ষাপট নিয়ে আলোচনা তুলে ধরেন।

বক্তারা বলেন, বাঙালির জাতিসত্তার উন্মেষ এবং স্বকীয়তা অর্জনের মাধ্যমে এই দিবসের মূল মন্ত্র পরবর্তীতে বাঙ্গালী জাতিকে ধাপে ধাপে মুত্তিযুদ্ধের কাঙ্খিত পটভূমিকায় নিয়ে গেছে।

সমাপনী বক্তব্যে রাষ্ট্রদূত মাহবুব উজ জামান বলেন, "সর্বকালের সর্ব শ্রেষ্ঠ বাঙালি জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের যুগান্তকারী ও বলিষ্ঠ নেতৃত্বে ভাষা আন্দোলনের পটভূমি রচিত হয়। বাঙালির স্বাধীকার আন্দোলনের প্রতিটি ধাপে ভাষা আন্দোলনের মূল মন্ত্র সবিশেষ ভূমিকা রেখেছে।" 

রাষ্ট্রদূত জানান, ২০২০ সালে মুজিব বর্ষ উপলক্ষে বাংলাদেশ দূতাবাস বেইজিং-এ "বঙ্গবন্ধু কর্ণার" এর উদ্বোধন করা হবে।

আলোচনা অনুষ্ঠানের শেষে একুশের গান, কবিতা আবৃত্তি এবং পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় হতে প্রেরিত প্রামাণ‌্য চিত্র প্রর্দশনীর মাধ্যমে এই মহান দিবসের অনুষ্ঠান শেষ হয়।

প্রবাস পাতায় আপনিও লিখতে পারেন। প্রবাস জীবনে আপনার ভ্রমণ,আড্ডা,আনন্দ বেদনার গল্প,ছোট ছোট অনুভূতি,দেশের স্মৃতিচারণ,রাজনৈতিক ও সাংস্কৃতিক খবর আমাদের দিতে পারেন। লেখা পাঠানোর ঠিকানা probash@bdnews24.com। সাথে ছবি দিতে ভুলবেন না যেন!