ইতালিতে স্বাস্থ্যবিধি মেনে বাঙালিদের ঈদ উদযাপন

  • সাইফুল ইসলাম মুন্সী, ইতালি প্রতিনিধি, বিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম
    Published: 2021-05-15 16:14:51 BdST

bdnews24

কোভিড-১৯ এর মধ্যে সর্বোচ্চ সতর্কতা ও স্থানীয় স্বাস্থ্যবিধি মেনে ধর্মীয় ভাবগাম্ভীর্যের মধ্যদিয়ে মুসলিম সম্প্রদায়ের সবচেয়ে বড় ধর্মীয় উৎসব ঈদ পালন করেছেন ইতালি প্রবাসী বাংলাদেশিরা।

মধ্যপ্রাচ্যের দেশ সৌদি আরবের সাথে মিল রেখে বৃহস্পতিবার ইতালিসহ ইউরোপের প্রতিটি দেশে পালিত হয়েছে রোজার ঈদ।

স্থানীয় সময় সকালে দেশটির রাজধানী রোমের ‘পিয়াচ্ছা ভিত্তোরিও’ পার্কে সামাজিক দূরত্ব বজায় রেখে খোলামাঠে ঈদের প্রথম জামাত অনুষ্ঠিত হয়। এছাড়াও রোমের লার্গো প্রেনেস্তিনার খোলামাঠে অনুষ্ঠিত হয় ঈদের দ্বিতীয় জামাত।

এসময় দেশটিতে বসবাসরত প্রবাসী বাংলাদেশিসহ এশিয়া ও আফ্রিকার প্রায় পঞ্চাশটি দেশের মুসলিমরা নামাজে অংশ নেন। নামাজ শুরুর আগে খুৎবায় ফিলিস্তিনির ‘আল-আকসা’ মসজিদে নামাজরত ফিলিস্তিনিদের ওপর ইসরায়েলি হামলার তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ জানানো হয়।

এসময় ইতালিতে নিযুক্ত ‘বাংলাদেশ দূতাবাস’ রোমের কাউন্সেলর এরফানুল হক রাজধানী রোমের পিয়াচ্ছা ভিত্তোরিও পার্কে খোলামাঠের জামাতে উপস্থিত হয়ে এক সংক্ষিপ্ত বক্তব্যে দেশটিতে বসবাসরত বাঙালিদের ঈদের শুভেচ্ছা জানান।

তিনি করোনাভাইরাসের কারণে সবাইকে সতর্কতার সাথে চলাফেরা করার অনুরোধ জানান।

এছাড়া, একই সময়ে ইতালির বাণিজ্যিক রাজধানী মিলানের কেন্দ্রীয় জামে মসজিদে ঈদুল ফিতরের জামাত অনুষ্ঠিত হয়। মিলান ছাড়াও সামাজিক দূরত্ব বজায় রেখে নাপোলি, ভেনিস , ভারেজ, গাল্লারাত, আরেচ্ছোসহ ছোট-বড় প্রায় তিন’শ জায়গায় ঈদুল ফিতরের জামাত পড়েন দেশটির মুসলিমরা। প্রায় প্রতিটি স্থানেই পুরুষদের পাশাপাশি নারীদের নামাজ পড়ার জন্য ছিল বিশেষ ব্যবস্থা।

রোম প্রবাসী রনি হোসাইন বলেন, “ঈদ মানেই পরিবারের সাথে আনন্দ ভাগাভাগি করে নেওয়া। কিন্তু আমাদের পরিবার এখানে না থাকার কারণে সবার সাথে ঈদের আনন্দ ভাগাভাগি করতে পারছিনা। সবার সাথে ঈদ করার আনন্দটা সত্যি খুব মিস করি। ঈদ মোবারক সবাইকে।”

মিলান প্রবাসী এমডি ফরিদ বলেন, “প্রবাসে থাকার কারণে বেশ কয়েক বছর যাবত দেশে ঈদ করা হয়না। বিদেশের ঈদ আর দেশের ঈদের মধ্যে অনেক পার্থক্য খুঁজে পাই । ঈদের সময় দেশের সবাইকে খুব মিস করি।”

ইতালিতে ঈদ উপলক্ষে ছুটি বা রাষ্ট্রীয় কোন পদক্ষেপ না থাকলেও বাঙালি অধ্যুষিত এলাকায় বাঙালিদের উপস্থিতিতে কিছুটা স্বদেশের আমেজ পাওয়া যায়।

প্রবাস পাতায় আপনিও লিখতে পারেন। প্রবাস জীবনে আপনার ভ্রমণ,আড্ডা,আনন্দ বেদনার গল্প,ছোট ছোট অনুভূতি,দেশের স্মৃতিচারণ,রাজনৈতিক ও সাংস্কৃতিক খবর আমাদের দিতে পারেন। লেখা পাঠানোর ঠিকানা probash@bdnews24.com। সাথে ছবি দিতে ভুলবেন না যেন